সংবাদ শিরোনাম
লিবিয়ার থেকে মাফিয়া দালারের খপ্পরে পড়ে লাশ হয়ে ফিরতে হলো জগন্নাথপুরের এখওয়ান  » «   দোয়ারাবাজারে অনলাইনে  কোটি টাকা প্রতারণা আটক স্কুল শিক্ষক  » «   সুনামগঞ্জ কোটি টাকা আত্মসাৎ চেয়ারম্যান শেরিনকে গ্রেফতার করেছে সিআইডি  » «   নবীগঞ্জে মসজিদের জুতার বক্সের ভিতরে থেকে ৩ মাসে একটি শিশু ছেলেকে পুলিশ উদ্ধার করেছে  » «   রেমিট্যান্স কেনার ডলার রেট কমল, কার্যকর ১ অক্টোবর  » «   দেয়ারাবাজারে রাতে ঘর থেকে মুখ চাপা দিয়ে এক সংখ্যালঘু স্কুল ছাত্রীকে অপরহণ   » «   শাওন হত্যার প্রতিবাদে সিলেটে যুবদলের বিক্ষোভ  » «   পার্কিং ট্রাকের পিছনে প্রাইভেট কারের ধাক্কা সুনামগঞ্জ -সিলেট মহাসড়কে নিহত ১ আহত ২  » «   জামালগঞ্জে নৌ দুর্ঘটনায় নিখোঁজের ২২ ঘন্টা পর ২ জনের মরদেহ উদ্বার  » «   জালিম সরকারের পতন না হওয়া পর্যন্ত ঘরে ফিরে যাব না : কাইয়ুম চৌধুরী  » «   মুন্সীগঞ্জে শান্তিপূর্ণ সমাবেশে হামলায় সিলেটে যুবদলের বিক্ষোভ মিছিল  » «   দোয়ারাবাজারে হাওর থেকে বৃদ্ধের মৃতদেহ উদ্ধার  » «   ৪ মেয়ে জন্ম দেওয়ায় স্বামীর নির্যাতনে গৃহবধূর আত্মহত্যার ঘটনায় স্বামী কারাগারে  » «   আওয়ামীলীগ সরকার গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে না : কাইয়ুম চৌধুরী  » «   নবীগঞ্জে নিখোঁজের ২দিন পর বিবিয়ানা নদী থেকে এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার  » «  

মুফতি হান্নানের লাশ দেখতে চায় না হিরণবাসী

12সিলেটপোস্ট রিপোর্ট :নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন হরকাতুল জিহাদের শীর্ষনেতা মুফতি আব্দুল হান্নান মুন্সীর ফাঁসির রায় কার্যকর শেষে তার লাশ কোটালীপাড়ায় দাফন করা নিয়ে এলাকায় মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। এলাকাবাসী ঘোষণা দিয়েছে যেকোনো মূল্যে তার লাশ গ্রামের বাড়ি হিরণে দাফন করতে দেওয়া হবে না।

মুফতি আব্দুল হান্নান মুন্সীর ফাঁসির রায় যেকোনো সময় কার্যকর হবে। রায় কার্যকর হওয়ার পর তার লাশ গ্রামের বাড়ি গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলার হিরণ গ্রামে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে বলে পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে। ইতোমধ্যে হিরণ গ্রামে পারিবারিক কবরস্থানে মুফতি হান্নানের লাশ দাফনের প্রস্তুতি শুরু হয়ে গেছে বলে বিশ্বস্ত একটি সূত্র জানিয়েছে।

মুক্তিযোদ্ধা, সাধারণ গ্রামবাসী ও আওয়ামী রাজনৈতিক নেতা-কর্মীরা তার লাশ কোটালীপাড়ায় দাফনের ঘোর আপত্তি জানিয়েছেন। এখানে যাতে এই শীর্ষ জঙ্গি নেতার লাশ দাফন না হয় তার জন্য ইতোপূর্বে কোটালীপাড়ায় বিক্ষোভ মিছিল, মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে তার নিজ গ্রামবাসী।

কোটালীপাড়ার হিরন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এবাদুল হক মুন্সী নিজেই ঘোষণা দিয়ে বলেছেন, যেকোনো মূল্যে হান্নান মুন্সীর লাশ এলাকায় ঢুকতে দেবেন না। জনগণকে সঙ্গে নিয়ে তিনি এই শীর্ষ সন্ত্রাসীর লাশ এখানে কবর দিতে দেবেন না। হিরণের মাটি মুফতি হান্নান কলঙ্কিত করেছে। তাই এই কলঙ্কিত লাশ তার গ্রামের বাড়িতে কবর দিতে দেবেন না বলে জানান ওই ইউপি চেয়ারম্যান।

এদিকে কারা কর্তৃপক্ষের চিঠি অনুযায়ী মুফতি হান্নানের পরিবারের চারজন কাশিমপুর কারাগারের যান। সেখানে তার বড়ভাই আলিউজ্জামান মুন্সী, স্ত্রী রুমা বেগম এবং বড় মেয়ে নিশি খানম তার সঙ্গে দেখা করেন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.