সংবাদ শিরোনাম
সিলেটে রাহাত খুনের ব্যবহৃত চাকুটি উদ্ধার করেছে সিআইডি  » «   চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ সুমন মিয়া’র মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত  » «   দক্ষিণ সুরমা কলেজছাত্র রাহাত হত্যা মামলার প্রধান আসামি সাদি কুষ্টিয়া থেকে গ্রেফতার  » «   হবিগঞ্জের মাধবপুরে দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে দুজন নিহত  » «   খালেদা জিয়া আইসিইউতে  » «   আজ খুলে দেওয়া হয়েছে সিলেটের “শাবিপ্রবির” সকল আবাসিক হল  » «   সিলেটে দুই ইউপি সদস্য প্রার্থীর লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষ:নিহত ১  » «   সিলেটে নির্মাণাধীন সেপটিক ট্যাংকে পরে নিহত ১ আহত আরেকজন  » «   সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট এবং দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতিতে আওয়ামীলীগ সরকারকে পদত্যাগ জরুরী-মির্জা ফখরুল  » «   আওয়ামী লীগ সরকারের অধীনে কোনো সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব নয়-সিলেটে ফখরুল  » «   সিলেট-ঢাকা মহাসড়কের ছয় লেন কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন প্রধানমন্ত্রী  » «   জগন্নাথপুরে বিষপানে মহিলার মৃত্যু  » «   ফেসবুকে ঈসলাম ও নবী মোহাম্মদ (সা.) সম্পর্কে আপত্তিকর মন্তব্য :দোয়ারাবাজারে হিন্দু যুবক আটক  » «   ঘোড়ায় চড়ে বর ও পালকিতে করে বউ ব্যতিক্রমী বিয়ের আয়োজন কুলাউড়ায়  » «   ভারতের কৈলাশহর কারাগারে মৌলভীবাজারের ২ সহোদর ফিরিয়ে আনতে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সহযোগিতা কামনা  » «  

বলতে পারেন, এই বস্তুটির নাম কেন ‘মাউস’ হলো?

1প্রযুক্তি ডেস্কঃকম্পিউটারে আমরা অনেকেই কাজ করি। সেখানে ‘কারসার’ নাড়াচাড়া করি যার ইশারা, সেই বস্তুটি আমরা ‘মাউস’ নামেই চিনি। কিন্তু কখনও কি ভেবে দেখেছেন, এই বস্তুতটির নাম ‘মাউস’ কেন হলো? কেন এমন অদ্ভুত নাম হলো?

না। এমন ভাবনা আমাদের অনেকের মাথাতেই আসে না। আর এসব কি ভাববার বিষয়? কাজ করা দরকার, কলছি। এর থেকে বেশি কিছুর কি আর দরকার আছে? তা ঠিক, দরকার নেই। তাই বলে কি জেনে রাখা দোষের?

মাউস নামকরণের ইতিহাস কিন্তু বলছে সরল কথা। ইতিহাস বলছে, ইঁদুরের সঙ্গে এর প্রত্যক্ষ যোগ রয়েছে। আর ইঁদুর থেকেই এর নামকরণ করা হয়েছে মাউস।

তবে আজকাল তারযুক্ত মাউজ ক্রমশ উধাও হয়ে যাচ্ছে। তবে একেবারে উধাও হয়নি। কম্পিউটারের সঙ্গে মাউসের যোগসূত্রস্থাপনকারী তারটি রয়ে গিয়েছে। প্রযুক্তি যে দিকে যাচ্ছে, তাতে খুব শিগগিরই তার উঠে যাবে, মাউস হয়ে যাবে ওয়্যারলেস।

কিন্তু তা-ই যদি হয় (এবং হবেই), তাহলে মাউস নামটিও যুক্তিযুক্তভাবে উঠে যাওয়া উচিত। কেননা, বস্তুটির এমন নামকরণের নেপথ্যে রয়েছে ইঁদুরের লেজ! যে তারটি কম্পিউটারের সঙ্গে মাউসের যোগ করেছে, তা অনেকটা ইঁদুরের লেজের মতো দেখতে।

প্রথম কম্পিউটার মাউস তৈরির সময়েই ইঞ্জিনিয়াররা এই বিষয়টি খেয়াল করেছিলেন। তাদের মনে হয়েছিল (তখনও নামকরণ হয়নি), এই তারটি অনেকটা ইঁদুরের লেজের মতো দেখতে। সেই থেকেই নাম হয়ে যায় মাউস।

তবে ওয়্যারলেস প্রযুক্তি আসার পরেও, নামটি কিন্তু অটুট থেকে গিয়েছে। ‘লেজ’ থাকুক বা ‘না-থাকুক’, এই বস্তুটি ইঁদুর হয়েই থেকে যায়।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.