সংবাদ শিরোনাম
করোনা: বিশ্ব কাঁপানো মার্কিন রণতরী থেকে বাঁচার আকুতি  » «   ভারতে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত ২৪০ জন  » «   ছুটি বাড়ানোর প্রজ্ঞাপন জারি, অফিস খুলবে ১২ এপ্রিল  » «   করোনা:সিলেটে নতুন করে ৯ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে  » «   জগন্নাথপুরে করোনা সংক্রামন রোধে পুলিশের বিভিন্ন বাজারে প্রচারণা  » «   ‘দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর সবচেয়ে বড়ো পরীক্ষা করোনা’  » «   যুক্তরাষ্ট্রে একদিনে রেকর্ড ৮৬৫ জনের মৃত্যু  » «   করোনা: ক্ষুদ্রঋণ প্রতিষ্ঠানগুলো গ্রাহকদের ঋণের কিস্তি পরিশোধে চাপ দিতে পারবেনা  » «   শৈশবে দেয়া বিসিজি টিকা বাঁচাবে করোনা থেকে!  » «   দিরাইয়ে রাস্তার পাশে পড়ে থাকা অসুস্থ অজ্ঞাত এক ব্যক্তি উদ্ধার  » «   নগরীর খাসদবীরে মাসুকের উদ্যোগে সুবিধাবঞ্চিতদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরন শুরু  » «   ওসমানীনগরে মানা হচ্ছে না নিরাপদ দূরত্ব: প্রশাসনের নিরব ভূমিকা  » «   করোনা:জগন্নাথপুরে প্রত্যেকে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার অনুরোধ সহকারী পুলিশ সুপারের  » «   জগন্নাথপুরে প্রশাসন ও সেনাবাহিনীর যৌথ উদ্যোগে সচেতনামূলক প্রচারনা  » «   সিলেটে হাসপাতাল কোয়ারেন্টাইনে কিশোরীর মৃত্যু: গ্রামের বাড়ী জালালপুরে দাফন সম্পন্ন  » «  

সিলেটে ২৪ ঘন্টায় ১০৪ জনসহ এ পর্যন্ত ৫৬৯ জন প্রবাসী হোম কোয়ারেন্টাইনে

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::সিলেটে ২৪ ঘন্টায় ১০৪ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। সব মিলিয়ে সিলেটে এ পর্যন্ত ৫৬৯ জন প্রবাসী হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। এদিকে শুক্রবার সিলেটের সকল মসজিদে জুমআর নামাজে করোনা ভাইরাসের সংক্রমন থেকে মুক্তি পেতে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। করোনা আতঙ্কে সিলেটের হজরত শাহজালাল (রহ.) মাজার মসজিদ জুমআর নামাজের ২০ মিনিট আগে খুলে দেওয়া হয়। শুধুমাত্র ফরজ নামাজ আদায়ের জন্য মুসল্লিদের সুযোগ দেওয়া হয়। সুন্নত ও নফল নামাজ নিজ নিজ বাসায় আদায় করেন মুসল্লিরা।

গত বৃহস্পতিবার রাতে নামাজের সময়সীমা নির্ধারণ করে মাজার মসজিদ কর্তৃপক্ষ। নামাজের আগে মসজিদের প্রধান ফটক খুলে দেওয়ার পর মুসল্লিদের ঢল নামে। নামাজ শেষে আবার মসজিদ বন্ধ করে দেওয়া হয়। নামাজের পর দেশ ও জাতির কল্যান ও মহামারি করোনা থেকে মুক্তি পেতে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

এদিকে গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে ১০৪ জন প্রবাস ফেরত যাত্রীকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সিলেটের সিভিল সার্জন ডা. প্রেমানন্দ মন্ডল। তিনি বলেন, যারাই প্রবাস থেকে ফিরছে, তাদেও তালিকা করে সংশ্লিষ্ট সকল দফতরে পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে।

পাশাপাশি করোনা আতঙ্কে সিলেট নগরীতে মাস্কের ব্যবহার বেড়ে গেছে। নগরীতেও সাধারণ মানুষের চলাচল স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে অনেকটা কম। রিক্সাসহ অন্য যান চলাচলের পরিমাণও অনেক কম দেখা গেছে।
এদিকে সিলেটের শহিদ শামসুদ্দিন হাসপাতালে করোনা আইসোলেশন কেন্দ্র প্রস্তুত রাখা হয়েছে। গ্রাম পর্যায়ে মনিটরিং জোরদার রয়েছে। গত ১০ মার্চ থেকে সিলেটে সন্দেহভাজন ও প্রবাস ফেরতদের কোয়ারেন্টাইন করা হচ্ছে।

 

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.