সংবাদ শিরোনাম
আওয়ামীলীগ দেশকে শ্রীলঙ্কার দিকে ঠেলে দিচ্ছে-শেপী  » «   ওসমানীনগরে জুতা পায়ে দিয়ে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে শ্রদ্ধা নিবেদন!  » «   জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাঙালী জাতির অবিস্মরণীয় নেতা-আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা ফয়সল কাদের  » «   ছাতকে দু`পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ আহত অর্ধশতাধিক, আটক-১২  » «   ফেসবুকে প্রেম করে ছাত্র মামুনকে বিয়ে করে সুখের সংসার গড়া সেই শিক্ষিকার লাশ উদ্ধার  » «   আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘর নির্মাণে অনিয়ম: ঘটনা টের পেয়ে রাতের আধারেই ঘরগুলো ভাঙ্গলো প্রশাসন   » «   আউশকান্দিতে ডাকাতি প্রস্তুতিকালে আগ্নেয়াস্ত্র সহ ৫ ডাকাতকে গ্রেফতার করেছে নবীগঞ্জ থানা পুলিশ  » «   আওয়ামীলীগের লুটপাটের কারনে দেশে দুর্ভিক্ষ চলছে-সিলেট মহানগর বিএনপি  » «   এডিশন্যাল ডি আই জি কে জেলা শ্রমিক ঐক্য পরিষদের বিদায় সংবর্ধনা ও ক্রেষ্ট প্রদান  » «   আউশকান্দি কলেজিয়েট স্কুলে বখাটেদের উৎপাত বেড়ে গেছে!ছাত্রী ও অভিভাবকরা আতংকিত  » «   সুনামগঞ্জ জেলা ও দিরাই উপজেলা শিক্ষা অফিসারের বিরুদ্ধে দুদকে ঘুষ-দূর্নীতি ও অর্থ কেলেংকারীর অভিযোগ   » «   মাস খানেক পরই বিদ্যুৎ ঘাটতিসহ সবকিছুই ঠিক হয়ে যাবে-পরিকল্পনা মন্ত্রী মান্নান  » «   ওসমানীনগরে পরিমাপে পেট্রোল কম দেয়ায় সুপ্রীম ও আবীর ফিলিং স্টেশনকে জরিমানা  » «   জগন্নাথপুরে এক কৃষক হত্যা মামলায় ১ জনের আমৃত্যু ও ৫ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড  » «   সিলেটের ওসমানীনগরে মা-মেয়েকে জোরপূর্বক ধর্ষণের অভিযোগ  » «  

জেলা ছাত্রলীগের পদবঞ্চিত নেতৃবৃন্দের সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়

4সিলেটপোস্ট রিপোর্ট :সম্মানীত উপস্থিতি প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিক ভাইয়েরা আজ আপনাদের সামনে ক্ষোভ ও দুঃখ ভারাক্রান্ত মন নিয়ে হাজির হয়েছি। আপনারা নিশ্চয় অবগত আছেন ২০১৪ সালের ৮ইং সেপ্টেম্ভর বাংলার ছাত্র সমাজের অহংকার কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি এইচ.এম. বদিউজ্জামান সোহাগ এবং সাধারণ সম্পাদক সিদ্দিকী নাজমুল আলম হজরত শাহজালাল এবং শাহপরানের পুন্যভূমিতে শাহরিয়ার আলম সামাদকে সভাপতি এবং রায়হান চৌধুরীকে সাধারণ সম্পাদক করে এক বছরের জন্য সিলেট জেলা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা করেন। দায়িত্ব গ্রহণের পর সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক সংগঠনের গতিশীলতা আনয়ন করতে কোনরুপ পদক্ষেপ গ্রহণ করেননি । কোন উপজেলা পর্যায়ে কার্যক্রম ব্যতিত এবং উপজেলার নেতৃবৃন্দের সাথে কোনরুপ সাংগঠনিক যোগাযোগ ছাড়াই বেশ কয়েকটি উপজেলা কমিটি বাতিল করে। কিন্তু আজ অবদি একটি উপজেলা কমিটি গঠন করা সম্ভব হয়নি। জেলা ছাত্রলীগের তৃনমূল কর্মীদের নিয়ে কোন কর্মীসভা পর্যন্ত করতে ও ব্যর্থ হয়েছে। শুধুমাত্র আওয়ামীলীগের সভা সমাবেশ যোগদান এবং কেন্দ্রীয় কর্মসূচি পালনের মধ্যেই সিলেট জেলা ছাত্রলীগের কার্যক্রম সীমাবদ্ধ ছিল। এমতাবস্থায় সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক তৃণমূল ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে মেয়াদ উত্তীর্ণ কমিটিকে নিজের অনুসারী এবং ঘনিষ্টজনদের নিয়ে পূর্নাঙ্গ করতে তৎপর হয়ে উঠে। যার ফলস্বরুপ অভিভাবক সংগঠন আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ এবং স্বজ্ঞীয় ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দের সাথে কোন আলোচনা না করেই নিজস্ব বলয় ভাড়ী করার জন্য অছাত্র, বিবাহিত, চাঁদাবাজ, ছিনতাকারী, শিবির ছাত্রদল থেকে অনুপ্রবেশকারী, হত্যা মামলার আসামী এবং অর্থের বিনিময়ে অরাজনৈতিক ব্যক্তিদের নিয়ে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করে। এমন হটকারী, অভিবেচক এবং গঠনতন্ত্রবিরোধী সিদ্ধান্ত ছাত্রলীগের অন্তঃপ্রান নেতা-কর্মীরা মেনে নিতে পারছিনা। আমরা বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক সিলেটের সু-সন্তান এস.এম.জাকির হোসাইন ভাইয়ের নেতৃত্বের সকল আন্দোলন সংগ্রামে অংশগ্রহণ করে আসছি। অতীতেও ছাত্র শিবির বিতাড়ন, বি.এন.পি জামাতের অগ্নিসংযোগ আন্দোলন মোকাবেলা এবং ৫ জানুয়ারীর নির্বাচনেও ঐক্ষ্যবদ্ধ ছিলাম। আমাদের শেষ আশ্রয়স্থল প্রাণপ্রিয় নেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা। আমরা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ নিয়ে রাজনীতি করি। এই কমিটি মেনে নেওয়া মানে আমাদের রক্তের সাথে বেইমানী করা, আদর্শের সাথে বেইমানী করা।

