সংবাদ শিরোনাম
ওসমানীনগর উপজেলা প্রশাসনের মসজিদ ঘিরে ধ্রুমজাল!  » «   ঢাকা- সিলেট মহা সড়কের দক্ষিণ কুর্শা এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১, পরিবারে চলছে শোকের মাতম  » «   জৈন্তাপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত এক, আহত ৫  » «   মদিনা মার্কেটস্থ কালিবাড়ি রোডে ট্রাকচাপায় ব্যবসায়ী ফয়জুর নিহত  » «   খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সরকার কাজ করছে-সিলেটে খাদ্যমন্ত্রী  » «   আশারকান্দি ইউপি চেয়ারম্যান আইয়ূব খান কর্তৃক উপকারভোগীদের ২শতাধিক ড্রামের টাকা আত্মসাত,বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দায়ের  » «   গোয়াইনঘাটে পাহাড়ী ঢল ও ভারী বর্ষণে নিম্মাঞ্চল প্লাবিত  » «   সুনামগঞ্জ সদর ও বিশ্বম্ভরপুর উপজেলায় পাহাড়ি ঢলের পানিতে ১৬ শত একর পাকা ধান ও বাড়ি-ঘর ভেসে গেছে  » «   সাংবা‌দিক বাবরের পিতার মৃত্যুতে অনুসন্ধান কল্যাণ সোসাইটি সিলেট এর শোক প্রকাশ  » «   জৈন্তাপুরে নৌকা ডুবিতে একি পরিবারের ৫ জন উদ্ধার ১ জন নিখোঁজ  » «   সুনামগঞ্জের মধ্যনগর উপজেলা সীমান্ত এখন গরু চোরাচালানের স্বর্গরাজ্য  » «   নবীগঞ্জে নিহত জাহান খুনের ৮ দিন অতিবাহিত হলেও এখন পর্যন্ত কাউকে ধরতে পড়েনি পুলিশ!  » «   পুলিশি নির্যাতনে নিহত রায়হান আহমদ হত্যা মামলার সাক্ষী দিলেন তার স্ত্রী তান্নী  » «   নবীগঞ্জে ধর্ষককারীকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ডের রায় দিয়েছেন হবিগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন আদালত  » «   জগন্নাথপুরে ধান সংগ্রহ শুরু  » «  

সরকারী জায়গা জবরদখল অনুমোদন ছাড়াই দড়ারপাড় গাংপাড়েরবাজার

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি::সুনামগঞ্জের ছাতকের দক্ষিন খুরমা ইউনিয়নের দড়ারপাড় গ্রামের গোপাট ও পানিররাস্তার উপর এবং নোয়ানদীর পাড়ে বিভিন্ন দোকানকোঠা নিমার্নসহ সরকারী জায়গা অবৈধ ভাবে জবরদখলসহ বিক্রি করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় গত ২৯ আগস্ট সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক বরাবর ছেড়াপাড়া গ্রামবাসীর পক্ষে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন মৃত জমসি আলির ছেলে আব্দুল কিয়াস।

এতে দড়ারপাড় গ্রামের মৃত মফিজ আলির ছেলে আব্দুল আলি (মাস্টার), একই গ্রামের মৃত. জুনাব আলির ছেলে আব্দুল মছব্বির, মৃত. হারুন রশীদের ছেলে ইসবর আলি,মৃত আব্দুর রজাকের ছেলে জহির আহমদ,মৃত. তৈয়ব আলির ছেলে আশিদ
আহমদকে অভিযুক্ত করা হয়।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, আব্দুল আলি (মাস্টার) দড়ারপাড় গ্রামের গোপাট ওলপানির রাস্তার উপর এবং নোয়ানদীর পাড়ে বিভিন্ন দোকানকোঠা নিমার্নসহ সরকারী জায়গা অবৈধ ভাবে জবরদখল ও বিক্রি করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন।
গোপাটের উপর অবৈধভাবে দোকা কোটা নিমার্ন করে পানি নিস্কাসন ও স্থানীয় কৃষকদের যাতায়াতে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে আসছেন।

আব্দুল মছব্বির এবং ইসবর আলীর যোগসাজেসে দড়ারপাড় গাংপাড়েরবাজার নাম দিয়ে কোন প্রকার সরকারী অনুমোদন ছাড়াই ৩০টি থেকে ৩৫টি দোকান কোঠা নিমার্ন করে সরকারের রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে অবৈধ ভাবে ভোগদখল করে আসছেন। জহির আহমদ জল্লার খাড়া ও গোপাটের উপর বসতবাড়ি নিমার্ন করে কৃষকদের পানি চলাচল ও যাতায়াতে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে আসছেন।

অভিযোগে আরো উল্লেখ করা হয়, গোপাট ও নদীর তীরে অবৈধভাবে স্থাপনা নিমার্নের ফলে স্থানীয় কৃষকরা কৃষি সরঞ্জাম নিয়ে যাতায়াতে মারাত্বক
সমস্যায় পড়েছেন। এতে হতদরিদ্র কৃষকরা নিরুপায় হয়ে পড়েছেন। কৃষিনির্ভর মানুষজন ক্ষতিগ্রস্থ হয়ে চরম হতাশায় ভোগছেন বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়।

এ বিষয়ে সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন অভিযোগ প্রাপ্তির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, যাচাই বাচাই ক্রমে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.