সংবাদ শিরোনাম
সাংবাদিক বাবলুর মাতার মৃত্যুতে সিলেট বিভাগীয় অনলাইন প্রেসক্লাবের শোক  » «   সিলেট বিভাগে নতুন করে আরও ৭৯ জনের করোনা শনাক্ত-মোট ১২৩৮  » «   জগন্নাথপুরে ৫০০ মসজিদে প্রধানমন্ত্রী সহায়তার চেক বিতরণ  » «   সুনামগঞ্জে র‍্যাবের ১৪ সদস্যসহ একদিনে ৩৯ জন করোনায় আক্রান্ত রেকর্ড,এ নিয়ে মোট ২১৩  » «   জগন্নাথপুরে হাওর থেকে এক অঞ্জাতনামা ব্যক্তির অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার  » «   জগন্নাথপুরে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত ১ ব্যক্তি: মোট ১০, সুস্থ ৬, আইসোলেশনে ৪  » «   দোয়ারাবাজারে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১ আহত ১০  » «   সিলেটে দক্ষিণ সুরমায় দু’দল বাস শ্রমিকের মধ্যে দেড় ঘন্টাব্যাপী সংঘর্ষ  » «   করোন:এক দিনে ৯৩ জন আক্রান্ত সিলেট বিভাগে:মোট ১০৪০ জন  » «   ভূমধ্যসাগরে ট্রলার ডুবিতে নিহত ৩৬: এ মামলার প্রধান আসামি রফিকুল গ্রেফতার  » «   সিলেট থেকে বাস চলাচল শুরু  » «   ছাতকে করোনায় আক্রান্ত হয়ে এক ঔষধ ব্যবসায়ীর মৃত্যু  » «   সুনামগঞ্জে চেয়ারম্যানের অপসারনের দাবীতে অভিযোগ দায়ের  » «   সুনামগঞ্জে র‍্যাব ক্যাম্পের ১৬ জন সদস্যসহ মোট ২১ জন করোনায় আক্রান্ত  » «   জগন্নাথপুরে মানসিক রোগী দীর্ঘ এক বছর পর থানা পুলিশের সহযোগিতায় ফিরে পেল পরিবার  » «  

সর্বপ্রথম করোনা রোগী শনাক্ত সিলেট এখন হবিগঞ্জ-কে টক্কর দিয়ে এগিয়ে…

সিলেটপোস্ট ডেস্ক::সিলেট বিভাগের মধ্যে করোনাভাইস আক্রান্ত রোগী সবচেয়ে বেশি ছিলো হবিগঞ্জ। যাকে বলা হতো করোনার ডেঞ্জারজোন হবিগঞ্জ।হবিগঞ্জকেই সিলেট বিভাগের ডেঞ্জারজোন

হিসেবে আখ্যায়িত করেছিলেন সংশ্লিষ্টরা। তবে শনিবার হবিগঞ্জকেও ছাড়িয়ে গেছে সিলেট জেলা। বিভাগের মধ্যে এখন করোনা শনাক্ত হওয়া রোগী সিলেটেই সবচেয়ে বেশি।ফলে এখন থেকে সিলেট দাড়িয়েছে ডেঞ্জারজোনের স্থানে।

সর্ব প্রথম করোনা সনাক্ত হয় সিলেটে গত ৫ এপ্রিল।সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজের সহকারি অধ্যাপক ডা. মঈন উদ্দিন।এখন হবিগঞ্জ-কে টক্কর দিয়ে এগিয়ে সিলেট।

শনিবার সিলেট জেলায় ১৮ জন ও হবিগঞ্জ জেলায় ১১ জনের করোনা শনাক্ত হয়। ফলে সিলেটে মোট শনাক্ত হওয়া রোগীর সংখ্যা দাঁড়ালো ১৩৪ জন। আর হবিগঞ্জে শনাক্ত হয়েছে ১২৯ জনের।
এরআগে শনিবার সন্ধ্যা পর্যন্তও বিভাগের মধ্যে সবচেয়ে বেশি রোগী ছিলো হবিগঞ্জে। শনিবার রাতে নতুন করে শনাক্তের আগে  সিলেটে ১১৬ জন ও হবিগঞ্জ ১১৮ জন রোগী ছিলেন।

শনিবার একদিনেই সিলেট বিভাগের ৩২ জনের করোনা শনাক্ত হয়। এরমধ্যে সিলেট, হবিগঞ্জ ছাড়াও সুনামগঞ্জের একজন ও মৌলভীবাজারে দুজন রয়েছেন। সবমিলিয়ে পুরো সিলেট বিভাগে এ পর্যন্ত ৩৯১ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। সিলেট ও হবিগঞ্জ ছাড়া সুনামগঞ্জে ৬৯ জন, মৌলভীবাজারে ৫৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। সিলেট বিভাগে শনাক্ত হওয়াদের মধ্যে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ৬ জন, সুস্থ ৬৯ জন ও হাসপাতালে ভর্তি আছেন ১৪১ জন।

সিলেট জেলায় দ্রুত রোগী বেড়ে যাওয়াকে উদ্বেগজনক উল্লেখ করে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ পরিচালক ডা. হিমাংশু লাল রায় বলেন, সংক্রমণ রোধে সংশ্লিষ্টদের আরও কার্যকর প্রদক্ষেপ নেওয়া প্রয়োজন। লকডাউন ও সামাজিক দুরত্ব নিশ্চিতে আরও কঠোর হতে হবে। এছাড়া মানুষজনকেও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার ব্যাপারে সচেতন হতে হবে। নতুবা সামনে আরও বিপদে পড়তে হবে।

প্রসঙ্গত, সিলেটে সর্বপ্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় গত ৫ এপ্রিল। ওসমানী মেডিকেল করেজের সহকারি অধ্যাপক ডা. মঈন উদ্দিনের ওইদিন করোনা শনাক্ত হয়। এরপর থেকে দিনদিন বেড়েই চলছে শনাক্ত হওয়া রোগীর সংখ্যা।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.