সংবাদ শিরোনাম
র‍্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সরোয়ার আলম স্ত্রীসহ করোনা আক্রান্ত  » «   করোনায় আক্রান্ত ছয় হাজার পুলিশ, মৃত্যু ১৯  » «   ভারতে ফের একদিনে রেকর্ড ৯,৯৭১ আক্রান্ত  » «   সিলেটে নতুন করোনায় আক্রান্ত আরো ৪ চিকিৎসক  » «   বালাগঞ্জে বজ্রপাতে নবম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু  » «   ধেয়ে আসছে তিন দৈত্যাকার গ্রহাণু  » «   অধ্যাপক গোলাম রহমানের পুরো পরিবার করোনা আক্রান্ত  » «   লকডাউনে হেয়ার কাট, জরিমানা দিতে হল নয় লাখ টাকা!  » «   নিষিদ্ধ হচ্ছে পুলিশের হাঁটু দিয়ে গলা চেপে ধরা  » «   ট্রাম্পকে হারাতে নির্বাচনী লড়াইয়ে মনোনয়ন পেলেন বাইডেন  » «   মার্কিন তরুণীকে পাকিস্তানি মন্ত্রীর ধর্ষণ, হাত তোলেন প্রধানমন্ত্রী  » «   যুক্তরাজ্যে আটকা পড়া বাংলাদেশিদের ফেরাতে দ্বিতীয় বিশেষ ফ্লাইট  » «   অসুস্থ মাকে হাসপাতালের গেটে ফেলে ছেলে উধাও  » «   নাসিমের অবস্থা সংকটাপন্ন, মেডিকেল বোর্ড গঠন  » «   রবিবার থেকে নতুন নিয়মে লকডাউন  » «  

জগন্নাথপুরে করোনা সংক্রামন রোধে থানা পুলিশের টহল জোরদার

জগন্নাথপুর  প্রতিনিধি::করোনা ভাইরাস যখন বহির্বিশ্বে মহামারি আকার ধারণ করেছে ঠিক সেই সময় সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার সদর ও বিভিন্ন ইউনিয়নের প্রয়োজনীয় ঔষধের দোকান, নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রে দোকানপাঠ খোলা রেখে বাকি সবধরনের দোকানপাঠ বন্ধ রাখতে পুলিশ সদস্যরা মাঠে তৎপর হতে দেখা গেছে।
উপজেলা থেকে বিভিন্ন স্থানে চলাচলকারী দূরপাল্লার যানবাহন চলাচল সম্পূর্ণভাবে বন্ধ রয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে জগন্নাথপুর থানার এসআই আফসার আহমদের নেতৃত্বে একদল পুলিশ বাহিনীর সদস্যরা পৌর সদরের বিভিন্ন রাস্তার মোড়ে হ্যান্ড মাইক হাতে নিয়ে সাধারণ মানুষজনকে মাস্ক ব্যবহারের পাশাপাশি ঘরের বাহিরে বের হতে নিষেধ করছেন। ফলে শহরের বিভিন্ন রাস্তায় দোকানপাঠ বন্ধ করে দিয়েছেন দোকান মালিকরা।
শহরগুলো ও বলতে গেলে মানুষ শূন্যই মনে হয়। সবার মনে এক ধরনের অজানা আতংঙ্ক বিরাজ করছে। সাধারণ মানুষজন প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাহিরে ও বের হচ্ছেন না। আর যারা বের হচ্ছেন প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ক্রয় করে বাড়ি ফিরতে দেখা যাচ্ছে।
জগন্নাথপুর সার্কেল এর এডিশনাল এসপি মাহমুদুল হাসান চৌধুরী উপজেলার সার্বিক বিষয় নিয়ে সাংবাদিকদের জানান করোনা ভাইরাস সংক্রামন রোধে জগন্নাথপুর থানার পুলিশ তৎপর রয়েছে। উপজেলা সদর সহ বিভিন্ন বাজারে ও মার্কেটে অভিযান চালিয়েছি। মানুষদের সচেতন করেছি।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.