সংবাদ শিরোনাম
দিরাইয়ের উদির হাওর বিলে বাধঁ দেয়া নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষে একজন নিহত,৪০ জন আহত  » «   রাষ্ট্র ধর্ম নিয়ে তথ্য প্রতিমন্ত্রীর মন্তব্যের কড়া জবাব দিলেন সাঈদ খোকন  » «   শান্তিগঞ্জে জয়কলস গ্রামে প্রতিপক্ষের রামদার কোপে একজন নিহত,একজন আহত  » «   পঞ্চম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের এই বছরের প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা বাতিল  » «   সিলেটে দুই কেন্দ্রে গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ৮ হাজার শিক্ষার্থী  » «   সিলেটে আজ মনোনয়নপত্র দাখিল করছেন সম্ভাব্য প্রার্থীরা  » «   জননেত্রী শেখ হাসিনা একজন স্ট্রং ক্লাইমেট ফাইটার- পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান এমপি  » «   অনুসন্ধান কল্যান সোসাইটি সিলেট এর সভা অনুষ্টিত  » «   কুমিল্লার ঘটনায় জকিগঞ্জে পুলিশ ও বিক্ষুব্ধ জনতার সংঘর্ষ:পুলিশসহ অন্তত অর্ধশত আহত  » «   তৃতীয় ধাপে ইউপি ও পৌরসভা নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা  » «   সুনামগঞ্জের শান্তিগঞ্জে যাত্রীবাহি বাসের ধাক্কায় তিন মোটর সাইকেল আরোহী নিহত  » «   নগরীর বনকলাপাড়া এলাকায় ফ্যানের সঙ্গে গলায় ফাঁস লাগিয়ে এক তরুনের আত্মহত্যা  » «   শারদীয় দুর্গাপূজায় সিলেট বিভাগীয় অনলাইন প্রেসক্লাবের শুভেচ্ছা  » «   সিলেট নগরীতে ছাত্রলীগের কমিটি প্রত্যাখান করে বিক্ষোভ মিছিল  » «   দীর্ঘ অপেক্ষার পর কমিটি পেল সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রলীগ  » «  

গোলাপগঞ্জে জাল দলিল জালিয়াতির ঘটনায় আসামীদের বিরুদ্ধে সমন জারী

8সিলেটপোস্ট রিপোর্ট ::গোলাপগঞ্জে জাল দলিল তৈরী করে জালিয়াতির ঘটনায় আসামীদের বিরুদ্ধে সমন জারী করেছেন সিলেটের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট ১ম আদালত। গোলাপগঞ্জে জাল দলিল করে প্রবাসীর জমি আত্মসাতের চেষ্টার অভিযোগে দায়েরকৃত একটি মামলায় এই আদেশ দেন আদালত। গোলাপগঞ্জ থানার তদন্ত প্রতিবেদন আদালতে দাখিলের পর সিলেটের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট ১ম আদালত ৩ মে আসামীদের বিরুদ্ধে সমন জারী করেন। আদালতের আদেশে উল্লেখ করা হয়, থানা প্রদত্ত প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে আসামীদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পাওয়া যায়। উক্ত দলিল জালিয়াতির ঘটনায় সিলেটের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট ১ম আদালতে মামলা দায়ের করেন গোলাপগঞ্জ দত্তরাইল গ্রামের মৃত ছাবিল উদ্দিনের ছেলে প্রবাসী মোঃ জামাল উদ্দিনের আমোক্তার নগরীর খুলিয়াপাড়ার বাসিন্দা মৃত সুকুমার চক্রবর্তীর ছেলে সনৎ চক্রবর্তী (সি.আর. মামলা নং- ১৯/২০১৮ইং)। মামলার আসামীরা হলেন, দত্তরাইল গ্রামের আবদুল মুহিত (মুজিব), বশির মিয়া, নিজ ঢাকা দক্ষিণের মোঃ মুসলিম, কানিশাইলের মোঃ মোস্তাব উদ্দিন, মোঃ সফিক উদ্দিন, আমুড়া গ্রামের বাবুল মিয়ার ছেলে জাহান আহমদ, দক্ষিণ কানিশাইলের ছতিব ও রেহান আহমদ, ঢাকা দক্ষিণের সাব-রেজিষ্টার মোঃ রফিক উদ্দিন। বিভিন্ন মামলার অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, জাল দলিল সৃজন করে গোলাপগঞ্জের উক্ত প্রবাসীর মালিকানাধীন জমি আত্মসাত করতে মরিয়া হয়ে উঠে একটি জালিয়াতচক্র। তারা প্রবাসীর জমি রক্ষণাবেক্ষণকারী সংখ্যালঘু আমোক্তারকে শারীরিক নির্যাতন সহ প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে যাচ্ছে। তাছাড়া সন্ত্রাসী হামলা ও প্রাণনাশের অপচেষ্টার অভিযোগে গোলাপগঞ্জ থানায় অপর একটি মামলা দায়ের করেন সনৎ চক্রবর্তী (মামল নং-৯, তাং- ২৪/১২/২০১৭)। পরবর্তীতে দায়েরকৃত জি.