সংবাদ শিরোনাম
বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবি: ময়ূর-২ এর মালিক গ্রেপ্তার  » «   সিলেটে অনলাইনে পশুর হাট: বর্ণনা দেখে ক্রেতারা উৎসাহী হলে খামারে কিংবা বাড়িতে গিয়েই কিনতে পারবেন  » «   যাত্রীর মধ্যে করোনা ভাইরাস পাওয়ায়:বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ইতালির ‘ক্র্যাক ডাউন’  » «   সিলেটের হাসপাতালে আইসিইউ সুবিধা না পেয়ে অনেক রোগী মারা যাচ্ছে  » «   বৃটেনে বর্ষসেরা বাংলাদেশি ফারজানা  » «   যুক্তরাষ্ট্র একদিনেই দেশটিতে ৬০ হাজারের বেশি রোগী শনাক্ত  » «   বালাগঞ্জ-ওসমানীনগর স্বাস্থ্য বিভাগের সেবাদানে হিমশিম খাচ্ছেন চিকিৎসকরা  » «   সিলেট সুনামগঞ্জে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় কেড়ে নিয়েছে চারজনের প্রাণ  » «   করোনায় আরো ৪৬ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৩৪৮৯  » «   স্বামীর জন্মদিনে তরতাজা সেলফি পোস্ট করে গুঞ্জনে আবারও জল ঢেলে দিলেন সিলেটি বধু মাহি  » «   নিবন্ধিত প্রতিষ্ঠানের টার্নওভার কর সনদপত্র নিজ ব্যবসায়িক কার্যালয়ে টানিয়ে রাখতে  » «   বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় উত্তরার রিজেন্ট হাসপাতাল বন্ধের নির্দেশ  » «   ভারতে-নেপালের দ্বন্দ্বে এক সুন্দরীর নাম  » «   ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত  » «   জগন্নাথপুরে করোনা পিছু ছাড়ছেনা আরও ১জন করোনায় আক্রান্ত: মোট আক্রান্ত ৯৬  » «  

করোনা স্পট হয়ে উঠেছে ওসমানীনগর ৪৮ ঘন্টায় আক্রান্ত ৬: ইউএনও এসিল্যান্ড সাংবাদিক সহ ৩০ জনের নমুনা সংগ্রহ 

শিপন আহমদ, ওসমানীনগর::করোনা ম্পট হয়ে পড়েছে সিলেটের ওসমানীনগর উপজেলা। সচেতনাতা অভাবে দিন দিন বেড়েই চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দুই দিনে ওমানীনগর উপজেলায় ৬ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তবুও থেমে নেই মানুষের জীবন যাত্রা ঈদকে সামনে রেখে বাজারে এলাকাতে রয়েছে উপছে পড়া ভিড়।

বুধবার রাত থেকে শুক্রবার রাত পর্যন্ত দুই দিনে ওসমানীনগরে ৬ জনের করোনা পজেটিভ রিপোর্ট আসে। এ নিয়ে ওসমানীনগর উপজেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ৯ জনে। গত দুই দিনে উপজেলা প্রশাসন করোনা আক্রান্ত ৬ জনের বাড়ি ও বাসা লকডাউন ঘোষনা করেন। অন্যদিকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকতার্, উপজেলা সহকারী কমিশানার (ভুমি) পুলিশ, সাংবাদিক ও রাজনৈতিক নেতা সহ এক দিনে সর্বোচ্চ ৩০জনের নমুনা সংগ্রহ করেছে স্বাস্থ্য বিভাগের লোকজন। শনিবার দুপুর পর্যন্ত উপজেলার তাজপুর কদমতলায় উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রে এ সব নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এ ছাড়া অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ওসমানীনগর(সার্কেল) মো. রফিকুল ইসলাম সিলেট শহীদ শামসুদ্দিন হাসপাতালে নমুনা প্রদান করেছেন বলে জানা গেছে।

ওসমানীনগর উপজেলার করোনা সংক্রান্ত মেডিকেল টিমের প্রধান  ডা. সাকিব আব্দুল্লাহ চৌধুরী জানিয়েছেন ওসমানীনগর সার্কেল অফিসের কয়েকজন পুলিশ, দুজন সাংবাদিক, ১জন সরকার দলীয় নেতা সহ ২৮ জন নমুনা প্রদান করেন। ওসমানীনগরের ইউএনও ও এসিল্যান্ডের নমুনা দ্বায়িত্বরত মেডিকেল টিম ইউএনও অফিসে গিয়ে সংগ্রহ করে নিয়ে এসেছে বলে জানান তিনি।