প্রিয় সাংবাদিক বন্ধুগণ
আপনারা দেখেছেন বিগত ৮ই ডিসেম্ভর আমাদের পবিত্র মাজার জিয়ারত আর শহীদ মিনারে ফুল দেওয়ার নামে যে কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নেতৃত্বে পূর্ণভূমি সিে টে রামদা মিছিল ও আগ্নেয় আশ্রেয় প্রদর্শন হয়। সেই কমিটির নেতৃত্ব আমরা কিভাবে মেনে নিব।

আমরা বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সংগ্রামী সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ এবং সাধারণ সম্পাদক এস.এম.জাকির হোসাইন ভাইয়ের প্রতি আকুল আবেদন জানাচ্ছি অনতিবিলম্বে গঠিত কমিটি বাতিল করে সিলেটের ছাত্রলীগকে রক্ষা করবেন। বাংলাদেশ ছাত্রলীগের নিবেদিত এবং বঞ্চি নেতাকর্মীদের নিয়ে অবৈধ এই কমিটি বাতিলের দাবীতে সিলেটের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্র ধর্মঘট এবং সকল উপজেলা ইউনিটে বিক্ষোভ মিছিল পালিত হয়। সিলেটের আপামর ছাত্র সমাজ একাত্ত্বতা পোষণ করে কর্মসূচী সমূহ বাস্তবায়ন করে । এজন্য আমরা সিলেট জেলা ছাত্রলীগের সকল পর্যায়ের নেতা-কর্মীদের ধন্যবাদ জানাই।

