সংবাদ শিরোনাম
দোয়ারাবাজারে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে সংঘর্ষ, আহত ৬  » «   সিলেটের ওসমানীনগরে চোরাই মোটরসাইকেল উদ্ধার, আটক ১  » «   দেশে আধুনিক ক্রীড়ার রূপকার ছিলেন শহীদ শেখ কামাল: প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী  » «   দক্ষিণ সুরমায় মেয়েকে ফিরে পেতে এক পিতার আকুতি  » «   বানারীপাড়ায় সাজাপ্রাপ্ত পলাতক দূর্দান্ত প্রতারক রঞ্জন গ্রেফতার  » «   দক্ষিন সুরমার সুলতানপুর-গহরপুর সড়কে দুর্ঘটনায় নিহত ৩  » «   সাংবাদিক অজয় পালের প্রতিকৃতিতে সিলেটের সর্বস্থরের নাগরিকদের শ্রদ্ধা নিবেদন  » «   ঐতিহ্যবাহী ‘মাছের মেলা’ শেরপুরে হাজারো মানুষের ঢল  » «   দক্ষিণ সুমরার বাইপাস এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় দুইজন নিহত  » «   আমাদের দেশের শিক্ষার্থীরা আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন হয়ে গড়ে উঠছে: মন্ত্রী ইমরান  » «   আওয়ামীলীগের বিদায় নিশ্চিত করে দেশে জনগণের সরকার প্রতিষ্টা করতে হবে :কাইয়ুম চৌধুরী  » «   অবকাঠামো উন্নয়ন এর মাধ্যমে দেশ গড়ার কাজ করতে হবে-প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী ইমরান আহমদ  » «   ছাতকে অধ্যক্ষ অপসারণের দাবীতে সড়ক অবরোধ করেছে ছাত্রলীগ  » «   দোয়ারাবাজারে বিজিবি’র অভিযানে চৌদ্দ লক্ষ টাকা উদ্ধার  » «   দোয়ারাবাজারে চিলাই নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন! ২টিড্রেজার মেশিনসহ বালু জব্দ  » «  

বিশ্বনাথে নদী থেকে উদ্ধারকৃত কঙ্কালটি কি সেই মনাফের?

6সিলেটপোস্ট রিপোর্ট :সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার খাজাঞ্চী ইউনিয়নের কাটা গাং নদী থেকে পিলারের সাথে বাঁধা অবস্থায় একটি লাশের কঙ্কাল উদ্ধার করা হয়েছে। বুধবার বিকেলে কঙ্কালটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ওসমানী হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। কঙ্কালটি একই ইউনিয়নের হরিপুর গ্রামের মৃত জবান আলীর ছেলে কবর থেকে চুরি হওয়া নিহত আব্দুল মনাফের লাশের হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।
স্থানীয় সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার কাটা গাং নদীতে মাছ ধরার সময় একটি পিলারের সাথে বাঁধা অবস্থায় কঙ্কালটি দেখতে পান জেলেরা। তারা কঙ্কালটি নদী থেকে তুলে তীরে রাখেন। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে বিপুল সংখ্যক উৎসুক মানুষ ঘটনাস্থলে জড়ো হন।
খবর পেয়ে বিশ্বনাথ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে কঙ্কালটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট এমএজি ওসমানী হাসপাতালে প্রেরণ করে। বিশ্বনাথ থানার এসআই তোফাজ্জল হোসেন জানান, কঙ্কালটি উদ্ধার করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের পরই জানা যাবে, এটি কবর থেকে চুরি হওয়া সেই আবদুল মনাফের কি না।প্রসঙ্গত, বিশ্বনাথ উপজেলার খাজাঞ্চী ইউনিয়নের হরিপুর গ্রামের মৃত জবান আলীর ছেলে আবদুল মনাফ (৫৫) চলতি বছরের ১৬ মে বিকেলে নিখোঁজ হন। ১৮ মে সন্ধ্যায় তার লাশ পাওয়া যায়। এ ঘটনায় ৬ জনকে অভিযুক্ত করে মনাফের ভাই আবদুল হাশিম আদালতে মামলা দায়ের করেন।মামলার একপর্যায়ে আদালত পুনরায় লাশের ময়নাতদন্তের নির্দেশ দেন। লাশ দাফনের প্রায় আড়াই মাস পর, গত ৪ আগস্ট পুনঃময়নাতদন্তের জন্য লাশ উত্তোলন করতে গিয়ে কবরে লাশ পাওয়া যায়নি। লাশের বদলে কবরে কাফনের কাপড়, নীল রংয়ের পলিথিন ও প্লাস্টিকের সুতলি পাওয়া গিয়েছিল।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.