সংবাদ শিরোনাম
তাহিরপুর সীমান্তে ভারতীয় গোলকাঠ উদ্বার  » «   সিলেটে ৩ জন চিকিৎসকসহ নতুন করে ১৩ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত  » «   জেলা তথ্য অফিসের উপ পরিচালক মিলি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত  » «   খাদিমনগর ইউনিয়নে চুরি হওয়া গরুসহ দুই চোর আটক  » «   মেয়র আরিফের রোগমুক্তি কামনায় মহানগর  ব্যবসায়ী ঐক্য কল্যাণ পরিষদের দোয়া  » «   আল্লামা শফীর জানাজা সম্পন্ন, লাখো মানুষের ঢল  » «   মৃত ইডেন মহিলা কলেজের শিক্ষিকাকে বদলি  » «   সাবেক মেয়র কামরানের ছোট ভাই বখতিয়ার আহমদ কানিছ আর নেই  » «   যে কেউ পাবে না আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র  » «   ইউএনও ওয়াহিদা ও তার স্বামীকে বদলি  » «   দক্ষিণ সুরমায় নারীকে মারধরের অভিযোগে ট্রাভেলস ব্যবসায়ী গ্রেফতার  » «   দৌড়বিদ-সাইক্লিস্ট ও সাঁতারুদের পদচারণায় মুখরিত ওসমানীনগর  » «   মহানগর পুলিশের অভিযানে গণধর্ষণ মামলার দুই আসামি গ্রেপ্তার  » «   সিলেটে বঞ্চিত আওয়ামী লীগের উদ্যোগে প্রতিবাদ মিছিল  » «   সিলেট জেলা আ.লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি পদে ইমরান আহমদকে দেখতে চায় এলাকাবাসী  » «  

পুলিশের উপর হামলা:অবশেষে চতুল বাজারের ব্যবসায়ীদের ক্ষমা প্রর্থনা

কানাইঘাট প্রতিনিধি::সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার চতুল বাজারে পুলিশের উপর হামলার ঘটনায় অবশেষে ক্ষমা চাইলেন বাজারের ব্যবসায়ীরা। ঘটনার পরপরই চতুল ইউপি’র চেয়ারম্যান মাওঃ আবুল হোসেন, সাবেক চেয়ারম্যান মুবশি^র আলী চাচাই ও চতুল বাজার ব্যবসায়ী সমিতির নেতৃবৃন্দ সহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ বাজারে এসে দোকানপাট বন্ধ করে দেন। এর পরেই সাথে সাথে তারা থানায় এসে উক্ত অনাকাঙ্খিত ঘটনার জন্য পুলিশের নিকট তাৎক্ষণিক ক্ষমা প্রার্থনা করেন। এবং ভবিষ্যতে এরকম কর্মকান্ড আর হবে না মর্মে অঙ্গিকার করেন। বর্তমানে বাজারে পরিস্থিতি স্বাভাবিক। এরপর থেকে তারা সরকারী সকল নির্দেশনা যথাযথ ভাবে পালন করবে মর্মে জানা গেছে। জানা যায় সকালে চতুল ইউনিয়নের অন্তগর্ত হারাতৈল বাগরআগন গ্রামে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ এড়াতে থানার এসআই পান্না লাল দেব ও লিটন মিয়া একদল পুলিশ নিয়ে সেখানে যান। আসার সময় স্থানীয় চতুল বাজারে দেখতে পান সরকারী নির্দেশ অমান্য করে ব্যবসায়ীরা দোকানপাট খোলে রেখেছে। এতে সেখানে ব্যাপক জনসমাগম রয়েছে। বিষয়টি আচঁ করতে পেরে পুলিশ সদস্যরা চতুল বাজারের ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি সহ নেতৃবৃন্দকে নিয়ে করোনা ভাইরাস সংক্রামণ রোধে সরকারী নির্দেশ পালন কল্পে নিত্য প্রয়োজনীয় দোকান পাট ব্যাতিত অন্যান্য দোকানপাট বন্ধ করতে অনুরোধ করেন। তখন ব্যসায়ীরা দোকান বন্ধ না করিয়া সরকারী দল বদ্ধ হয়ে পুলিশের উপর হামলার চেষ্টা করে। এতে দেশের সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনার চেষ্টা করে। এক পর্যায়ে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ ঘটনাস্থলে আসলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আসে। এ ব্যাপারে থানার অফিসার ইনচার্জ শামসুদ্দোহা পিপিএম জানিয়েছেন হামলার চেষ্টাকারী ব্যবসায়ীরা তাদের ভুল বুঝতে পেরে ক্ষমা চেয়েছে। বিধায় আমরা বিষয়টি খতিয়ে দেখে আইনগত ভাবে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার চেষ্টা করবো।

পোস্ট/এ আই/কে জি

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.