সংবাদ শিরোনাম
ছাতকে দু`পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ আহত অর্ধশতাধিক, আটক-১২  » «   ফেসবুকে প্রেম করে ছাত্র মামুনকে বিয়ে করে সুখের সংসার গড়া সেই শিক্ষিকার লাশ উদ্ধার  » «   আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘর নির্মাণে অনিয়ম: ঘটনা টের পেয়ে রাতের আধারেই ঘরগুলো ভাঙ্গলো প্রশাসন   » «   আউশকান্দিতে ডাকাতি প্রস্তুতিকালে আগ্নেয়াস্ত্র সহ ৫ ডাকাতকে গ্রেফতার করেছে নবীগঞ্জ থানা পুলিশ  » «   আওয়ামীলীগের লুটপাটের কারনে দেশে দুর্ভিক্ষ চলছে-সিলেট মহানগর বিএনপি  » «   এডিশন্যাল ডি আই জি কে জেলা শ্রমিক ঐক্য পরিষদের বিদায় সংবর্ধনা ও ক্রেষ্ট প্রদান  » «   আউশকান্দি কলেজিয়েট স্কুলে বখাটেদের উৎপাত বেড়ে গেছে!ছাত্রী ও অভিভাবকরা আতংকিত  » «   সুনামগঞ্জ জেলা ও দিরাই উপজেলা শিক্ষা অফিসারের বিরুদ্ধে দুদকে ঘুষ-দূর্নীতি ও অর্থ কেলেংকারীর অভিযোগ   » «   মাস খানেক পরই বিদ্যুৎ ঘাটতিসহ সবকিছুই ঠিক হয়ে যাবে-পরিকল্পনা মন্ত্রী মান্নান  » «   ওসমানীনগরে পরিমাপে পেট্রোল কম দেয়ায় সুপ্রীম ও আবীর ফিলিং স্টেশনকে জরিমানা  » «   জগন্নাথপুরে এক কৃষক হত্যা মামলায় ১ জনের আমৃত্যু ও ৫ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড  » «   সিলেটের ওসমানীনগরে মা-মেয়েকে জোরপূর্বক ধর্ষণের অভিযোগ  » «   জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির অযৌক্তিক সিদ্বান্ত-বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল  » «   দেশের সংকট নিরসনের জন্য আওয়ামীলীগকে বিতাড়িত করার বিকল্প নেই :খন্দকার মুক্তাদির  » «   চুনারুঘাটে ছেলের হাতে মা খুন,ছেলে আটক  » «  

বিয়েতে টয়লেট যৌতুক !

0063সিলেটপোস্টরিপোর্ট:  হনাগাটির প্রতি মেয়েদের আকর্ষণ চিরকালীন৷‌ এক টুকরো সোনা দেখিয়ে নারীর মন জয় করেছে কত পুরুষ৷‌ সেই আকর্ষণকে তুরি মেরে উড়িয়ে দিল মহারাষ্ট্রের আকোলার চৈতালি ডি গোখলে৷‌ গহনাগাটি, টাকাকড়ি দিয়ে মেয়েকে বিদায় করে থাকে বাবা-মা৷‌ চৈতালি এসব চায়নি৷‌ তার একটাই দাবি, বরের বাড়িতে টয়লেট বানিয়ে দিতে হবে বাবা-মাকে৷‌ কেননা হবু পাত্রের বাড়িতে তখনও টয়লেট ছিল না৷‌ আকোলার এক কৃষক কন্যার দাবিতে সাড়া পড়ে যায়৷‌ অবশেষে তার জেদের কাছে আত্মসমর্পণ করে তার বাবা৷‌ বরের বাড়িতে ১২ হাজার টাকা খরচ করে বসানো হয় আধুনিক টয়লেট৷‌ সঙ্গে বেসিন এবং আয়না৷‌ তবে তাঁর দাবি মানাতে রীতিমত যুদ্ধ করতে হয়েছে চৈতালিকে৷‌ তার কথায়, ‘আমার টেলিভিশন, ফ্রিজ, ওয়াশিং মেশিন বা গয়না গাটিতে কোনও আগ্রহ নেই৷‌ আমার একটি টয়লেট চাই৷‌ ওটাই আমার যৌতুক৷‌’ প্রথমে তার কথা হেসেই উড়িয়ে দিয়েছিল তার বাবা৷‌ তবে মেয়ের ‘সুখে’র কথা ভেবে হার মানতে হয়৷‌ এগিয়ে আসে স্হানীয় ইমারতি দ্রব্য বিক্রেতা৷‌ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ‘স্বচ্ছ ভারত অভিযান’ প্রকল্পে অনুপ্রাণিত বিক্রেতা লাভ না রেখে জিনিসপত্র সরবরাহ করেছেন৷‌ তাই খরচ কমে গিয়ে ১৮ হাজার থেকে ১২ হাজারে৷‌ বিয়ের অনুষ্ঠানে হাজির ছিল অনেক কিশোরীই৷‌ অনেকের সামনেই বিয়ে৷‌ চৈতালির প্রতিবাদ পথ দেখিয়েছে তাদের৷‌ তারাও এখন বিয়েতে টয়লেট দাবি করবে বলে জানিয়েছে৷‌

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.