সংবাদ শিরোনাম
নগরীর ঘাষিটুলা কলাপাড়া এলাকায় মা-ছেলের মৃত্যু  » «   দিরাইয়ের উদির হাওর বিলে বাধঁ দেয়া নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষে একজন নিহত,৪০ জন আহত  » «   রাষ্ট্র ধর্ম নিয়ে তথ্য প্রতিমন্ত্রীর মন্তব্যের কড়া জবাব দিলেন সাঈদ খোকন  » «   শান্তিগঞ্জে জয়কলস গ্রামে প্রতিপক্ষের রামদার কোপে একজন নিহত,একজন আহত  » «   পঞ্চম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের এই বছরের প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা বাতিল  » «   সিলেটে দুই কেন্দ্রে গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ৮ হাজার শিক্ষার্থী  » «   সিলেটে আজ মনোনয়নপত্র দাখিল করছেন সম্ভাব্য প্রার্থীরা  » «   জননেত্রী শেখ হাসিনা একজন স্ট্রং ক্লাইমেট ফাইটার- পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান এমপি  » «   অনুসন্ধান কল্যান সোসাইটি সিলেট এর সভা অনুষ্টিত  » «   কুমিল্লার ঘটনায় জকিগঞ্জে পুলিশ ও বিক্ষুব্ধ জনতার সংঘর্ষ:পুলিশসহ অন্তত অর্ধশত আহত  » «   তৃতীয় ধাপে ইউপি ও পৌরসভা নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা  » «   সুনামগঞ্জের শান্তিগঞ্জে যাত্রীবাহি বাসের ধাক্কায় তিন মোটর সাইকেল আরোহী নিহত  » «   নগরীর বনকলাপাড়া এলাকায় ফ্যানের সঙ্গে গলায় ফাঁস লাগিয়ে এক তরুনের আত্মহত্যা  » «   শারদীয় দুর্গাপূজায় সিলেট বিভাগীয় অনলাইন প্রেসক্লাবের শুভেচ্ছা  » «   সিলেট নগরীতে ছাত্রলীগের কমিটি প্রত্যাখান করে বিক্ষোভ মিছিল  » «  

জগন্নাথপুরে হারানো মোবাইল উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ: জনমনে স্বস্তি

জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি::যেন মরুভূমিতে সুই খোঁজার চ্যালেঞ্জ নিয়ে মাঠে নেমেছেন সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর থানা পুলিশ। শেষমেশ সফল হয়ে ৭ টি হারানো মোবাইল উদ্ধার করেছেন। কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ জনসাধারনের প্রসংসা পেয়েছেন।

থানার সূত্রে জানা গেছে, গত বছরের থেকে চলতি সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত বিভিন্ন ব্র্যান্ডের প্রায় ৭ টি
মোবাইল উদ্ধার করে প্রকৃত মালিককে ফিরিয়ে দিয়েছেন থানা পুলিশ। রানীগঞ্জ বাজারের ব্যবসায়ী সুহেল মিয়া বলেন, ‘এএসআই সোহেল প্রযুক্তিতে অনেক দক্ষ। এ জন্য থানায় মোবাইল হারানো সংক্রান্ত জিডি হলে ডাক পড়ে স্যারের। অত্যন্ত সুকৌশলে দক্ষতা ও বুদ্ধিমত্তার সঙ্গে পরিশ্রম করে আমার মোবাইল উদ্ধার করেন।

আমার অভিযোগ নিয়ে মোবাইল উদ্ধারের কাজ করা আর মরুভূমিতে সুই খুঁজে বের করা প্রায় একই কথা। ধন্যবাদ জানাই এএসআই সোহেল স্যারকে।
জানতে চাইলে এএসআই সোহেল বলেন, ‘আমার কর্মরত থানাটি প্রবাসী অধ্যুষিত এলাকায় হওয়ায় বেশি মোবাইল আসে এ থানা এলাকায়। প্রত্যেকের ঘরে ৩ থেকে ৫টি মোবাইল থাকে। চোরেরা বেশি টার্গেট থাকে এ মোবাইল চুরির। এখন পর্যন্ত ৪টি মোবাইল উদ্ধার করেছি। আমার থানার বেশিরভাগ মোবাইল হারানোর জিডি বিভিন্ন পেশাজীবী মানুষের। আমি সবগুলোই সমান গুরুত্বের সঙ্গেই তাদের হারানো মোবাইল উদ্ধারের চেষ্টা করি।
তিনি বলেন, ‘অনেক দামি জিনিস হারানোর চেয়ে মোবাইল হারানোর কষ্ট অনেক বেশি। কেননা মোবাইলে প্রয়োজনীয় নম্বর থেকে শুরু করে অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য থাকে। জিডি করার পর ফোন উদ্ধার করে ভুক্তভোগীকে ফিরিয়ে দিলে তারা অনেকে বিশ্বাসই করতে চান না। মোবাইল নেওয়ার সময় অনেকে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.