আর. মামলা নং- ১৮৪/১৭। মামলা সূত্রে জানা যায়, আমমোক্তার দাতা জামাল উদ্দিন, গোলাপগঞ্জের কানিশাইল গ্রামের মৃত বশরাত আলীর ছেলে জবেদ আলীর কাছ থেকে ০.৫৬ একর জমি কয় করেন (মৌজা- দত্তরাইল, জে.এল. নং- ৬২, হাল জরিপী জে. এল. নং- ৬১, সাবেক খতিয়ান নং- ১০৩২, দাগ নং- ২৫৬৩, হাল জরিপী ২৭৪৫, খতিয়ান নং ঐ, দাগ নং ২৬৪৯, মোয়াজি- ০.১৮ মোট ৫৬ একর ভূমি এবং মৌজা দত্তরাইল জেল এল নং ৬২, হাল জরিপী জেল এল নং ৬১, সাবেক খতিয়ান নং- ১০৩২, এস এ দাগ নং ২৫৬৩, হাল জরিপের ২৭৪৫নং খতিয়ানের ২৬৫৬নং দাগের মোয়াজি ০.৩৮ একর ভূমি ও ২৬৪৯নং হাল দাগে মোয়াজি ০.১৮ একর ভূমি উভয় হাল দাগে ০.৫৬ একর ভূমি)। জমি ক্রয়ের যাবতীয় দলিলাদি সম্পাদন ও খাজনাদি পরিশোধ করে প্রবাসী মোঃ জামাল উদ্দিন উক্ত জমি ভোগ দখল করে দীর্ঘদিন যাবত আসছেন। পরবর্তীতে উক্ত জমি দেখাশোনা ও রক্ষণাবেক্ষণের জন্য প্রবাসী মোঃ জামাল উদ্দিনের আমোক্তার সনৎ চক্রবর্তীকে নিয়োগ করেন। জামাল উদ্দিন বিদেশে অবস্থান করায় সংখ্যালঘু সনৎ চক্রবর্তীর উপর নানা জুলুম অত্যাচার শুরু করে উপরোক্ত আসামীরা। তারা জমির প্রকৃত মালিকের অনুপস্থিতিতে ভূয়া দলিল সুজন করে এবং সংখ্যালঘু নিরীহ সনৎ চক্রবর্তী উপর হামলা করে উক্ত জমি জবর দখল করে নেওয়ার অপচেষ্টায় লিপ্ত আছে। এ অবস্থায় সনৎ চক্রবর্তী আদালতে মামলা দায়েরের প্রেক্ষিতে গোলাপগঞ্জ মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক অপারেশন মোঃ দেলওয়ার হোসেন সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট ১ম আদালতে একটি তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন। ২০১৮ সালের ১৮ই মার্চ প্রদত্ত এই প্রতিবেদনে তিনি উপরোক্ত জমিটির প্রকৃত মালিক প্রবাসী মোঃ জামাল উদ্দিন বলে প্রতিবেদন দাখিল করেন। তিনি আরও উল্লেখ করেন উপরোক্ত আসামীরা জাল জলিল সৃজন করে প্রবাসী মোঃ জামাল উদ্দিনের জমি দখল করে নেওয়ার চেষ্টা করছে। তাছাড়া প্রতিবেদনে তিনি উল্লেখ করে আসামীরা জামাল উদ্দিনের পূর্ববর্তী মালিক জবেদ আলী ভোগ দখলে থাকাবস্থায় ক্রেতা-বিক্রেতা সেজে উক্ত জমির মালিকানা দলিল তৈরী করে প্রতারণার চেষ্টা করে। যা সে সময়ে গোপন রাখা হয়। কিন্তু তদন্তকারী কর্মকর্তা আরো উল্লেখ করেন ২০০৩ সালে ৪৬৮৯/০৩ জাল দলিলের দাতা আব্দুর রব, গ্রহীতা আব্দুল মুহিত মুজিব। তিনি ২০১৬ সালে আবার আমোক্তার হিসেবে কানাশাইলের মোঃ মুস্তাব উদ্দিন ও শফিক উদ্দিন দলিলে প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে টিপ সই প্রদান করেন। অথচ তার অন্যান্য দলিলে তিনি যথারীতি টিপ সই ছাড়া স্বাক্ষর প্রদান করেছেন। ২০১৮ সালে জানার পর জামাল উদ্দিনের আমমোক্তার দলিল জালিয়াতচক্রগংদের বিরুদ্ধে একটি মামলা করেন। পক্ষান্তরে যখন জামাল উদ্দিন উপরোক্ত জমি ক্রয় করেন তখন তিনি কোনরূপ অজর আপত্তি করেননি। জামাল উদ্দিন বিদেশ চলে যাওয়ার পর তার আমোাক্তারের উপর নানা নির্যাতন ও জুলুম চালিয়ে উক্ত জমি দখল করে নিতে মরিয়া হয়ে উঠেছে। সংখ্যালঘু সনৎ চক্রবর্তী এ ব্যাপারে প্রশাসন সহ সকল মহলের সহযোগিতা কামনা করেছেন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন
  • 4
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.