সংবাদ শিরোনাম
সুনামগঞ্জ জেলা গোয়েন্দা পুলিশের কাঁচায় মাদক কারবারি গ্রেপ্তার  » «   জগন্নাথপুরের পাটলী সাতহাল গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা মতিনের ইন্তেকাল  » «   বিয়ানীবাজারের জিরো পয়েন্টের চরিয়ার রাস্তায় গাছ ফেলে দুধর্ষ ডাকাতি  » «   চীনে দাড়ি, বোরকা জন্য মুসলিমদের বন্দি  » «   আয়রন ম্যানের মতো আকাশে উড়ে গেলেন ভিন্স রেফেট  » «   উনিশের যুবারাই রাঙালো প্রস্তুতি ম্যাচ  » «   জগন্নাথপুরে টমটমের চাকায় ওড়না পেঁচিয়ে এক বৃদ্ধা মহিলার মৃত্যু  » «   তাপস পালের মৃত্যুতে শোকস্তদ্ধ টলিউড  » «   অভিনেতা তাপস পাল মারা গেছেন  » «   করোনায় আক্রান্ত চিকিৎসাকর্মীদের সংখ্যা নিয়েও মিথ্যা বলছে চীন?  » «   চীনে পানি সমস্যায় বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা!  » «   পাকিস্তানে বিষাক্ত গ্যাস লিক, নিহত ৮  » «   প্রধান শিক্ষক ছাড়াই চলছে ৭ হাজার ১৮ প্রাথমিক বিদ্যালয়  » «   বিএনপি-জামায়াতের ঘাড়ে সওয়ার ড. কামালরা জনবিচ্ছিন্ন  » «   ‘গরু কচুরিপানা খেতে পারলে আমরা কেন পারবো না’  » «  

ভূমিকম্পে নিহতদের লাশ কাঁধে নিয়ে যাচ্ছেন এরদোগান

সিলেটপোস্ট ডেস্ক::পশ্চিম তুরস্কের এলাজিগ প্রদেশে ভূমিকম্পে নিহত দুই ব্যক্তির জানাজার পর তাদের মরদেহ কাঁধে নিয়ে কবরে নিয়ে যেতে দেখা গেছে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগানকে।

শক্তিশালী এই ভূমিকম্পে মৃত্যের সংখ্যা বেড়ে ২৯ জনে দাঁড়িয়েছে। ধ্বংসস্তূপের ভেতর থেকে বেঁচে থাকা লোকজনকে উদ্ধারে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন দেশটির উদ্ধারকর্মীরা।-খবর এএফপির

ভূমিকম্পে রাজধানী আঙ্কারার সাড়ে ৫০০ কিলোমিটার পূর্বের প্রদেশটিতেই ১৩ জন নিহত হয়েছে। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রী ফারেতিন কোসা বলেন, এলাজিগের পার্শ্ববর্তী মালাতিয়া প্রদেশে প্রাণ গেছে আরও ৫ জনের।

উদ্ধার অভিযান তদারকি করতে ফারেতিনের পাশাপাশি আরও বেশ কয়েকজন মন্ত্রীও প্রদেশ দুটিতে ছুটে যান।

ধ্বংসস্তূপের নিচে আটকা পড়া ৩০ জনের খোঁজে উদ্ধার কার্যক্রম চলছে। ভূমিকম্পে পাঁচশতাধিক মানুষ আহত হয়েছেন বলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুলিমান সোইলু জানিয়েছেন।

রাষ্ট্রীয় সম্প্রচারমাধ্যম টিআরটিতে এলাজিগের আংশিক ধ্বসে পড়া একটি ভবনের ভেতর পুলিশ ও জরুরি বিভাগের কর্মীদের উদ্ধার অভিযান চালানোর ফুটেজ দেখানো হয়েছে।

ধ্বসে পড়া অন্য একটি ভবনের ধ্বংসস্তূপ থেকে উদ্ধারকারী দলের সদস্যরা খালি হাতেই ইট-সুরকি সরাচ্ছে। অন্যান্য এলাকায় ধ্বংসস্তূপ সরাতে জরুরি বিভাগের কর্মীদের ড্রিল মেশিনসহ বিভিন্ন সরঞ্জাম ব্যবহার করতে দেখা গেছে।

তুরস্কে এর আগেও বেশ কয়েকটি শক্তিশালী ভূমিকম্প হয়েছিল। ১৯৯৯ সালের অগাস্টে পশ্চিমাঞ্চলীয় ইজমিত শহরে ৭ দশমিক ৬ মাত্রার এক ভূমিকম্পে ১৭ হাজারেরও বেশি মানুষ নিহত হয়েছিলেন।

২০১১ সালে পূর্বাঞ্চলীয় শহর ভান ও এরসিসে অন্য এক ভূমিকম্প অন্তত ৫২৩ জনের প্রাণ কেড়ে নিয়েছিল।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.