সংবাদ শিরোনাম
মাধবপুরে বাসের সঙ্গে সিএনজি অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ৩ আহত ৫  » «   সিলেট-তামাবিল সড়কে পাথরবোঝাই ট্রাকের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ নিহত ১ আহত ৩  » «   ওসমানীনগরে এক ট্রাকের ধাক্কায় অপর দুই ট্রাকের চালক নিহত  » «   অ্যানড্রয়েড স্মার্টফোনগুলো আজ থেকে বন্ধ থাকবে  » «   ওসমানীনগরে দয়ামীর এলাকায় ট্রাকচাপায় ২ পথচারী নিহত  » «   গোলাপগঞ্জে.বসতঘর থেকে এক যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার  » «   মৌলভীবাজারে ছোট ভাই এমদাদুলের হাতে বড় ভাই জিয়াউর রহমান খুন  » «   রানীগঞ্জ সেতুর জন্য অধিগ্রহণকৃত ভূমি মালিকরা ক্ষতিপূরণের টাকা প্রাপ্তিতে হয়রানির শিকার  » «   যুক্তরাজ্যে তিন দিনে ৩ বাংলাদেশি খুন  » «   লন্ডনে বিয়ানীবাজারের এক যুবক ও জগন্নাথপুর দাওরাই গ্রামের সাবিনা নিহত  » «   সুনামগঞ্জের ছাতকের ব্যবসায়ী আখলাদ হত্যাকান্ডের ঘটনায় ২ জন গ্রেপ্তার  » «   ওসমানীনগরে ব্যাংকের বুথ ভেঙে টাকা লুট: ৪ ডাকাতের ৫ দিনের রিমান্ড  » «   মাধবপুরে পানিতে ডুবে ২ শিশুর মৃত্যু  » «   নগরীর মজুমদারী এলাকায় বাসার ছাদের পিলারে দুই বোনের ঝুলন্ত লাশ  » «   সিলেটে সিএনজি ফিলিং স্টেশনগুলো রবিবার থেকে চার ঘন্টা করে বন্ধ  » «  

কন্ডোম চুরির অপরাধে মেয়েকে খুন করলেন বাবা

opসিলেটপোস্টরিপোর্ট:দোকান থেকে কন্ডোম চুরি করতে গিয়েছিলেন ১৯ বছরের এক কিশোরী। ধরা পড়া যাওয়ায় দিতে হল প্রাণ। হত্যাকারী নিজের বাবা!চলতি বছরের ২৮ জানুয়ারি কন্ডোম চুরির অপরাধে মেয়ে লরিবকে শ্বাসরোধ করে খুন করেন ৫১ বছরের আসাদুল্লাহ খান। পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত এই পরিবার জার্মানির বাসিন্দা। আসাদুল্লাহ ও তার স্ত্রী শাজিয়া(৪১) দুজনকেই খুনের দায়ে অভিযুক্ত করেছে জার্মানির ডার্মসটাড পুলিস। মেয়েকে খুনের কথা স্বীকার করে নিয়েছেন খান। তার বক্তব্য এক মুসলিম তরুণের সঙ্গে মেয়ের শারীরিক সম্পর্ক তিনি মেনে নেননি বলেই খুন করেছেন মেয়েকে।শুনানির সময় শাজিয়া জানিয়েছেন স্বামীর হাত থেকে মেয়েকে বাঁচানোর চেষ্টা করেছিলেন তিনি। কিন্তু স্বামী তাকে সব ক্ষেত্রেই দমিয়ে রাখতেন বলে পেরে ওঠেননি। যদিও তার এই বক্তব্য সম্পূর্ণ মিথ্যা বলে দাবি করেছেন খান দম্পতির ছোট মেয়ে নাদিয়া। তিনি বলেছেন, “মাকে কখনই দমিয়ে রাখা হতো না। যা চাইতেন তাই করতে পারতেন। আমাকে মা লাঠি দিয়ে মারতেন।” নাদিয়া আরও জানিয়েছেন তাদের বাবা কোনওদিনই লরিবের সম্পর্ক মেনে নেননি। জোর করে তাকে পাকিস্তানে নিয়ে গিয়ে বিয়ে দিতে চেয়েছিলেন।আদালতকে পুরো ঘটনার বিবরণ দিতে গিয়ে শাজিয়া বলেন, “লরিব বহুদিন বাড়ির বাইরে রাত কাটাতো, হিজাব পরতেও অস্বীকার করতো। একদিন থানা থেকে চিঠি আমাদের জানানো হয় কন্ডোম চুরি করতে গিয়ে লরিব ধরা পড়েছে। আমি সেই চিঠি আমার স্বামীকে দেখানোর পরই উনি রাগে ফেটে পড়েন।”  লরিবের বয়ফ্রেন্ড রাহিল জানিয়েছেন তার সঙ্গে সম্পর্ক রাখার কারণে প্রায়ই বাবা, লরিবকে অত্যাচার করতেন তার বাবা, মা।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.