সংবাদ শিরোনাম
ছাতকে রাস্তার ঢালাই কাজে নিম্নমানের কংক্রিট ও বালু ব্যবহারে অনিয়মের অভিযোগ  » «   সুদখোর ও জুয়াড়ী গুলজার বাহিনীর অত্যাচারে অতিষ্ঠ নবীগঞ্জের তিমিরপুর গ্রামবাসী  » «   লিবিয়ার থেকে মাফিয়া দালারের খপ্পরে পড়ে লাশ হয়ে ফিরতে হলো জগন্নাথপুরের এখওয়ান  » «   দোয়ারাবাজারে অনলাইনে  কোটি টাকা প্রতারণা আটক স্কুল শিক্ষক  » «   সুনামগঞ্জ কোটি টাকা আত্মসাৎ চেয়ারম্যান শেরিনকে গ্রেফতার করেছে সিআইডি  » «   নবীগঞ্জে মসজিদের জুতার বক্সের ভিতরে থেকে ৩ মাসে একটি শিশু ছেলেকে পুলিশ উদ্ধার করেছে  » «   রেমিট্যান্স কেনার ডলার রেট কমল, কার্যকর ১ অক্টোবর  » «   দেয়ারাবাজারে রাতে ঘর থেকে মুখ চাপা দিয়ে এক সংখ্যালঘু স্কুল ছাত্রীকে অপরহণ   » «   শাওন হত্যার প্রতিবাদে সিলেটে যুবদলের বিক্ষোভ  » «   পার্কিং ট্রাকের পিছনে প্রাইভেট কারের ধাক্কা সুনামগঞ্জ -সিলেট মহাসড়কে নিহত ১ আহত ২  » «   জামালগঞ্জে নৌ দুর্ঘটনায় নিখোঁজের ২২ ঘন্টা পর ২ জনের মরদেহ উদ্বার  » «   জালিম সরকারের পতন না হওয়া পর্যন্ত ঘরে ফিরে যাব না : কাইয়ুম চৌধুরী  » «   মুন্সীগঞ্জে শান্তিপূর্ণ সমাবেশে হামলায় সিলেটে যুবদলের বিক্ষোভ মিছিল  » «   দোয়ারাবাজারে হাওর থেকে বৃদ্ধের মৃতদেহ উদ্ধার  » «   ৪ মেয়ে জন্ম দেওয়ায় স্বামীর নির্যাতনে গৃহবধূর আত্মহত্যার ঘটনায় স্বামী কারাগারে  » «  

ব্লু-বার্ডের বর্ধিত বেতন প্রত্যাহারের দাবিতে অর্থমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাৎ করলেন অভিভাবকরা

2সিলেটপোস্ট রিপোর্ট :ব্লু-বার্ড স্কুল এন্ড কলেজে দীর্ঘদিন বেতন আটকে রেখে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন ছাড়া বর্ধিত বেতন বহাল রাখার প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার রাতে শিক্ষার্থীদের অভিভাবকবৃন্দ নগরীর ধোপাদিঘির পূর্বপারস্থ হাফিজ কমপ্লেক্সে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত এমপি’র সাথে সাক্ষাৎ করেন এবং এ সময় মন্ত্রীর হাতে একটি স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।

স্মারকলিপি প্রদানকালে উপস্থিত ছিলেন জাতিসংঘের বাংলাদেশের সাবেক স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত ড. এ.কে আব্দুল মোমেন, সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বিজিত চৌধুরী, আওয়মীলীগ নেতা অধ্যক্ষ জাকির হোসেন, সিটি কর্পোরেশনের ৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবজাদ হোসেন আমজদ, ৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ইলিয়াছুর রহমান ইলিয়াছ, ৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মুখলিছুর রহমান কামরান, ২০নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আজাদুর রহমান আজাদ, অভিভাবকদের পক্ষে শাখাওয়াত আলী শাহী, সাবেক কাউন্সিলর আব্দুর রকিব বাবলু, কুমার গণেশ পাল, সফিকুল ইসলাম, নিখিল দে, আজিজুর রহমান, শামীম আহমদ সুমন, শফিক খান প্রমুখ।

