সংবাদ শিরোনাম
সিলেটে রাহাত খুনের ব্যবহৃত চাকুটি উদ্ধার করেছে সিআইডি  » «   চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ সুমন মিয়া’র মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত  » «   দক্ষিণ সুরমা কলেজছাত্র রাহাত হত্যা মামলার প্রধান আসামি সাদি কুষ্টিয়া থেকে গ্রেফতার  » «   হবিগঞ্জের মাধবপুরে দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে দুজন নিহত  » «   খালেদা জিয়া আইসিইউতে  » «   আজ খুলে দেওয়া হয়েছে সিলেটের “শাবিপ্রবির” সকল আবাসিক হল  » «   সিলেটে দুই ইউপি সদস্য প্রার্থীর লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষ:নিহত ১  » «   সিলেটে নির্মাণাধীন সেপটিক ট্যাংকে পরে নিহত ১ আহত আরেকজন  » «   সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট এবং দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতিতে আওয়ামীলীগ সরকারকে পদত্যাগ জরুরী-মির্জা ফখরুল  » «   আওয়ামী লীগ সরকারের অধীনে কোনো সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব নয়-সিলেটে ফখরুল  » «   সিলেট-ঢাকা মহাসড়কের ছয় লেন কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন প্রধানমন্ত্রী  » «   জগন্নাথপুরে বিষপানে মহিলার মৃত্যু  » «   ফেসবুকে ঈসলাম ও নবী মোহাম্মদ (সা.) সম্পর্কে আপত্তিকর মন্তব্য :দোয়ারাবাজারে হিন্দু যুবক আটক  » «   ঘোড়ায় চড়ে বর ও পালকিতে করে বউ ব্যতিক্রমী বিয়ের আয়োজন কুলাউড়ায়  » «   ভারতের কৈলাশহর কারাগারে মৌলভীবাজারের ২ সহোদর ফিরিয়ে আনতে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সহযোগিতা কামনা  » «  

আবারও কুলাউড়া বরমচাল স্টেশনে আটকা পড়লো ট্রেন

সিলেটপোস্ট ডেস্ক ::সেই সেতুর কারণে আবার মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার বরমচাল স্টেশনে আটকা পড়লো ট্রেন। শুকবার দুপুরে বরমচালে প্রায় দেড় ঘন্টা পাহাড়িকা এক্সপ্রেস আটকা পড়ে।

শুক্রবার সিলেট থেকে ছেড়ে আসা ট্রেনটি দুপুর ২টা ৫০মিনিট থেকে বরমচাল স্টেশনে আটকা পড়ে। পরে বিকেল সোয়া চারটার পর  চট্টগ্রামগামী আন্তঃনগর পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেনটি গন্তব্যের উদ্দেশ্যে ছেড়ে গেছে।

টানা বৃষ্টিতে কুলাউড়ার বরমচাল এলাকায় সদ্য ঘটে যাওয়া দুর্ঘটনা কবলিত স্থানের সেই বড়ছড়া ব্রিজে নিচে পাহাড়ি ঢলে ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থা সৃষ্টি হয়ায় এবং শ্রীমঙ্গল, শমশেরনগর এলাকায় রেললাইনে পানি উঠায় দুর্ঘটনা এড়াতে ট্রেন চলাচল বন্ধ করে দেন স্টেশন মাস্টার। এতে মাঝপথেই আটকা পড়ে ট্রেনের কয়েকশ যাত্রী।

টানা বৃষ্টিতে প্রবল স্রোতে বড়ছড়া ব্রিজের নিচ থেকে মাটি সরে যাতে পারে এমন আশঙ্কা বরমচাল স্টেশন মাস্টার শফিকুল ইসলামের। এছাড়াও শ্রীমঙ্গল, শমশেরনগর এলাকায় রেললাইনে পানি উঠেছে বলেও খবর পাওয়া গেছে। এ অবস্থায় বড়ছড়া ব্রিজ ও রেলপথ দিয়ে ট্রেন চলতে গেলে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। এজন্য কোনো ঝুঁকি নিতে চাননি তারা।

শফিকুল ইসলাম বলেন, ছড়ার পানি বাড়ার কারণে এলাকাবাসী স্টেশন মাস্টারকে এ মুহূর্তে ট্রেন না ছাড়তে অনুরোধ করলে ট্রেনটি ২টা ৫০ মিনিট থেকে সোয়া ৪টা পর্যন্ত স্টেশনে আটকে রাখা হয়। পরে রেলের প্রকৌশলীরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ঝুঁকিমুক্ত বলার পর ট্রেনটি ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

বিষয়টি স্টেশন মাস্টার শফিকুল ইসলাম ঢাকা কন্ট্রোল রুমকে জানিয়েছেন বলে জানান। তিনি বলেন, কন্ট্রোল রুম জানিয়েছে পিআইডব্লিউ না বলা অবধি ট্রেন ছাড়া যাবে না।

কুলাউড়ার স্টেশন মাস্টার মাজহারুল ইসলাম বলেন, বেশ কিছু স্থানে রেল লাইনের উপর পানি উঠে গেছে। তাছাড়া বড়ছড়া ব্রিজের টেকসইয়ে সন্দেহ হচ্ছে। তাই ট্রেন চলাচল বন্ধ ছিল। পরে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ায় ট্রেনটি যাওয়ার অনুমতি দেয়া হয়েছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন
  • 27
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.