সংবাদ শিরোনাম
হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে হামলা ও লুটপাঠের ঘটনায় দাঙ্গাবাজ কনর মিয়া ও কবির মিয়ার ২ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড  » «   ওসমানীনগরে হামলা চালিয়ে প্রবাসীর বসতঘর দখলের অভিযোগ  » «   দোয়ারাবাজারে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে সংঘর্ষ, আহত ৬  » «   সিলেটের ওসমানীনগরে চোরাই মোটরসাইকেল উদ্ধার, আটক ১  » «   দেশে আধুনিক ক্রীড়ার রূপকার ছিলেন শহীদ শেখ কামাল: প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী  » «   দক্ষিণ সুরমায় মেয়েকে ফিরে পেতে এক পিতার আকুতি  » «   বানারীপাড়ায় সাজাপ্রাপ্ত পলাতক দূর্দান্ত প্রতারক রঞ্জন গ্রেফতার  » «   দক্ষিন সুরমার সুলতানপুর-গহরপুর সড়কে দুর্ঘটনায় নিহত ৩  » «   সাংবাদিক অজয় পালের প্রতিকৃতিতে সিলেটের সর্বস্থরের নাগরিকদের শ্রদ্ধা নিবেদন  » «   ঐতিহ্যবাহী ‘মাছের মেলা’ শেরপুরে হাজারো মানুষের ঢল  » «   দক্ষিণ সুমরার বাইপাস এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় দুইজন নিহত  » «   আমাদের দেশের শিক্ষার্থীরা আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন হয়ে গড়ে উঠছে: মন্ত্রী ইমরান  » «   আওয়ামীলীগের বিদায় নিশ্চিত করে দেশে জনগণের সরকার প্রতিষ্টা করতে হবে :কাইয়ুম চৌধুরী  » «   অবকাঠামো উন্নয়ন এর মাধ্যমে দেশ গড়ার কাজ করতে হবে-প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী ইমরান আহমদ  » «   ছাতকে অধ্যক্ষ অপসারণের দাবীতে সড়ক অবরোধ করেছে ছাত্রলীগ  » «  

মাধবপুরে ট্রিপল মার্ডারের ঘটনায় আদালতে ১৩ জনের বিরুদ্ধে দরখাস্ত মামলা দায়ের

166সিলেটপোস্ট রিপোর্ট:মাধবপুরে আলোচিত তিন খুনের ঘটনায় নানা রহস্যের সৃষ্টি হচ্ছে। খুনের প্রকৃত কারণ, ঘটনায় কতজন খুনি অংশ গ্রহন করেছিল তা জানার জন্য উদগ্রীব হয়ে তাকিয়ে আছে জনগন। দিন যত অতিবাহিত হচ্ছে রহস্যের দানা তত প্রকট হচ্ছে। তিন খুনের ঘটনার থানায় দায়েরকৃত মামলার বাদী নিহত জাহানার ভগ্নিপতি হাজী মোঃ মোহন মিয়া ওরফে  কালন মিয়া নিজেকে মামলার বাদী নয় বলে দাবী  করেছেন। গতকাল মঙ্গলবার  আদালতে এফিডেভিট দিয়ে তিনি এ অস্বীকার করেন। কালন মিয়া তার এফিডেভিডে উল্লেখ করেন গত ২৩ আগস্ট রাতে  লোকমুখে  তাঁর  শালিকা  জাহানারা বেগম  জানু  স্বামী  পক্ষের  আত্মীয়স্বজন দ্বারা খুন হয়েছে বলে জানতে পেরে থানায় লাশ দেখতে আসেন। এ সময় পুলিশ সনাক্তকারী হিসেবে সাদা কাগজে তাঁর স্বাক্ষর নেয়। পরে এ স্বাক্ষরকৃত কাগজে মামলা লিখে এফআইআর করেন। এফিডেভিটে  তিনি আশংকা ব্যক্ত করেন অপরাপর আসামীদের  রক্ষা  করতে  পুলিশ  ইচ্ছাকৃত ভাবে  প্রতারনা করে  সাদা কাগজে তাঁর স্বাক্ষর নেয়।  যা  সে মামলা দায়েরের  উদ্দেশ্যে দেয়নি। অপর দিকে স্ত্রী কন্যাসহ ৩ জনকে হত্যা এবং শিশু জাহিদকে হত্যার উদ্যেশে আক্রমনের বিচার চেয়ে গিয়াস উদ্দিন বাদী হয়ে তারই  ভাই শাহ আলম ওরফে তাহের উদ্দিন (৩২), আলাউদ্দিন (৩৮), জুয়েল মিয়া(১৯), জহুরুল ইসলাম (২০)সহ  ১৩ জনের নাম  উলে¬খ করে ৩/৪ জনকে অজ্ঞাত দেখিয়ে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্র্রেট আদালতে গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে একটি দরখাস্ত মামলা দায়ের করেন।15

উলে¬খ্য যে, ২৩ আগস্ট  মঙ্গলবার  সন্ধ্যা ৮টার দিকে  উপজেলার বীরসিংহপাড়া গ্রামের গিয়াস উদ্দিনের স্ত্রী  জাহানারা বেগম, কন্যা  শারমীন আক্তার কে তাহের উদ্দিনসহ তাঁর লোকজন  তাঁদের বসত ঘরে  ধারালো অস্ত্র  দিয়ে  হত্যা করে। এর প্রায় ঘন্টাখানেক পরে পাশ্ববর্তী আব্দুল আলীমের ছেলে শিমুল মিয়াকেও তাঁর বাড়ির  পাশে রাস্তায়  ছুরিকাঘাত করে হত্যা করে। পরে ঘাতক তাহেরকে স্থানীয় জনতা আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। এ ব্যাপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা থানার ওসি(তদন্ত)  ১২ জনের নাম উল্লেখ করে বাদী পক্ষের দেওয়া একখানা দরখাস্ত আমরা জিডি মূলে আদালতে প্রেরন করেছি। আসামীদের বাড়ি ঘরে হামলা ভাংচুরের খবর পেয়ে তদন্ত করেছি, তাদের পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ পেলে আইনী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.