জানা যায়, অবাদে চলাফেরা, সচেতনতা এবং প্রশাসনের নজরধারী না থাকায় করোনা স্পট হয়ে পড়েছে ওসমানীনগর উপজেলা। ওসমানীনগর উপজেলায় প্রথম করোনা রুগী সনাক্ত হয় ৩০ এপ্রিল উপজেলার দয়ামীর ইউনিয়নের রাইকদাড়া (নোয়াগাঁও) গ্রামের ৫৫ বছর বয়সী এক ব্যক্তি। গত ২৬ এপ্রিল শ্বাসকষ্ট জনিত সমস্যা নিয়ে ওই ব্যক্তি সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হন। চিকিৎসকরা সন্দেহজনক মনে করে এই ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষাগারে প্রেরণ করেন। এরই মধ্যে রোগীর শারীরিক অবস্থার উন্নতি হলে হাসপাতাল থেকে বাড়িতে ফিরে আসেন। তারপর ওসমানীনগরের ওই ব্যক্তির করোনা রিপোর্ট পজিটিভ জানিয়ে রিপোর্ট আসে। এর পর গত ৫ই মে ওসমানীনগরে ২য় করোনা রোগী শনাক্ত করা হয়। আক্রান্ত ব্যক্তি ঢাকা ফেরত ২৪ বছর বয়সী তরুণ উপজেলার গোয়ালাবাজার ইউপির পূর্ব ব্রাহ্মণ গ্রামে বাসিন্দা। এর পর ১০ দিন কোন করোনা রুগী শনাক্ত না হওয়ায় কিছুটা স্বস্থি ফিরলেও ১৫ মে করোনা আক্রান্ত হন বালাগঞ্জ ওসমানীনগর পল্লী বিদ্যুত জোনাল অফিসের এক লাইন টেকনেশিয়ান। তিনি তাজপুর মশ্রব আলী বাসায় ভাড়া থাকতেন। ওই বাসাও ১৬ মে লকডাইন ঘোষণা করা হয়। তার অবস্তার অবনতি হলে পরবর্তীতে ১৮ মেশহীদ শামসুদ্দীন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এদিকে, পল্লী বিদ্যুতের টেকনেশিয়ানের সংস্পর্সে আসা তার (১১) বছরের তার পুত্র এবং আরেক লাইন টেকনেশিয়ান (২২)করোনা আক্রান হয়েছেন। ২১ মে বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলা স্বাস্থ্য কম্পেক্সে থেকে জানানো হয় সংস্পর্সে আসা পল্লী বিদ্যুতের লাইন টেকনেশিয়ানের পুত্র এবং আরো একজন লাইন টেকনেশিয়ান করোনা আক্রান্ত। সংস্পর্সে আসা লাইন টেকনেশিয়ান খাশিপন এলাকায় ভাড়া বাসায় বসবাস করছিলেন। তার বাড়ি হবিগঞ্জ জেলার শাস্তাগঞ্জ এলাকায়। একই দিন তাজপুর কলেজ গেইটের পূর্ব দিকের দুলিয়ারবন্দে গাজীপুর ফেরত করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া রিকশা চালক মো. হাবিব মিয়া (৫০) এর করোনা পজেটিভ বলে জানান ওসমানীনগর উপজেলা করোনা সংক্রান্ত  মেডিকেল টিমের প্রধান ডা. সাকিব উল্লাহ চৌধুরী। বৃহস্পতিবার রাতে বালাগঞ্জ উপজেলা হাসপাতালের নার্সের পিতা (৫৫) করোনা আক্রান্ত হন। তিনি উপজেলার সাদিপুর এলাকার বাসিন্ধা। তিনি দির্ঘ দিন থকে সুনামগঞ্জ জেলার রাণীগঞ্জে বসবাস করে আসছেন বলে জানা গেছে। ২২ মে শুক্রবার রাতে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাব থেকে ই-মেইলের মাধ্যমে এই দুইজন রিপোর্ট পজেটিভ। তারা হলেন ওসমানীনগরে অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের অফিসের (৪০) বছর বয়সী একজন ইন্সপেক্টর ও ইউএনও অফিসের (২৬) বছর বয়সী একজন পরিচ্ছন্নতা কর্মী। ওসমানীনগরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের অফিসের ইন্সপেক্টর পরিবার নিয়ে সিলেট শহরে বসবাস করেন এবং প্রতিদিন ওসমানীনগর থানায় সার্কল অফিসের এসে দায়িত্ব পালন করেন। ইউএনও অফিসের পরিচ্ছনতা কর্মী উপজেলার ভার্ড হাসপাতালের পাশে ভাড়া বাসায় থাকেন। তার বাড়ি সুনামগঞ্জের বিস্বম্ভরপুর উপজেলায়। এ নিয়ে ওসমানীনগরে করোনা আক্রান্তের সংখ্য বেড়ে দাঁড়ালো ৯ জনে।

এদিকে ফেসবুকে ওসমানীনগরের এক সাংবাদিক তার আইডিতে লিখেছন।তার লিখনি নিচে তোলে ধরাহলো:

ওসমানীনগরের হাট-বাজার গুলোতে কেউ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলছে না। চলছে ঈদের কেনা বেচা। বিপনী বিতান গুলোতে ক্রেতাদের উপচে পড়া ভীড়। কিন্তু এসব দেখার কেউ নেই। প্রথম দিকে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে প্রশাসন ঝাপিয়ে পড়লেও ভাইরাসের মহামারি বৃদ্ধির সাথে সাথে সেই তৎপরতা কমে যায়। এখন হাট-বাজার গুলো চলছে ভাইরাস পূর্ববর্তী সময়ের মতো। জানি না কি হতে চলেছে এই এলাকার।
তবে এটাও ঠিক, প্রশাসন অনেক চেষ্টা করেছে, কিন্তু আমরা নিজেদের ভালো নিজেরা চাচ্ছি না। আমরা নিজেরা নিজের জীবনের মূল্য না বুঝলে প্রশাসনের কি বা করার থাকে।
হে আল্লাহ, আপনি আমাদেরকে হেফাজত করুন এবং ভাল মন্দ বুঝার ক্ষমতা দান করুন। আমীন।

 

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.