সংবাদ শিরোনাম
র‍্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সরোয়ার আলম স্ত্রীসহ করোনা আক্রান্ত  » «   করোনায় আক্রান্ত ছয় হাজার পুলিশ, মৃত্যু ১৯  » «   ভারতে ফের একদিনে রেকর্ড ৯,৯৭১ আক্রান্ত  » «   সিলেটে নতুন করোনায় আক্রান্ত আরো ৪ চিকিৎসক  » «   বালাগঞ্জে বজ্রপাতে নবম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু  » «   ধেয়ে আসছে তিন দৈত্যাকার গ্রহাণু  » «   অধ্যাপক গোলাম রহমানের পুরো পরিবার করোনা আক্রান্ত  » «   লকডাউনে হেয়ার কাট, জরিমানা দিতে হল নয় লাখ টাকা!  » «   নিষিদ্ধ হচ্ছে পুলিশের হাঁটু দিয়ে গলা চেপে ধরা  » «   ট্রাম্পকে হারাতে নির্বাচনী লড়াইয়ে মনোনয়ন পেলেন বাইডেন  » «   মার্কিন তরুণীকে পাকিস্তানি মন্ত্রীর ধর্ষণ, হাত তোলেন প্রধানমন্ত্রী  » «   যুক্তরাজ্যে আটকা পড়া বাংলাদেশিদের ফেরাতে দ্বিতীয় বিশেষ ফ্লাইট  » «   অসুস্থ মাকে হাসপাতালের গেটে ফেলে ছেলে উধাও  » «   নাসিমের অবস্থা সংকটাপন্ন, মেডিকেল বোর্ড গঠন  » «   রবিবার থেকে নতুন নিয়মে লকডাউন  » «  

জগন্নাথপুরে যুক্তরাজ্য প্রবাসীর উদ্যোগে ৫০০ দরিদ্র পরিবারের মধ্যে চাল বিতরণ

জগন্নাথপুর প্রতিনিধি::সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার রানীগঞ্জ ইউনিয়নের ভালিশ্রী গ্রামে সারা দেশে করোনা ভাইরাস সংক্রমন রোগী বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে অঘোষিত লকডাউন চলছে ঘরে থাকা অসহায় ও দু:স্থ ৫০০ পরিবারের মধ্যে ১০ কেজি করে চাল বিতরণ করা হয়েছে।
জানা যায়, সমাজ সেবক, রানীগঞ্জ বাজারের এমআর ফ্যাশনের মালিক যুক্তরাজ্য প্রবাসী হাজী আব্দুল মুকিত প্রায় ১৫ বছর ধরে ভালিশ্রী গ্রামের ৩০টি পরিবারকে সহায়তা দিয়ে যাচ্ছেন। তিনি নিজ উদ্যোগে দুটি ফান্ডের মাধ্যমে লোকদের চিকিৎসার টাকা ও অসহায় পরিবারের মধ্যে নগদ সহায়তা দিচ্ছেন। এছাড়াও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অনুদান দিয়ে শিক্ষাক্ষেত্রে বিশেষ ভূমিকা রাখছেন।
এর ধারাবাহিকতায় বুধবার সকালে ভালিশ্রী আব্দুল মুকিতের পরিবারের পক্ষ থেকে সূবর্ণকোহা, নোয়াগাঁও, আলমপুর, ভালিশ্রী গ্রামের ৫০০ পরিবারের মধ্যে ভালিশ্রী আফতাব আলী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মাঠে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে আব্দুল মুকিতের ছোট ভাই যুক্তরাজ্য প্রবাসী আব্দুল রব চাল বিতরণ করেন। রানীগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম রানার সহযোগিতায় চাল বিতরণের সময় উপস্থিত ছিলেন ভালিশ্রী গ্রামের মুরুব্বি মো. ছামির উদ্দিন, মো. আমির উদ্দিন, সমাজ সেবক মো. আলতাউর রহমান, জিয়াউর হক, আশরাফুল হক সহ আরো অনেকে।
এ সময় আব্দুল মুকিতের ছোট ভাই যুক্তরাজ্য প্রবাসী আব্দুল রব বলেন, সারা দেশে করোনা ভাইরাস সংক্রমন বৃদ্ধি পাওয়ায় অঘোষিত লকডাউন হয়ে পড়েছে দেশ। বিশেষ করে আমাদের এলাকায় খেটে খাওয়া দিন মুজুরা বেশি সমস্যা রয়েছে। আমার বড় ভাই বিভিন্ন সময় গরিব, দু:খী মানুষের সেবা নিরবে কাজ করে যাচ্ছেন। এর ধারাবাহিকতা আজ আমার পরিবারের পক্ষ থেকে চাল বিতরণ করা হয়েছে। আগামীতে এ সহায়তা অব্যাহত থাকবে। আসুন সবাই সরকারী আইন মেনে চলি।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.