সংবাদ শিরোনাম
সাংবাদিক বাবলুর মাতার মৃত্যুতে সিলেট বিভাগীয় অনলাইন প্রেসক্লাবের শোক  » «   সিলেট বিভাগে নতুন করে আরও ৭৯ জনের করোনা শনাক্ত-মোট ১২৩৮  » «   জগন্নাথপুরে ৫০০ মসজিদে প্রধানমন্ত্রী সহায়তার চেক বিতরণ  » «   সুনামগঞ্জে র‍্যাবের ১৪ সদস্যসহ একদিনে ৩৯ জন করোনায় আক্রান্ত রেকর্ড,এ নিয়ে মোট ২১৩  » «   জগন্নাথপুরে হাওর থেকে এক অঞ্জাতনামা ব্যক্তির অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার  » «   জগন্নাথপুরে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত ১ ব্যক্তি: মোট ১০, সুস্থ ৬, আইসোলেশনে ৪  » «   দোয়ারাবাজারে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১ আহত ১০  » «   সিলেটে দক্ষিণ সুরমায় দু’দল বাস শ্রমিকের মধ্যে দেড় ঘন্টাব্যাপী সংঘর্ষ  » «   করোন:এক দিনে ৯৩ জন আক্রান্ত সিলেট বিভাগে:মোট ১০৪০ জন  » «   ভূমধ্যসাগরে ট্রলার ডুবিতে নিহত ৩৬: এ মামলার প্রধান আসামি রফিকুল গ্রেফতার  » «   সিলেট থেকে বাস চলাচল শুরু  » «   ছাতকে করোনায় আক্রান্ত হয়ে এক ঔষধ ব্যবসায়ীর মৃত্যু  » «   সুনামগঞ্জে চেয়ারম্যানের অপসারনের দাবীতে অভিযোগ দায়ের  » «   সুনামগঞ্জে র‍্যাব ক্যাম্পের ১৬ জন সদস্যসহ মোট ২১ জন করোনায় আক্রান্ত  » «   জগন্নাথপুরে মানসিক রোগী দীর্ঘ এক বছর পর থানা পুলিশের সহযোগিতায় ফিরে পেল পরিবার  » «  

সিলেটে শপিং মল খোলা নিয়ে বৈটক আজ:অনেকেই ঈদ পর্যন্ত শপিংমল বন্ধ রাখার পক্ষে

সিলেটপোস্ট ডেস্ক::ঈদের আগে শপিংমল, মার্কেট ও দোকানপাট খোলা রাখা নিয়ে সিলেটের ব্যবসাযীদের মধ্যে মতবিরোধ দেখা দিয়েছে। নেতৃবৃন্দের অনেকেই ঈদ পর্যন্ত শপিংমল বন্ধ রাখার পক্ষে। তবে কেউ কেউ ১০ মে থেকে দোকানপাট খুলতে চান।

ভিন্ন মত থাকায় এখন পর্যন্ত শপিংমল খোলা নিয়ে কোনো সিদ্ধান্ত পৌছতে পারেননি ব্যবসায়ীরা। এনিয়ে শুক্রবার বিকেলে সিলেটের বিভিন্ন মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতি, দোকান মালিক সমিতি ও ব্যবসাযী ঐক্য কল্যান পরিষদের নেতৃবৃন্দের নিয়ে সভা আহ্বান করেছে সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ। এই সভায়ই শপিং মল খোলার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

এদিকে নগরীর নয়াসড়ক এলাকার ফ্যাশন হাউস, শপিংমলসহ দোকানপাট না খোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নয়াসড়ক ব্যবসায়ী সমিতি। বৃহস্পতিবার দুপুরে বৈঠক করে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় বলে জানিয়েছেন সংগঠনের সভাপতি মাহিউদ্দিন আহমদ সেলিম।

