সংবাদ শিরোনাম
নগরীর ঘাষিটুলা কলাপাড়া এলাকায় মা-ছেলের মৃত্যু  » «   দিরাইয়ের উদির হাওর বিলে বাধঁ দেয়া নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষে একজন নিহত,৪০ জন আহত  » «   রাষ্ট্র ধর্ম নিয়ে তথ্য প্রতিমন্ত্রীর মন্তব্যের কড়া জবাব দিলেন সাঈদ খোকন  » «   শান্তিগঞ্জে জয়কলস গ্রামে প্রতিপক্ষের রামদার কোপে একজন নিহত,একজন আহত  » «   পঞ্চম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের এই বছরের প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা বাতিল  » «   সিলেটে দুই কেন্দ্রে গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ৮ হাজার শিক্ষার্থী  » «   সিলেটে আজ মনোনয়নপত্র দাখিল করছেন সম্ভাব্য প্রার্থীরা  » «   জননেত্রী শেখ হাসিনা একজন স্ট্রং ক্লাইমেট ফাইটার- পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান এমপি  » «   অনুসন্ধান কল্যান সোসাইটি সিলেট এর সভা অনুষ্টিত  » «   কুমিল্লার ঘটনায় জকিগঞ্জে পুলিশ ও বিক্ষুব্ধ জনতার সংঘর্ষ:পুলিশসহ অন্তত অর্ধশত আহত  » «   তৃতীয় ধাপে ইউপি ও পৌরসভা নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা  » «   সুনামগঞ্জের শান্তিগঞ্জে যাত্রীবাহি বাসের ধাক্কায় তিন মোটর সাইকেল আরোহী নিহত  » «   নগরীর বনকলাপাড়া এলাকায় ফ্যানের সঙ্গে গলায় ফাঁস লাগিয়ে এক তরুনের আত্মহত্যা  » «   শারদীয় দুর্গাপূজায় সিলেট বিভাগীয় অনলাইন প্রেসক্লাবের শুভেচ্ছা  » «   সিলেট নগরীতে ছাত্রলীগের কমিটি প্রত্যাখান করে বিক্ষোভ মিছিল  » «  

নগরীর বড়বাজার এলাকায় ‘ছাদ থেকে পড়ে’ এক ব্যবসায়ীর মৃত্যু

সিলেটপোস্ট ডেস্ক::সিলেট নগরীর আম্বরখানা বড়বাজার এলাকায় চারতলা বাসার ‘ছাদ থেকে পড়ে’ এক ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গেছে। আব্দুল আউয়াল (৬০) নামের ওই ব্যক্তি সুনামগঞ্জ জেলার জামালগঞ্জ উপজেলার গোলকপুর গ্রামের মৃত মনফর আলীর ছেলে। তিনি নগরীর জিন্দাবাজারে আল হামলা শপিং সিটির আলিফ কালেকশন নামের একটি কাপড়ের দোকান পরিচালনা করতেন। আজ সোমবার সকালে তার বাসার নিচ থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

মরদেহ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আম্বরখানা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই মফিফ উদ্দিন।

তিনি জানান, বড়বাজার এলাকায় ৬নং বাসায় বসবাস করছিলেন আব্দুল আউয়াল। তার বড় ছেলের বউ প্রেগন্যান্ট। কাল রাতে তার ডেলিভারির জন্য বাসার সবাই রাগীব রাবেয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ছিলেন। বাসায় শুধু ছোট ছেলে (১৭ বছর) ছিল। আজ ভোর রাতে আব্দুল আউয়াল বাসার ছাদ থেকে পড়ে মারা গেছেন।

এসআই মফিজ উদ্দিন বলেন, ‘ধারণা করা হচ্ছে, তিনি লাফ দিয়ে নিচে পড়ে মারা গেছেন। তবে আসল কারণ জানতে ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পাওয়া অবধি অপেক্ষা করতে হবে।’

আব্দুল আউয়ালের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছে পুলিশ। তবে তার পরিবার, ময়নাতদন্ত ছাড়াই মরদেহ দাফনের জন্য জেলা প্রশাসক বরাবরে আবেদন করেছে।

স্থানীয় কাউন্সিলর রেজওয়ান আহমদ পরিবারের বরাত দিয়ে সিলেটভিউকে বলেন, ‘দুই ছেলে ও এক মেয়ের জনক আব্দুল আউয়াল। তিনি এমপিওভুক্ত একটি হাইস্কুলে শিক্ষকতা করতেন। বেশ কয়েক বছর আগে তিনি চাকরি ছেড়ে বিদেশে পাড়ি জমান। কিন্তু সেখানে সুবিধা করতে পারেননি। দেড় বছর পর হতাশ হয়ে দেশে ফিরে আসেন। এরপর মেয়ে জামাইয়ের সাথে নগরীর টিবি গেইট এলাকায় বসবাস করছিলেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘বছরখানেক আগে ব্যবসা শুরু করেন আব্দুল আউয়াল। এরপর পরিবার নিয়ে আলাদা বাসায় ওঠেন। কিন্তু মহামারির কারণে সবকিছু এলোমেলো হয়ে পড়ে। তার পরিবারের সদস্যরা বলেছেন, সাম্প্রতিক সময়ে জীবন সম্পর্কে উদাসীন ছিলেন আব্দুল আউয়াল। কারো সাথে তার শত্রুতা ছিল না। এই মৃত্যু নিয়ে তার পরিবারের সদস্যদের অভিযোগ নেই। তারা ময়নাতদন্ত ছাড়াই মরদেহ দাফন করতে জেলা প্রশাসকের কাছে আবেদন করেছেন।’

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.