সংবাদ শিরোনাম
হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে হামলা ও লুটপাঠের ঘটনায় দাঙ্গাবাজ কনর মিয়া ও কবির মিয়ার ২ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড  » «   ওসমানীনগরে হামলা চালিয়ে প্রবাসীর বসতঘর দখলের অভিযোগ  » «   দোয়ারাবাজারে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে সংঘর্ষ, আহত ৬  » «   সিলেটের ওসমানীনগরে চোরাই মোটরসাইকেল উদ্ধার, আটক ১  » «   দেশে আধুনিক ক্রীড়ার রূপকার ছিলেন শহীদ শেখ কামাল: প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী  » «   দক্ষিণ সুরমায় মেয়েকে ফিরে পেতে এক পিতার আকুতি  » «   বানারীপাড়ায় সাজাপ্রাপ্ত পলাতক দূর্দান্ত প্রতারক রঞ্জন গ্রেফতার  » «   দক্ষিন সুরমার সুলতানপুর-গহরপুর সড়কে দুর্ঘটনায় নিহত ৩  » «   সাংবাদিক অজয় পালের প্রতিকৃতিতে সিলেটের সর্বস্থরের নাগরিকদের শ্রদ্ধা নিবেদন  » «   ঐতিহ্যবাহী ‘মাছের মেলা’ শেরপুরে হাজারো মানুষের ঢল  » «   দক্ষিণ সুমরার বাইপাস এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় দুইজন নিহত  » «   আমাদের দেশের শিক্ষার্থীরা আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন হয়ে গড়ে উঠছে: মন্ত্রী ইমরান  » «   আওয়ামীলীগের বিদায় নিশ্চিত করে দেশে জনগণের সরকার প্রতিষ্টা করতে হবে :কাইয়ুম চৌধুরী  » «   অবকাঠামো উন্নয়ন এর মাধ্যমে দেশ গড়ার কাজ করতে হবে-প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী ইমরান আহমদ  » «   ছাতকে অধ্যক্ষ অপসারণের দাবীতে সড়ক অবরোধ করেছে ছাত্রলীগ  » «  

ফিলিপিন্সে বোমা হামলায় নিহত ১৪ ॥ প্রেসিডেন্টের বিদেশ সফর বাতিল

55সিলেটপোস্ট রিপোর্ট:ফিলিপিন্সের প্রেসিডেন্ট রডরিগো দুতের্তের নিজ শহর দাভাওতে এক বোমা হামলায় ১৪ জন নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। শুক্রবার রাত ১০টা ৩০ মিনিটের দিকে শহরের মার্কো হোটেলের সামনে এ বোমা হামলা চালানো হয়। খবর বিবিসি ও এএফপির।

বোমা হামলার সময় প্রেসিডেন্ট দুতের্তে দাভাওতেই ছিলেন। তবে ঘটনাস্থলের কাছাকাছি ছিলেন না। সাপ্তাহিক ছুটিগুলোতে তিনি সাধারণত দাভাওতেই থাকেন। প্রায়ই মার্কো পোলো হোটেলে যান এবং বিভিন্ন বৈঠক ও লোকজনের সঙ্গে দেখা-সাক্ষাত করেন। প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের সময়ও এ হোটেলে অনেক গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক করেছেন তিনি।

বোমা হামলার জেরে শনিবার ফিলিপিন্সজুড়ে বিশেষ সতর্কতা জারি করেছেন তিনি, যাকে ফিলিপিন্সের আইনে বলা হয় ‘আইন শূন্য পরিস্থিতি’ (স্টেট অব ললেসনেস)। এ সতর্কতা জারি থাকার অর্থ হলো, বেআইনী সহিংসতা দমনে প্রেসিডেন্ট প্রয়োজন মনে করলে সেনাবাহিনী নামাতে পারবেন। এটি জরুরী অবস্থা বা সামরিক আইন নয় বলে ফিলিপিন্স সরকারের ভাষ্য।

দুই দশকেরও বেশি সময় ধরে এক সময়ের অপরাধপ্রবণ শহর দাভাওয়ের মেয়র ছিলেন দুতের্তে। এ শহরের অপরাধ দমনে পাওয়া সাফল্যের কারণেই প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়ী হন তিনি।

ফিলিপিন্সের ‘অসাধারণ সময়ে’ এ বোমা হামলা চালানো হয়েছে মন্তব্য করে প্রেসিডেন্ট জানান, অপরাধ, মাদক ও বিদ্রোহ দমনে পুলিশ ও সামরিক বাহিনী তাদের উদ্যোগ দ্বিগুণ করবে। ‘সহিংসতার কারণে দেশজুড়ে স্টেট অব ললেসনেস ঘোষণা করতে বাধ্য হচ্ছি আমি, তবে এটি সামরিক আইন নয়। জনগণ ও জাতির বিরুদ্ধে হুমকি হয়ে না ওঠা পর্যন্ত এটি সামরিক আইন নয়, এ দেশকে রক্ষা করা আমার দায়িত্ব।’

দুতের্তে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। তিনি তার মন্ত্রিসভার সদস্য ও শীর্ষ নিরাপত্তা কর্মকর্তাদের সঙ্গে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছেন।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত কোন গোষ্ঠী এ হামলার দায় স্বীকার করেনি। হামলায় আরও ৭০ জন আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। সম্প্রতি প্রেসিডেন্ট দুতের্তেকে হত্যার একটি ছক কষার গুজব ছড়িয়েছে। তবে এতে কান দেননি তিনি।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.