সংবাদ শিরোনাম
র‍্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সরোয়ার আলম স্ত্রীসহ করোনা আক্রান্ত  » «   করোনায় আক্রান্ত ছয় হাজার পুলিশ, মৃত্যু ১৯  » «   ভারতে ফের একদিনে রেকর্ড ৯,৯৭১ আক্রান্ত  » «   সিলেটে নতুন করোনায় আক্রান্ত আরো ৪ চিকিৎসক  » «   বালাগঞ্জে বজ্রপাতে নবম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু  » «   ধেয়ে আসছে তিন দৈত্যাকার গ্রহাণু  » «   অধ্যাপক গোলাম রহমানের পুরো পরিবার করোনা আক্রান্ত  » «   লকডাউনে হেয়ার কাট, জরিমানা দিতে হল নয় লাখ টাকা!  » «   নিষিদ্ধ হচ্ছে পুলিশের হাঁটু দিয়ে গলা চেপে ধরা  » «   ট্রাম্পকে হারাতে নির্বাচনী লড়াইয়ে মনোনয়ন পেলেন বাইডেন  » «   মার্কিন তরুণীকে পাকিস্তানি মন্ত্রীর ধর্ষণ, হাত তোলেন প্রধানমন্ত্রী  » «   যুক্তরাজ্যে আটকা পড়া বাংলাদেশিদের ফেরাতে দ্বিতীয় বিশেষ ফ্লাইট  » «   অসুস্থ মাকে হাসপাতালের গেটে ফেলে ছেলে উধাও  » «   নাসিমের অবস্থা সংকটাপন্ন, মেডিকেল বোর্ড গঠন  » «   রবিবার থেকে নতুন নিয়মে লকডাউন  » «  

জগন্নাথপুরে পুলিশের পক্ষ থেকে বাড়ি বাড়ি গিয়ে ত্রান বিতরণ করলেন ওসি

জগন্নাথপুর প্রতিনিধি::সারা দেশে করোনা রোগীর সংখ্যা বাড়ছে গরীব অসহায় মানুষের কষ্ট করে দিন রাত খাচ্ছেন ত্রাণ সামগ্রী দেওয়ার খবর শুনলেই অসহায় মানুষের ভিড় জমে, নামে ঢল। এমন পরিস্থিতিতে করোনা সংক্রমণ ছড়ানোর আশঙ্কা থাকে।
যে কারণে এবার সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলায় সুনামগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান, বিপিএম এর পক্ষ থেকে প্রায় ৫৫টি কর্মহীন, অসহায়, দরিদ্র পরিবারের মধ্যে বাড়ি বাড়ি গিয়ে চাল, ডাল, আলু, পিয়াজ, ভোজ্য তেলসহ নিত্য প্রয়োজনী খাদ্য সামগ্রী নিয়ে জগন্নাথপুর থানা এলাকার ৮ টি ইউনিয়ন ও পৌরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ডে ত্রাণ সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।


সোমবার সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত বিভিন্ন ইউনিয়নের ন্যায় রানীগঞ্জ ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামের থানার অফিসার ইনচার্জ ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বাড়ি বাড়ি গিয়ে অসহায়দের হাতে ত্রান সামগ্রী পৌঁছে দেন। এ সময় রানীগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম রানা, থানার এসআই ও রানীগঞ্জ বিট পুলিশিং কর্মকর্তা অনুজ কুমার দাশ, এএসআই শিবলু মজমুদার, সাংবাদিক গোলাম সারোয়ার, দুলন মিয়া উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও রবিবার সহকারী পুলিশ সুপার (জগন্নাথপুর-দক্ষিণ সুনামগঞ্জ) মাহমুদুল হাসান চৌধুরী উপজেলা বিভিন্ন গ্রামে গিয়ে ত্রান সামগ্রী বিতরণ করেন।
খাদ্য সামগ্রী বিতরণ শেষে অফিসার ইনচার্জ ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী জানান, সুনামগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান, বিপিএম স্যারের পক্ষ থেকে লোকদেরকে করোনা ভাইরাস থেকে মুক্ত রাখতে অসহায়দের মধ্যে নিজ নিজ বাড়িতে থাকা নিশ্চিত করতে ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে বাড়িতে পৌছে দিচ্ছি। একই সঙ্গে সচেতন করা হচ্ছে সাধারণ মানুষকে।

 

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.