সংবাদ শিরোনাম
সিলেটে রাহাত খুনের ব্যবহৃত চাকুটি উদ্ধার করেছে সিআইডি  » «   চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ সুমন মিয়া’র মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত  » «   দক্ষিণ সুরমা কলেজছাত্র রাহাত হত্যা মামলার প্রধান আসামি সাদি কুষ্টিয়া থেকে গ্রেফতার  » «   হবিগঞ্জের মাধবপুরে দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে দুজন নিহত  » «   খালেদা জিয়া আইসিইউতে  » «   আজ খুলে দেওয়া হয়েছে সিলেটের “শাবিপ্রবির” সকল আবাসিক হল  » «   সিলেটে দুই ইউপি সদস্য প্রার্থীর লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষ:নিহত ১  » «   সিলেটে নির্মাণাধীন সেপটিক ট্যাংকে পরে নিহত ১ আহত আরেকজন  » «   সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট এবং দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতিতে আওয়ামীলীগ সরকারকে পদত্যাগ জরুরী-মির্জা ফখরুল  » «   আওয়ামী লীগ সরকারের অধীনে কোনো সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব নয়-সিলেটে ফখরুল  » «   সিলেট-ঢাকা মহাসড়কের ছয় লেন কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন প্রধানমন্ত্রী  » «   জগন্নাথপুরে বিষপানে মহিলার মৃত্যু  » «   ফেসবুকে ঈসলাম ও নবী মোহাম্মদ (সা.) সম্পর্কে আপত্তিকর মন্তব্য :দোয়ারাবাজারে হিন্দু যুবক আটক  » «   ঘোড়ায় চড়ে বর ও পালকিতে করে বউ ব্যতিক্রমী বিয়ের আয়োজন কুলাউড়ায়  » «   ভারতের কৈলাশহর কারাগারে মৌলভীবাজারের ২ সহোদর ফিরিয়ে আনতে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সহযোগিতা কামনা  » «  

১০ দিনেও সন্ধান মেলেনি মামা-ভাগ্নের

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::ফেনীর দাগনভূঁঞা উপজেলার দেবরামপুর গ্রামের বাসিন্দা ও আবুধাবি প্রবাসী মোহাম্মদ আতিক উল্যাহ (৫০) ও  তার ভাগ্নে মোহাম্মদ হুজাইফা তাহমিদ (১৬) নিখোঁজ হওয়ার ১০ দিনেও সন্ধান মেলেনি। তাদের নিখোঁজের ঘটনায় ফেনীর দাগনভূঁঞা থানা ও ঢাকার খিলগাঁও থানায় পৃথক সাধারণ ডায়েরী (জিডি) করা হয়েছে।

প্রবাসীর ভগ্নিপতি ও ভাগ্নে মোহাম্মদ হুজাইফা তাহমিদের বাবা মোহাম্মদ হাফেজ আবুল বাশার জানান, নিখোঁজ মোহাম্মদ আতিক উল্যাহ (৫০) গত প্রায় ১৫ বছর থেকে আবুধাবিতে ব্যবসা করেন এবং স্বপরিবারে সেখানে বসবাস করেন। গত রমজানের কয়েকদিন আগে একাই গ্রামের বাড়িতে আসেন এবং বোনের পরিবারের সঙ্গে উপজেলার উত্তর চন্ডিপুর ছিলেন। তার ভাগ্নে মোহাম্মদ হুজাইফা তাহমিদ স্থানীয় একটি মাদ্রাসার দশম শ্রেণিতে লেখাপড়া করে।

গত ১৩ই জুন দুপুরে মোহাম্মদ আতিক উল্যাহ আবুধাবি যাওয়ার উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হন। সঙ্গে ভাগ্নে মোহাম্মদ হুজাইফা তাহমিদকে নেন। বাড়ি থেকে বের হয়ে তারা ফেনীতে স্টার লাইন পরিবহনের বাসে উঠেন। এরপর থেকে তারা নিখোঁজ রয়েছেন।

তাদের দু’জনের হাতে থাকা দুটি মুঠোফোনও (০১৮৭৭-৮২৯০২৫ ও ০১৮৮২-৪৬২৮৫০) বন্ধ পাওয়া যায়।

পারিবারিক সুত্র জানায়, তাদের ঢাকা ও এলাকায় সম্ভাব্য সব আত্মীয়-স্বজনের নিকট খোঁজ করে কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি। মোহাম্মদ আতিক উল্যাহ আবুধাবিও যাননি।

খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে প্রবাসীর ভগ্নিপতি ও ভাগ্নে মোহাম্মদ হুজাইফা তাহমিদের বাবা মোহাম্মদ হাফেজ আবুল বাশার ১৫ই জুন দাগনভূঁঞা থানায় (জিডি নং ৫২৫) এবং অপর এক আত্মীয় হাফেজ মো. মুনছুর আলম ১৭ই জুন ঢাকার খিলগাঁও থানায় (জিডি নং ৯১৩) পৃথক জিডি করেন।

দাগনভূঁঞা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ছালেহ আহম্মদ পাঠান জানান, দানভূঁঞার প্রবাসী মোহাম্মদ আতিক উল্যাহ ও তার ভাগ্নে মোহাম্মদ হুজাইফা তাহমিদের নিখোঁজের বিষয়ে পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় জিডি করা হলে পুলিশের বেতারের মাধ্যমে দেশের সব থানায় খবর পাঠানো হয়েছে। শনিবার বিকাল পর্যন্ত কোন খোঁজ পাওয়া যায়নি।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন
  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.