সংবাদ শিরোনাম
শাল্লার বাহারা ইউপি চেয়ারম্যান বিশ্বজিৎ কর্তৃক এক মহিলা দর্জিকে শ্লীলতাহানির চেষ্টা, অভিযোগ দায়ের  » «   ঢাকা-সিলেট মিতালি পরিবহনের বাসের ধাক্কায় অটোরিকশার চালক সহ দুইজন নিহত  » «   বিশ্বম্ভরপুরে কালভার্ট ভেঙে সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন  » «   ওসমানীনগর উপজেলা প্রশাসনের মসজিদ ঘিরে ধ্রুমজাল!  » «   ঢাকা- সিলেট মহা সড়কের দক্ষিণ কুর্শা এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১, পরিবারে চলছে শোকের মাতম  » «   জৈন্তাপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত এক, আহত ৫  » «   মদিনা মার্কেটস্থ কালিবাড়ি রোডে ট্রাকচাপায় ব্যবসায়ী ফয়জুর নিহত  » «   খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সরকার কাজ করছে-সিলেটে খাদ্যমন্ত্রী  » «   আশারকান্দি ইউপি চেয়ারম্যান আইয়ূব খান কর্তৃক উপকারভোগীদের ২শতাধিক ড্রামের টাকা আত্মসাত,বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দায়ের  » «   গোয়াইনঘাটে পাহাড়ী ঢল ও ভারী বর্ষণে নিম্মাঞ্চল প্লাবিত  » «   সুনামগঞ্জ সদর ও বিশ্বম্ভরপুর উপজেলায় পাহাড়ি ঢলের পানিতে ১৬ শত একর পাকা ধান ও বাড়ি-ঘর ভেসে গেছে  » «   সাংবা‌দিক বাবরের পিতার মৃত্যুতে অনুসন্ধান কল্যাণ সোসাইটি সিলেট এর শোক প্রকাশ  » «   জৈন্তাপুরে নৌকা ডুবিতে একি পরিবারের ৫ জন উদ্ধার ১ জন নিখোঁজ  » «   সুনামগঞ্জের মধ্যনগর উপজেলা সীমান্ত এখন গরু চোরাচালানের স্বর্গরাজ্য  » «   নবীগঞ্জে নিহত জাহান খুনের ৮ দিন অতিবাহিত হলেও এখন পর্যন্ত কাউকে ধরতে পড়েনি পুলিশ!  » «  

সৎবাবার ধর্ষণ, জোর করে বিয়ে; ২০ বছর পর প্রতিশোধ

ভালারি বাকট (মাঝে)। ছবি: গার্ডিয়ান

সিলেটপোস্ট ডেস্ক::শৈশবে বার বার নির্যাতনের শিকার হয়েছেন। পরে নিপীড়ক সৎবাবাকে তিনি বিয়েও করেন। ২০ বছর সংসার করার সময়ও থামেনি নির্যাতন। এমনকি তাকে দিয়ে পতিতাবৃত্তিও করাতে চায় স্বামী। একপর্যায়ে ওই নারী স্বামীকে গুলি করে হত্যা করেন। এই ঘটনায় ওই নারীকে দোষী সাব্যস্ত করেছেন ফ্রান্সের একটি আদালাত। তাকে চার বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয় শুক্রবার।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম বলছে, ভালারি বাকটের বয়স যখন ১২ বছর, ড্যানিয়েল পোলেট তাকে ধর্ষণ করে। এরপর একসময় তাকে বিয়ে করে। বিয়ের পর অত্যাচার মাত্রা আরো বেড়ে যায়। এভাবে চলতে থাকে দীর্ঘ ২০ বছর। তাদের সংসারে চার সন্তানের মা হন বাকট। একপর্যায়ে ড্যানিয়েল পোলেট চায় তাকে দিয়ে পতিতাবৃত্তি করাতে। এনিয়ে শঙ্কিত হয়ে পড়েন বাকট। তার মনে হয়, তাদের কন্যা সন্তানদের দিয়েও পোলেট পতিতাবৃত্তি করাতে পারে। আদালতের শুনানিতে বলা হয়, এমন শঙ্কা থেকে তিনি তার স্বামীকে (সৎবাবা) গুলি করে হত্যা করেন।

ফ্রান্সের সাওন-এট লরের আদালতে চলে তার শুনানি। শক্রবার পাঁচ ঘণ্টা ধরে চলে তার বিচার। শুনানি শেষে তাকে চার বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়। এর মধ্যে আবার স্থগিত করা হয় তিন বছরের কারাদণ্ড। এই কারণে তার কারাদণ্ড হয় এক বছরের। কিন্তু বিচারের আগে তিনি একবছর আটক ছিলেন। তাই তাকে আর জেলে ফিরতে হচ্ছে না।

এমনই বলা হয় আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের খবরে।

সূত্র: গার্ডিয়ান।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.