এরআগে বুধবার সকালে সিলেটের ব্যবসায়ী নেতাদের সাথে এনিয়ে বৈঠকে বসেন সিলেটের জেলা প্রশাসক কাজী এম. এমদাদুল ইসলাম। বৈঠকে ব্যবসায়ীদের মধ্যে মতানৈক্য দেখা দেওয়ায় কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে ১০ মে থেকে সিলেটের বিউটি পার্লার ও সেলুন না খোলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানে শারিরীক দুরত্ব বজায় রাখা সম্ভব না হওয়া এগুলো বন্ধের সিদ্ধান্তে নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন সিলেট চেম্বার অাবু কমার্সের সভাপতি আবু তাহের মো. শোয়েব।

জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের বৈঠকের বিষয়ে বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির কেন্দ্রীয় যুগ্ন সম্পাদক আব্দুর রহমান রিপন বলেন, ওই বৈঠকে ২৫ শতাংশ না ব্যবসায়ী শপিংমল ও দোকানপাট না খোলার পক্ষে মত দিয়েছেন। ফলে এনিয়ে কোনো সিদ্ধান্তে পৌছা্ যায়নি।

তিনি বলেন, সাধারণ ব্যবসায়ীদের দাবির প্রেক্ষিতে আমরা বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির পক্ষ থেকে সম্প্রতি ৫/৬ ঘন্টা দোকান খুলে দেওয়ার ব্যবস্থা করার জন্য বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে চিঠি দেই। এই চিঠির প্রেক্ষিতে সরকার ১০ মে থেকে শপিংমল ও দোকানপাট খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এখন ব্যবসায়ীরাই সিদ্ধান্ত নেবেন তারা নিজেদের প্রতিষ্ঠান ও মার্কেট খোলা রাখবেন কী না।

তবে সিলেট মহানগর ব্যবসায়ী ঐক্য কল্যান সমিতির সভাপতি মখন মিয়া বলেন, বেশিরভাগ ব্যবসাযী দোকান না খেলার পক্ষে। দেশের এরকম পরিস্থিতে দোকানপাট খোলা হলে ঝুঁকি আরও বাড়বে।

নগরীর আল হামরা শপিং সিটি ব্যবসায়ীর সভাপতি শামসুল আলম বলেন, আমাদের মার্কেটের বেশিরভাগ ব্যবসায়ী মার্কেট খোলার বিপক্ষে। এখানে ৩২০টি দোকান আছে। বিভিন্ন জেলার মালিক-কর্মূচারী রয়েছেন। তারা এখন সিলেটে আসবেন কিভাবে। কিংবা আসলে রোগবালাই নিয়ে আসছেন কী না তা বুঝবো কিভাবে? ফলে আমি ব্যক্তিগতভাবেও বন্ধ রাখার পক্ষে।

দোকান পাট বন্ধ রাখার পক্ষে মত দিয়েছেন সিলেট চেম্বার অকব কমার্সের পরিচালক আবআদুর রহমান জামিলও।

সিলেট মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্সের সহ-সভাপতি শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল বলেন, এখন বাইরে থেকে লোকজনও সিলেটে আসতে পারবে না। ফলে তেমন ক্রেতা পাওয়া যাবে না। দোকানপাট খোলে কেবল স্বাস্থ্যঝুঁকিই বাড়ানো হবে। একারণে এখন মার্কেট বন্ধ রাখাই ভালো।

সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি আবু তাহের মো. শোয়েব বলেন, বেশিরভাগ ব্যবসায়ী মতামত মার্কেট যেনো বন্ধ থাকে। কারণ রোগির সংখ্যা দিন বাড়ছে। এ অবস্থায় মার্কেট খোলা ঠিক হবে না। তবে বিচ্ছিন্নভাবে কোনো সিদ্ধান্ত না নিয়ে আমরা চাচ্ছি সবার সাথে বসে সম্মিলিতভাবে সিদ্ধান্ত নিতে। তাই কাল (শুতক্রবার) সবার সাথে বসবো।

প্রসঙ্গত, ঈদকে সামনে রেখে ১০ মে থেকে দোকান-পাট ও শপিং মল খোলার অনুমতি দিয়েছে সরকার। বেশ কয়েকটি শর্ত মেনে সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত সারা দেশের শপিং মলগুলো খোলা রাখা যাবে।

গত ৪ মে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে ছুটি বর্ধিতকরণ আদেশে এ অনুমতির কথা বলা হয়েছে।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.