সংবাদ শিরোনাম
র‍্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সরোয়ার আলম স্ত্রীসহ করোনা আক্রান্ত  » «   করোনায় আক্রান্ত ছয় হাজার পুলিশ, মৃত্যু ১৯  » «   ভারতে ফের একদিনে রেকর্ড ৯,৯৭১ আক্রান্ত  » «   সিলেটে নতুন করোনায় আক্রান্ত আরো ৪ চিকিৎসক  » «   বালাগঞ্জে বজ্রপাতে নবম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু  » «   ধেয়ে আসছে তিন দৈত্যাকার গ্রহাণু  » «   অধ্যাপক গোলাম রহমানের পুরো পরিবার করোনা আক্রান্ত  » «   লকডাউনে হেয়ার কাট, জরিমানা দিতে হল নয় লাখ টাকা!  » «   নিষিদ্ধ হচ্ছে পুলিশের হাঁটু দিয়ে গলা চেপে ধরা  » «   ট্রাম্পকে হারাতে নির্বাচনী লড়াইয়ে মনোনয়ন পেলেন বাইডেন  » «   মার্কিন তরুণীকে পাকিস্তানি মন্ত্রীর ধর্ষণ, হাত তোলেন প্রধানমন্ত্রী  » «   যুক্তরাজ্যে আটকা পড়া বাংলাদেশিদের ফেরাতে দ্বিতীয় বিশেষ ফ্লাইট  » «   অসুস্থ মাকে হাসপাতালের গেটে ফেলে ছেলে উধাও  » «   নাসিমের অবস্থা সংকটাপন্ন, মেডিকেল বোর্ড গঠন  » «   রবিবার থেকে নতুন নিয়মে লকডাউন  » «  

জগন্নাথপুরে করোনা ভাইরাস আতংকে স্বাভাবিক জীবন যাত্রা ব্যাহত

জগন্নাথপুর প্রতিনিধি::সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে করোনা ভাইরাস আতংকে মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রায় চরম বিপর্যয় নেমে এসেছে। কি করলে নিজের এবং পরিবারের লোকজনদের নিরাপদ রাখা যাবে এমন ভাবনাই ঘুরপাক খাচ্ছে এখানের মানুষের মধ্যে।
করোনা ভাইরাস সংক্রামক থেকে দূরে থাকার পরামর্শমুলক সরকারী-বেসরকারী প্রচার-প্রচারনা, টেলিভিশনের সংবাদ, টকশো এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে দেয়া ষ্ট্যাটাস সাধারণ মানুষকে বিচলিত করে তুলেছে। বিশেষ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে বিভিন্ন ধরনের আদেশ উপদেশ এখন সাধারণ মানুষকে চিন্তিত করে তুলেছে। কতদিন এ অবস্থা চলতে থাকবে এবং কখনোই বা এ অবস্থা থেকে মানুষ মুক্তি পাবে এ প্রশ্নই এখন ঘুরপাক খাচ্ছে সর্বত্র। দেশের অন্যান্য এলাকার ন্যায় এ উপজেলায় সব ধরনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। পাশাপাশি সবর ধরনের সভা-সমাবেশ, গণ সংযোগ, জমায়েত, বৃহৎ পরিসরে ধর্মীয় ও সামাজিক-সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, কমিউনিটি সেন্টার বন্ধ রাখার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে সরকারীভাবে। সর্বক্ষেত্রে এখন সাধারণ মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রায় প্রধান অন্তরায় হয়ে দাঁড়িয়েছে করোনা ভাইরাস আতংক। কয়েকদিনের ব্যবধানেই চাল-ডাল, চিনি, পেঁয়াজ-রসুণ সহ বেশ কিছু দ্রব্যমুল্যের দাম বাড়তে শুরু করলেও বিষয়টি মহামারি আকার ধারন করার আগেই লাগাম টেনে ধরেছে এখানের প্রশাসন। বাজার মনিটরিং করে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে শহরের বেশ কটি দোকান মালিকের বিরুদ্ধে জরিমানা করা হলে মুল্যবৃদ্ধি অনেকটাই থেমে যায়।
করোনা ভাইরাসের ভয়ে ঘর ও বাড়ির আঙ্গিনাতেই আটকে গেছে প্রায় সিংহভাগ মানুষের জীবন। খুব বেশী প্রয়োজন ছাড়া মানুষ বাইরমূখী হচ্ছেন না। শহর ও গ্রাম্য হাট-বাজার যেখানে সকাল থেকে রাত পর্যন্ত মানুষের সমাগম ছিল বর্তমানে এসব স্থানের চিত্র আমুল পাল্টে গেছে।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.