সংবাদ শিরোনাম
ওসমানীনগর উপজেলা প্রশাসনের মসজিদ ঘিরে ধ্রুমজাল!  » «   ঢাকা- সিলেট মহা সড়কের দক্ষিণ কুর্শা এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১, পরিবারে চলছে শোকের মাতম  » «   জৈন্তাপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত এক, আহত ৫  » «   মদিনা মার্কেটস্থ কালিবাড়ি রোডে ট্রাকচাপায় ব্যবসায়ী ফয়জুর নিহত  » «   খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সরকার কাজ করছে-সিলেটে খাদ্যমন্ত্রী  » «   আশারকান্দি ইউপি চেয়ারম্যান আইয়ূব খান কর্তৃক উপকারভোগীদের ২শতাধিক ড্রামের টাকা আত্মসাত,বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দায়ের  » «   গোয়াইনঘাটে পাহাড়ী ঢল ও ভারী বর্ষণে নিম্মাঞ্চল প্লাবিত  » «   সুনামগঞ্জ সদর ও বিশ্বম্ভরপুর উপজেলায় পাহাড়ি ঢলের পানিতে ১৬ শত একর পাকা ধান ও বাড়ি-ঘর ভেসে গেছে  » «   সাংবা‌দিক বাবরের পিতার মৃত্যুতে অনুসন্ধান কল্যাণ সোসাইটি সিলেট এর শোক প্রকাশ  » «   জৈন্তাপুরে নৌকা ডুবিতে একি পরিবারের ৫ জন উদ্ধার ১ জন নিখোঁজ  » «   সুনামগঞ্জের মধ্যনগর উপজেলা সীমান্ত এখন গরু চোরাচালানের স্বর্গরাজ্য  » «   নবীগঞ্জে নিহত জাহান খুনের ৮ দিন অতিবাহিত হলেও এখন পর্যন্ত কাউকে ধরতে পড়েনি পুলিশ!  » «   পুলিশি নির্যাতনে নিহত রায়হান আহমদ হত্যা মামলার সাক্ষী দিলেন তার স্ত্রী তান্নী  » «   নবীগঞ্জে ধর্ষককারীকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ডের রায় দিয়েছেন হবিগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন আদালত  » «   জগন্নাথপুরে ধান সংগ্রহ শুরু  » «  

স্বামীকে হত্যার দায়ে স্ত্রী ও তার প্রেমিকের ফাঁসি

2সিলেটপোস্ট রিপোর্ট ::বাগেরহাটে স্বামী হত্যার দায়ে স্ত্রী ও তার প্রেমিককে ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত। সোমবার দুপুরে বাগেরহাটের অতিরিক্ত দায়রা জজ দ্বিতীয় আদালতের বিচারক মো. জাকারিয়া হোসেন এ দণ্ডাদেশ দেন। আদালত একই সঙ্গে দণ্ডপ্রাপ্তদের ২০ হাজার টাকা করে জরিমানার আদেশ দেন।

আসামিদের উপস্থিতিতে বিচারক ওই রায় ঘোষণা করেন। অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় সাইফুল শেখ নামে অপর একজনকে বেকসুর খালাস দিয়েছেন আদালত।

আদালত একই মামলার অপর একটি ধারায় আল আমিন শেখ ওরফে আলামের লাশ গুমের অপরাধে দণ্ডিত দুইজনকে আরও সাত বছর কারাদণ্ড এবং ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা বা অনাদায়ে আরও ছয় মাসের কারাদণ্ডাদেশ দেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- মোরেলগঞ্জ উপজেলার পঞ্চকরণ ইউনিয়নের দক্ষিণ কুমারিয়াজোলা গ্রামের ফাতেমা বেগম (৪৬) এবং একই গ্রামের মিরাজ উদ্দিন শেখের ছেলে শাহাজাহান শেখ (৬০)। ফাতেমা বেগম নিহত আল আমিন শেখের স্ত্রী। আর শাহজাহান শেখ ফাতেমার কথিত প্রেমিক।

মামলার নথির বরাত দিয়ে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী সীতা রাণী দেবনাথ বলেন, ২০১৫ সালের ১৬ মার্চ সকালে মোরেলগঞ্জ উপজেলার প্রয়াত আইয়ুব আলী শেখের ছেলে আল আমিন শেখ ওরফে আলাম ঢাকার কেরাণীগঞ্জ তার ছেলে শেখ মোহম্মদ আলীর বাসা থেকে বাড়ির উদ্দেশে রওনা দেন।

এরপর থেকে তিনি নিখোঁজ ছিলেন। ঢাকায় কর্মরত তার ছেলে শেখ মোহম্মদ আলী তার বাবার সন্ধান না পেয়ে কেরাণীগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। পুলিশ এই ঘটনায় নিখোঁজ আল আমিনের ব্যবহৃত মোবাইলফোন ট্রাকিং করে তার অবস্থান বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে পায়।

এরপর পুলিশ আল আমিনের স্ত্রী ফাতেমা বেগমকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তিনি তার স্বামীকে হত্যা করার কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দেন।

জবানবন্দিতে ফাতেমা বলেন, তার সাথে প্রতিবেশি শাহজাহানের প্রেমের সম্পর্ক চলছিল। ২০১৫ সালের ১৬ মার্চ তার স্বামী আল আমিন ঢাকা থেকে বাড়িতে আসেন। এসময় তিনি তার প্রেমিক শাহজাহান শেখকে সাথে নিয়ে ঘুমের মধ্যে বালিশ চাপা দিয়ে এবং ধারালো গুপ্তি দিয়ে স্বামীকে কুপিয়ে হত্যা করেন।

পরে তার দেয়া স্বীকারোক্তি অনুযায়ী নিখোঁজ আল আমিন শেখের বাড়ির রান্নাঘরের পেছনে মাটির নিচে পুঁতে রাখা অবস্থায় তার কঙ্কাল উদ্ধার করে।

ওইদিনই নিহতের ভগ্নিপতি মো. মোবারক আকন বাদী হয়ে মোরেলগঞ্জ থানায় তিনজনের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলাটি তদন্ত করতে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগকে দায়িত্ব দেয়া হয়।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা (সিআইডি) পুলিশ পরিদর্শক মো. সাইফুল ইসলাম তদন্ত শেষে ২০১৬ সালের ১০ জুন নিহতের স্ত্রী ফাতেমা বেগম ও তার কথিত প্রেমিক শাহাজাহান শেখ এবং স্থানীয় সাইফুল শেখের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

আদালতের বিচারক ১৭ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আজ রায় ঘোষনা করেন। আসামিপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন অ্যাডভোকেট বাহাদুর ইসলাম।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.