সংবাদ শিরোনাম
দেয়ারাবাজারে রাতে ঘর থেকে মুখ চাপা দিয়ে এক সংখ্যালঘু স্কুল ছাত্রীকে অপরহণ   » «   শাওন হত্যার প্রতিবাদে সিলেটে যুবদলের বিক্ষোভ  » «   পার্কিং ট্রাকের পিছনে প্রাইভেট কারের ধাক্কা সুনামগঞ্জ -সিলেট মহাসড়কে নিহত ১ আহত ২  » «   জামালগঞ্জে নৌ দুর্ঘটনায় নিখোঁজের ২২ ঘন্টা পর ২ জনের মরদেহ উদ্বার  » «   জালিম সরকারের পতন না হওয়া পর্যন্ত ঘরে ফিরে যাব না : কাইয়ুম চৌধুরী  » «   মুন্সীগঞ্জে শান্তিপূর্ণ সমাবেশে হামলায় সিলেটে যুবদলের বিক্ষোভ মিছিল  » «   দোয়ারাবাজারে হাওর থেকে বৃদ্ধের মৃতদেহ উদ্ধার  » «   ৪ মেয়ে জন্ম দেওয়ায় স্বামীর নির্যাতনে গৃহবধূর আত্মহত্যার ঘটনায় স্বামী কারাগারে  » «   আওয়ামীলীগ সরকার গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে না : কাইয়ুম চৌধুরী  » «   নবীগঞ্জে নিখোঁজের ২দিন পর বিবিয়ানা নদী থেকে এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার  » «   শাল্লায় মেম্বার ও চেয়ারম্যান কর্তৃক শালিশের নামে কিশোরীকে ধর্ষণ  » «   গ্রাহকের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে উল্টো মামলায় গ্রেফতার করে হয়রানির প্রতিবাদে মানববন্ধন  » «   জৈন্তাপুরে বালু ভর্তি ট্রাক আটক:১ মাসের ব্যাবধানে ২ ট্রাক ভারতীয় কসমেটিকস জব্দ-আটক-১  » «   নবীগঞ্জে কবরস্থান ও সরকারি রাস্তা জোর পূর্বক দখল: হত্যার হুমকি, অভিযোগ দায়ের  » «   দোয়ারাবাজারে ১১ বছরের শিশু ধর্ষণ মামলার আসামি গ্রেফতার  » «  

‘জিনের বাদশা’ গ্রেফতার, গৃহবধূর ১৬ ভরি স্বর্ণালঙ্কার উদ্ধার

3সিলেটপোস্ট রিপোর্ট :সিলেট নগরী থেকে নূরে আলম (৩৮) নামের কথিত জিনের বাদশাকে গ্রেফতার করেছে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। তার কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে প্রতারণার মাধ্যমে আত্মসাতকৃত ১৬ ভরি স্বর্ণালঙ্কার। রবিবার তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতার হওয়া ‘জিনের বাদশা’ নূরে আলম সিলেট নগরীর ভাতালিয়ার মৃত নাছির উদ্দিনের ছেলে।

সিলেট মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত উপ কমিশনার মো. ইকবাল হোসাইন জানান- নূরে আলম নিজেকে জিনের বাদশা পরিচয় দিয়ে মাজারে মাজারে ঘুরে বেড়াতো। কোন নি:সন্তান সহজ সরল গৃহবধূ মাজারে আসলে কৌশলে তার মোবাইল ফোন নাম্বার সংগ্রহ করতো। পরে প্রতারণামূলক নানা রকমের কথাবার্তা বলে সে নি:সন্তান গৃহবধূদের টোপে ফেলে তাবিজ-কবজের মাধ্যমে সন্তান লাভের আশা দিয়ে টাকা পয়সা ও স্বর্ণালঙ্কার হাতিয়ে নিতো।

সম্প্রতি এমন প্রতারণার শিকার হন ফরিদপুর জেলার কোতোয়ালী থানার ঝিলটুলি মোল্লাবাড়ির গৃহবধূ সুলতানা লাইজু (৩৯)। নূরে আলম নিজেকে জিনের বাদশা পরিচয় দিয়ে লাইজুর সাথে গত কয়েকদিন ধরে মোবাইল ফোনে কথা বলতো।

বিভিন্ন রকম আধ্যাত্মিক কথা, গজল, কোরআনের আয়াত, ইসলামিক কবিতা শুনিয়ে লাইজুর কাছে নিজেকে জিনের বাদশা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করে।

একপর্যায়ে লাইজু ‘জিনের বাদশা’ নুরে আলমকে জানায়, সে নি:সন্তান হওয়ায় তার সংসারে অশান্তি চলছে। তখন নূরে আলম তাবিজ-কবজের মাধ্যমে তাকে সন্তান পাইয়ে দেয়ার আশ্বাস দিয়ে তার সকল স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে ঢাকার গাবতলী বাস টার্মিনালে আসতে বলে।

লাইজু তার স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে গাবতলীতে আসলে নূরে আলম কৌশলে তা হাতিয়ে নেয়। এর দুইদিন পর সন্তান লাভের তাবিজ-কবজের জন্য আরো ২০ লাখ টাকা দাবি করে নূরে আলম। টাকা না দিলে লাইজুর পুরো পরিবারের ক্ষতির হুমকি দেয় সে।

ভয় পেয়ে লাইজু বাড়ি বিক্রি করে ১০ লাখ টাকা সংগ্রহ করে তা নূরে আলমের হাতে তুলে দেয়ার প্রস্তুতি নেয়। টাকা কোথায় নিয়ে আসতে হবে জানতে চাইলে নূরে আলম শাহজালাল (রহ.) এর মাজারে আসতে বলে। এরপর থেকে রহস্যজনক কারণে নূরে আলম যোগাযোগ কমিয়ে দিলে লাইজুর সন্দেহ হয়।

প্রতারণার বিষয়টি টের পেয়ে লাইজু বিষয়টি সিলেট মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত উপ কমিশনার মো. ইকবাল হোসাইনকে জানায়।

গত রবিবার রাত সাড়ে ১১টায় নূরে আলমের কথামতো টাকা দিতে নগরীর তাজমহল হোটেলের কাছে আসেন লাইজু ও তার স্বামী। এসময় কথিত জিনের বাদশা নূরে আলম টাকা নিতে আসলে ওৎ পেতে থাকা গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল তাকে গ্রেফতার করে। পরে তার কাছ থেকে প্রায় ১৬ ভরি স্বর্ণালঙ্কার উদ্ধার করা হয়।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.