স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়- বøু-বার্ড স্কুল এন্ড কলেজে প্রি-নার্সারী হতে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত প্রায় ৪ হাজার ৫ শত ছাত্র-ছাত্রী লেখাপড়া করছে। প্রতিটি ক্লাশে ৪ থেকে ৫টি শাখা রয়েছে। প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ বিগত ২০১৬ সনে অযৌক্তিকভাবে সেশন ফি ও জানুয়ারী মাসের বেতন বর্ধিত করেন। যা ছাত্র-ছাত্রীদের অভিভাবক অনেক কষ্টে প্রদান করেছেন।

স্মারকলিপিতে বলা হয়েছে, প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা পরিষদ/ অধ্যক্ষ মহোদয় ছাত্র-ছাত্রীদের অভিভাবকদের কোন প্রকার অবগত না করিয়া শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কোন প্রকার অনুমোদন ছাড়া অযৌক্তিকভাবে ২০১৬ সনের জানুয়ারী মাস থেকে প্রি-নাসারী ভর্তি ফি- ৯ হাজার ৭ শত ৭৫ টাকা এবং মাসিক বেতন বাড়িয়ে ১ হাজার ৫ শত টাকা করে; কিন্তু বিগত বছরে প্রি-নার্সারীর মাসিক বেতন ছিল ৮ শত টাকা।

তদ্রæপ প্রতিটি শ্রেণিতে অযৌক্তিকভাবে বেতন বৃদ্ধি করে জানুয়ারী ২০১৬ সনে নোটিশ প্রদান করেন।

এই নোটিশের প্রেক্ষিতে অভিভাবকগণ জানুয়ারী ২০১৬ সনের মাসিক বেতনসহ ভর্তি ফি প্রদান পূর্বক প্রাইম ব্যাংকে সুবিদবাজার শাখায় জমা দিয়ে ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি কার্যক্রম শেষ করেন।

ইতিমধ্যে সরকারী নির্দেশনা মোতাবেক অনুযায়ী গত ফেব্রæয়ারী মাস হতে মাসিক বেতন নেওয়া বন্ধ হয়ে যায়। তখন অভিভাবকগণ অধ্যক্ষের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, শিক্ষা মন্ত্রণালয় হতে নির্দেশনা না আসা পর্যন্ত বেতন নেয়া যাবে না। এমতাবস্থায় অভিভাবকগণ শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন না হওয়া পর্যন্ত বিগত বছরের ন্যায় বর্তমান ২০১৬ সালের শিক্ষার্থীদের বেতন গ্রহণের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে মন্ত্রীকে বিশেষভাবে অনুরোধ জানান।

স্মারকলিপিতে আরো উল্লেখ করা হয়েছে- আগামী জুলাই মাসে অর্ধবার্ষিকী পরীক্ষাকে ইস্যু করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অনুমোন না আসলেও শ্রেণি শিক্ষক-শিক্ষিকাবৃন্দ কোমলমতি শিক্ষার্থীদের ক্লাসে বেতন দেওয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করেন ও বেতন পরিশোধ করে বেতন রসিদ শ্রেণি শিক্ষকের নিকট জমা দেয়া জন্য এবং বলেন বেতন পরিশোধ না করলে অর্ধ বার্ষিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে দেয়া হবে না। যা শিষ্টচার বহিভর্‚ত এবং কোমলমতি শিক্ষার্থীদের মনে ভীতি সঞ্চার করছে।

এছাড়াও অত্র শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ হোসনে আরা যোগদান করার পর হতে অত্র প্রতিষ্ঠানটি ছাত্র-ছাত্রী ও অভিভাবকদের সাথে দূরত্ব সৃষ্টি হয়েছে এবং তার অযৌক্তিক সিদ্ধান্তের কারণে গভর্নিং বডির অনেক  সদস্যগণের সাথে বার বার ঝগড়া-ঝাটি সহ দূরত্বের সৃষ্টি হয়েছে।

এছাড়াও দীর্ঘ কয়েক বছর যাবৎ অত্র প্রতিষ্ঠানের আয়-ব্যয়ের হিসাব অভিভাবকদের জানা নেই বা সরকারী কোন প্রতিষ্ঠান দ্বারা অডিটও করানো হয়নি। স্মারকলিপিতে গত বছরের ন্যায় বেতন গ্রহণ করার যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে অর্থমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ধৈর্য্য সহকারে অভিভাবকবৃন্দের বক্তব্য শুনেন এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আশ^াস প্রদান করেন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.