সংবাদ শিরোনাম
দোয়ারাবাজারে ছানামুড়ি নিয়ে ঝগড়ার জেরে এক বৃদ্ধ খুন  » «   দিরাইয়ের লেগুনা ও মোটর সাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষ: নিহত ২ আহত ১  » «   আখাউড়া স্থলবন্দরে আমদানি-রফতানি বন্ধ  » «   বাংলাদেশের বিপক্ষে পাকিস্তানের সিরিজ জয়  » «   চীনের উহানে আটকা পড়েছে ৫০০ বাংলাদেশি শিক্ষার্থী  » «   নেতাদের পিছনে ঘুরা ছাত্রদের কাজ নয়: নওফেল  » «   আহসান আলীকে সাজঘরে ফেরালেন শফিউল  » «   ‘ভারত ফের ভাগ হবে’  » «   কোম্পানীগঞ্জসহ সকল পাথর কোয়ারি খুলে দেওয়ার দাবিতে অনির্দ্দিষ্টকালের ধর্মঘট শুরু  » «   কানাডায় নতুন ঠিকানা হ্যারি-মেগানের  » «   দক্ষিণ সুরমায় ট্রাকে মিললো দুই যুবকের লাশ  » «   তথ্য প্রযুক্তিতে তৃতীয় ফাইবারে বাংলাদেশ সংযুক্ত হওয়ার পথে-প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী  » «   এ অঞ্চলের মানুষের ভোটে পাকিস্তান সৃষ্টি হয়েছিল-মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী  » «   রান পেতে লড়ছেন মাহমুদউল্লাহ-আফিফ  » «   ছাতকের গোবিন্দগঞ্জে মসজিদের নামে জমি দখল নিয়ে গ্রামবাসীর উত্তেজনা  » «  

ভারতে প্রতি পনের মিনিটে একজন ধর্ষিত

সিলেটপোস্ট ডেস্ক::ভারতে ২০১৮ সালের পর থেকে প্রতি পনের মিনিটে একজন নারী ধর্ষিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৯ জানুয়ারি) দেশটির সরকারের একটি প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশ পায়।

দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তথ্য মতে, ২০১৮ সালে ৩৪ হাজার নারী ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে। এর মধ্যে ৮৫ শতাংশ বেশি অভিযোগ আমলে নেওয়া হয়েছে ও ২৭ শতাংশ দোষীকে সাব্যস্ত করা হয়েছে।

২০১২ সালে দিল্লিতে বাসে ধর্ষণের ঘটনার পর আন্দোলনে নামে প্রায় দশ হাজার বিক্ষুব্ধ জনতা। রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব থেকে শুরু করে বড় পর্দার নায়ক নায়িকারাও এই আন্দোলনে অংশ নেয়। বিক্ষোভের চাপের মুখে ধর্ষণের জন্য নতুন আইন করে ভারত সরকার। দ্রুত বিচার ব্যবস্থা করা হলেও দেশটিতে কমছে না ধর্ষণের পরিমাণ।

দেশটির মহিলা অধিকার সংগঠনগুলো বলছে, মহিলাদের বিরুদ্ধে অপরাধগুলো প্রায়শ কম গুরুত্ব সহকারে নেওয়া হয় এবং সংবেদনশীলতা ছাড়াই পুলিশ তদন্ত করে।

ভারতের মহিলা কমিশনের সাবেক প্রধান ললিতা কুমারমঙ্গলম বলেন, আমাদের দেশ এখনও পুরুষদের দ্বারা নিয়ন্ত্রিত। যে একজন মহিলা প্রধানমন্ত্রী ছিলো তিনি কোনো কিছু পরিবর্তন করতে পারেনি। এছাড়া দেশটির বিচার বিভাগের প্রায় সকলেই এখনও পুরুষ।

আর ক্ষমতাসীন দল বিজেপির এক সংসদ সদস্য বলেন, আমাদের দেশে খুব কম ফরেনসিক ল্যাব রয়েছে এবং দ্রুত আদালতের বিচারকের সংখ্যা খুব কম।

২০১৭ সালে ক্ষমতাসীন দল বিজেপির এক বিধায়ক এক কিশোরীকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ উঠে। কিন্তু পুলিশের নিষ্ক্রিয়তায় পরের বছর মেয়েটি আত্মহত্যা করে।

ভারত সরকারের পরিসংখ্যান অনুযায়ী এখনো ভারতের অনেক জায়গায় ধর্ষণের অভিযোগ নিষিদ্ধ হিসেবে বিবেচিত হয়।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.