সংবাদ শিরোনাম
আউশকান্দিতে ডাকাতি প্রস্তুতিকালে আগ্নেয়াস্ত্র সহ ৫ ডাকাতকে গ্রেফতার করেছে নবীগঞ্জ থানা পুলিশ  » «   আওয়ামীলীগের লুটপাটের কারনে দেশে দুর্ভিক্ষ চলছে-সিলেট মহানগর বিএনপি  » «   এডিশন্যাল ডি আই জি কে জেলা শ্রমিক ঐক্য পরিষদের বিদায় সংবর্ধনা ও ক্রেষ্ট প্রদান  » «   আউশকান্দি কলেজিয়েট স্কুলে বখাটেদের উৎপাত বেড়ে গেছে!ছাত্রী ও অভিভাবকরা আতংকিত  » «   সুনামগঞ্জ জেলা ও দিরাই উপজেলা শিক্ষা অফিসারের বিরুদ্ধে দুদকে ঘুষ-দূর্নীতি ও অর্থ কেলেংকারীর অভিযোগ   » «   মাস খানেক পরই বিদ্যুৎ ঘাটতিসহ সবকিছুই ঠিক হয়ে যাবে-পরিকল্পনা মন্ত্রী মান্নান  » «   ওসমানীনগরে পরিমাপে পেট্রোল কম দেয়ায় সুপ্রীম ও আবীর ফিলিং স্টেশনকে জরিমানা  » «   জগন্নাথপুরে এক কৃষক হত্যা মামলায় ১ জনের আমৃত্যু ও ৫ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড  » «   সিলেটের ওসমানীনগরে মা-মেয়েকে জোরপূর্বক ধর্ষণের অভিযোগ  » «   জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির অযৌক্তিক সিদ্বান্ত-বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল  » «   দেশের সংকট নিরসনের জন্য আওয়ামীলীগকে বিতাড়িত করার বিকল্প নেই :খন্দকার মুক্তাদির  » «   চুনারুঘাটে ছেলের হাতে মা খুন,ছেলে আটক  » «   জৈন্তাপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২  » «   দোয়ারাবাজারে ভারতীয় মালামালসহ আটক ২   » «   ওসমানীনগর থানার ওসি অথর্ব ও দুর্নীতিবাজ-মোকাব্বির খান এমপি  » «  

দ. আফ্রিকা থেকে লাশ হয়ে ফিরছেন সিলেটের যুবক বাছন

11সিলেটপোস্ট রিপোর্ট :জীবনজীবিকার তাগিদে পরিবার পরিজন ছেড়ে দীর্ঘ ৮ বছর ধরে সুদূর দক্ষিণ আফ্রিকায় ছিলেন সিলেটের সন্তান বাছন মিয়া। দীর্ঘদিন পর পরিবার পরিজনদের সাথে দেখা করতে তার দেশে ফেরার কথা ছিল ৭ ডিসেম্বর। ফিরছেন তিনি। তবে জীবিত নয়, লাশ হয়ে। নিঠুর নিয়তি দেখতে দেয়নি তার ফুটফুটে শিশুর মুখ। ভিনদেশের মাটিতে শিকার হয়েছেন নির্মমতার। দুর্বৃত্তদের হাতে ৩ ডিসেম্বর খুন হয়েছেন তিনি। মাত্র ২৭ বছর বয়সী বাছন মিয়া গোলাপগঞ্জ উপজেলার জাঙ্গালহাটা গ্রামের মৃত ওয়াতির আলীর ছেলে।তার মৃত্যুতে পরিবারে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। ৮ ভাই বোনের মধ্যে বাছন সবার ছোট। সর্বশেষ তিনি ২০১২ সালে দেশে এসে বিয়ে করেছিলেন। দু’বছর বয়সী একটি ছেলে সন্তানও রয়েছে বাছনের। ৭ ডিসেম্বর দেশে স্বজনদের সাথে দেখা করার জন্য তার দেশে আসার কথা ছিল পূর্ব নির্ধারিত। কিন্তু আসছেন ঠিকই তবে জীবিত নয়।গত ৩ ডিসেম্বর তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে দক্ষিণ আফ্রিকা লেবফোরটিস্থ বাসায় যান। রাতে তার ঘরে ঢুকে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা করে অজ্ঞাত পরিচয় দুর্বৃত্তরা। নিহত বাছন মিয়া দীর্ঘ ৮ বছর ধরে আফ্রিকার লেবফোরটি শহরে একটি নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দোকান পরিচালনা করে আসছিলেন।
বাছন মিয়ার পারিবারিক স্বজনরা বলেছেন, ৭ ডিসেম্বর নিহত বাছনের মরদেহ দেশে পৌছুনোর কথা ছিল। কিন্তু বিমানের ফ্লাইট জটিলতায় লাশ এসে এখনো পৌঁছুয়নি। ৭ ডিসেম্বর দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে মরদেহ রওয়ানা হয়ে দেশে এসে পৌঁছুবে ৮ ডিসেম্বর। ওইদিন রাতে এশার নামাজ পর বাছনের জানাযা শেষে দাফন সম্পন্ন করা হবে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.