এতে উপস্থিত ছিলেনঃ
জেলা ছাত্রলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি নিজাম উদ্দিন, সহ সভাপতি হোসাইন আহমদ চৌধুরী, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক মওদুদ আহমদ আকাশ, সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক সম্পাদক বিপ্লব কান্তি দাস, গণ শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক কনক পাল অরূপ, আইন সম্পাদক টিপু রঞ্জন দাস, উপ ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক বখতিয়ার আকরাম চৌধুরী অনিক, পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক সাদিকুর রহমান প্রমুখ।
কমিটিতে যাদেরকে পদ দেওয়া হয়ে তাদের নামের তালিকা
১। হোজায়েল আহমদ বাপ্পী (অর্থ সম্পাদক) সাবেক প্রচার সম্পাদক
মদনমোহন কলেজ ইসলামী ছাত্র শিবির। একাদিক মামলার আসামী এবং তার পিতা জামাতের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত।
২। শাক্কুর আহমদ জনি- যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক।
রিকু বড়–য়া হত্যা মামলার ৩ নং আসামী। মামলা নং- ১৮/১২১ শাহপরান থানা। রিকু বড়–য়ার ভাই লাভলু বড়–য়া জেলা যুবলীগের সদস্য।
৩। মোঃ জুবায়ের খান- যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক।
টুলটিকর ইউয়িনের বালুচর, সাবেক ছাত্রদল নেতা। জেলা টমটম ব্যবসায়ী সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক।
৪। সুলেমান হোসেন চৌধুরী- সহ-সভাপতি ।
অছাত্র, বিবাহিত এক পুত্র সন্তানের জনক, পুত্রের নাম: সাকিব, স্ত্রীর নাম: দিপা।
৫। মোঃ ছয়েফ আহমদ- সহ-সভাপতি।
অশিক্ষিত, ছাত্রদল থেকে অনুপ্রবেশকারী এবং অস্ত্রবাজ, শাহপরান থানার একাদিক মামলার আসামী।
৬। জাকারিয়া মাহমুদ রহমান- সমাজ সেবা সম্পাদক
অশিক্ষিত, চিহ্নিত সন্ত্রাসী, উপশহর এলকায় চাদাঁবাজ ৬১ জন ব্যবসায়ীর স্মারক লিপি প্রদানসহ একাদিক মামলার আসামী।
৭। আদিরাজ উজ্জ্বল- দপ্তর সম্পাদক
সঠিক নাম মুহিবুর রহমান উজ্জ্বল, অশিক্ষিত ৮ম শ্রেণীতে অধ্যায়নকালে ইভটিজিং এর দায়ে স্কুল থেকে বহিষ্কৃত।
৮। মারুফুল হাসান মারুপ- সহ সম্পাদক
বিবাহিত এবং এক সন্তানের জনক।
৯। সৌরভ আহমদ তালুকদার- সহ সম্পাদক
যুক্তরাজ্য বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কয়ছর আহমদের ভাগ্না। যুক্তরাজ্যে সফরকালে শেখ হাসিনার গাড়ীবহরে হামলাকারী। সাবেক ছাত্রদল নেতা।
১০। সাইফুর রহমান- সহ-সভাপতি- অশিক্ষিত, ফার্মেসী ব্যবসায়ী।
১১। নিলয় কিশোর ধর জয়- প্রচার সম্পাদক- অশিক্ষিত, মির্জাজাঙ্গল এলাকর চিহ্নিত অপরাধী এবং নেশাখোর।
১২। সাহেদ আহমদ- সহ-সভাপতি- অছাত্র, দর্জী ব্যবসায়ী, উপশহর আছমা টেইলার্স।
১৩। মোঃ হাবিব আহমদ- সহ-সম্পাদক- সাবেক ছাত্রদল নেতা, অশিক্ষিত, নন্দিতা সিনেমা হলের দালাল।
১৪। আব্দুল রাহী রিফাত- উপগণ যোগাযোগ সম্পাদক
ছাত্রদল থেকে অনুপ্রবেশকারী, জামান গ্রুপ।
১৫। মোঃ তানভির হোসেন- উপ গণশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক
বিবাহিত, অশিক্ষিত, ছিনতাকারী, জাল আলীর ছোট ভাই।
১৬। মিজানুর রহমান মিজান- সহ সম্পাদক-অশিক্ষিত।
১৭। মুহিবুর রহমান মুহিব- উপ পাঠাগাড় সম্পাদক
ছাত্রদল থেকে অনুপ্রবেশকারী
১৮। আলী হোসেন- সহ সভাপতি
অশিক্ষিত, অর্থ আত্মসাৎকারী, একাধিক অপরাদের অপরাধী।
১৯। তোফায়েল আহমেদ সানী- যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক
ছাত্রদল থেকে অনুপ্রবেশকারী
২০। এ.কে.এম চৌধুরী জাবেদ- সাহিত্য বিষয়ক সম্পাদক
অছাত্র, রাজাম্যনশন ব্যবসায়ী কমিটির সদস্য, ছাত্র শিবির থেকে অনুপ্রবেশকারী
২১। কামরান হোসেন খান- সাংগঠনিক সম্পাদক- ট্রাভেলস ব্যবসায়ী, মাসুদ ট্রাভেলস, রাজা ম্যানশন।
২২। সোহেল আহমদ মুননা- সহ সভাপতি- ইউনিপেটু এর মাধ্যমে অর্থ আত্মসাৎকারী, আদম ব্যবসায়ী।
২৩। অনিরুদ্ধ মজুমদার পলাশ- সহ সভাপতি- নারীনির্যানত মামলায় কারাভোগকারী।
২৪। ইমরান চৌধুরী- সহ সভাপতি- করিমউল্লাহ মার্কেটের ব্যবসায়ী ও অছাত্র।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.