সংবাদ শিরোনাম
দোয়ারাবাজারে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে সংঘর্ষ, আহত ৬  » «   সিলেটের ওসমানীনগরে চোরাই মোটরসাইকেল উদ্ধার, আটক ১  » «   দেশে আধুনিক ক্রীড়ার রূপকার ছিলেন শহীদ শেখ কামাল: প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী  » «   দক্ষিণ সুরমায় মেয়েকে ফিরে পেতে এক পিতার আকুতি  » «   বানারীপাড়ায় সাজাপ্রাপ্ত পলাতক দূর্দান্ত প্রতারক রঞ্জন গ্রেফতার  » «   দক্ষিন সুরমার সুলতানপুর-গহরপুর সড়কে দুর্ঘটনায় নিহত ৩  » «   সাংবাদিক অজয় পালের প্রতিকৃতিতে সিলেটের সর্বস্থরের নাগরিকদের শ্রদ্ধা নিবেদন  » «   ঐতিহ্যবাহী ‘মাছের মেলা’ শেরপুরে হাজারো মানুষের ঢল  » «   দক্ষিণ সুমরার বাইপাস এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় দুইজন নিহত  » «   আমাদের দেশের শিক্ষার্থীরা আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন হয়ে গড়ে উঠছে: মন্ত্রী ইমরান  » «   আওয়ামীলীগের বিদায় নিশ্চিত করে দেশে জনগণের সরকার প্রতিষ্টা করতে হবে :কাইয়ুম চৌধুরী  » «   অবকাঠামো উন্নয়ন এর মাধ্যমে দেশ গড়ার কাজ করতে হবে-প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী ইমরান আহমদ  » «   ছাতকে অধ্যক্ষ অপসারণের দাবীতে সড়ক অবরোধ করেছে ছাত্রলীগ  » «   দোয়ারাবাজারে বিজিবি’র অভিযানে চৌদ্দ লক্ষ টাকা উদ্ধার  » «   দোয়ারাবাজারে চিলাই নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন! ২টিড্রেজার মেশিনসহ বালু জব্দ  » «  

আকাশসীমা লঙ্ঘনের পরও মার্কিন বিমানকে গুলি করেনি ইরান

134সিলেটপোস্ট রিপোর্ট :ইরানের খাতামুল আম্বিয়া বিমান প্রতিরক্ষা ঘাঁটির কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ফারজাদ ইসমাইলি বলেছেন, গত বছর ইরানের আকাশসীমা লঙ্ঘনের পরও মার্কিন সামরিক বিমানকে গুলি করা থেকে বিরত ছিল ইরান।তিনি বলেন, মার্কিন বিমানটি অবৈধভাবে ইরানের আকাশে ঢুকেছিল এবং একে ধ্বংস করার অধিকার ইরানের ছিল। কিন্তু আঞ্চলিক নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতার কথা বিবেচনা করে তড়িঘড়ি এ ধরনের সিদ্ধান্ত নেয়নি ইরান। সিরিয়ার আকাশে তুরস্ক রাশিয়ার একটি যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করার পরিপ্রেক্ষিতে এ কথা বলেছেন জেনারেল ইসমাইলি।তিনি বলেন, অনুপ্রবেশকারী যে কোনো বিমানকে প্রথমেই গুলি করে নামানোর পদক্ষেপ নেয়া হয় না।তড়িঘড়ি সিদ্ধান্ত গ্রহণ থেকে বিরত থাকার বিষয়ে গুরুত্বারোপ করে তিনি বলেন, যে পদক্ষেপ সবার শেষে নেয়ার কথা তা একেবারে শুরুতেই নেয়া উচিত নয়। তিনি বলেন, মধ্যপ্রাচ্যে স্থিতিশীলতা, নিরাপত্তা এবং শান্তি প্রতিষ্ঠার স্বার্থে এটি করা উচিত।রুশ বিমান ভূপাতিত করার বিষয়ে জেনারেল ইসমাইলি আরো বলেন, তুর্কি আকাশসীমা লঙ্ঘনের বিষয়টি এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। বিষয়টি ন্যাটো এবং রাশিয়া খতিয়ে দেখছে বলে জানান তিনি।২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরে হরমুজগান প্রদেশের বন্দর আব্বাসে একটি বিমান অবতরণ করতে বাধ্য করেছিল ইরান। সংযুক্ত আরব আমিরাতের ফ্লাই দুবাই এয়ারলাইন্স থেকে ভাড়া করা বিমানটি আফগানিস্তানের বাগরাম ঘাঁটি থেকে আকাশে উড়েছিল। ওই বিমানে শতাধিক মার্কিন সেনা ছিল।
প্রথমে বিমানটিকে ফিরে যাওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়। তবে আফগানিস্তানে ফেরার মতো প্রয়োজনীয় জ্বালানি নেই বলে জানানোর পর বন্দর আব্বাসে নামার নির্দেশ দেন ইরানি কর্মকর্তারা। একে প্রথমে বেসামরিক বিমান হিসেবে দাবি করা হয়েছিল। কিন্তু আফগানিস্তানে সামরিক কর্মকাণ্ডে জড়িত সেনাসদস্যদের বহন করেছিল বলে একে সামরিক বিমান হিসেবে অভিহিত করে ইরান।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.