সংবাদ শিরোনাম
শাবিপ্রবি-তে গভীর রাতে ড.জাফর ইকবাল :অনশন ভাঙলেও আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা  » «   আমরণ অনশন ভাঙতে রাজী হন নি শাবিপ্রবির শিক্ষার্থী-আন্দোলন অব্যাহত  » «   বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্নের পর এবার শাবিপ্রবির ভিসির বাসভবনে খাবার ও ঔষধ পাঠাতে দিচ্ছে না আন্দোলনকারীরা  » «   হবিগঞ্জ আদালতের ২৮ জন বিচারকের মধ্যে ১০জনই করোনা আক্রান্ত!  » «   একদফা দাবিতে অনড় শাবিপ্রবির শিক্ষার্থীরা-ভিসি’র বাসভবনের বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ  » «   শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে মৃত্যুর পথে আন্দোলনরত শিক্ষার্থী”রা  » «   ছাতকে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত-২, গ্রেফতার-১  » «    যারা সন্ত্রাসকে পছন্দ করে তারাই র‌্যাবের বিরুদ্ধে অপপ্রচার করে.সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী  » «   ১৫০ পরিবারের মধ্যে চাউল বিতরণ করল অনুসন্ধান কল্যাণ সোসাইটি  » «   অবৈধ বালু উত্তোলনের দায়ে দোয়ারাবাজারে,৭ শ্রমিককে কারাদণ্ড  » «   সিলেটের পথ শিশুরা ড্যান্ডিতে আশক্ত  » «   আমরণ অনশনে শাবি শিক্ষার্থীরা:সরকারি সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় ভিসি  » «   ভিসি’র পদত্যাগ না হলে আন্দোলন চলবে:শাবিপ্রবির আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা  » «   ওসমানীনগরে সংঘর্ষে আহত ১২,পাল্টাপাল্টি মামলা  » «   আখালিয়ায় ফার্মেসীতে সন্ত্রাসী হামলায় আহত ১, লুট  » «  

জাফলংয়ে ফয়জুলের নেতৃত্বে বালু লুটপাটের অভিযোগ, স্মারকলিপি

সিলেটপোস্ট ডেস্ক::জাফলংয়ের পাথর ও বালুখেকো ফয়জুলের নেতৃত্বে নির্বিচারে বালু ও পাথর লুটপাট বন্ধে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের কাছে স্মারকলিপি দিয়েছেন নয়াবস্তি গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল মুতলিব। স্মারকলিপিতে তিনি উল্লেখ করেন-পাথরখেকো চক্রের মুল হোতা ফয়জুল ইসলাম ওরপে বিশ্বনাথী ফয়জুল, সুভাস দাস, স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা মুজিবুর রহমান ও স্থানীয় চেয়ারম্যান পরিবারের জামাই ইমরান হোসেন সুমন ওরপে জামাই সুমন মিলে এবার জাফলংকে ধ্বংসের প্রক্রিয়ায় মেতে উঠেছে। তারা গত চার মাসে অন্তত ২০ কোটি টাকার বালু লুট করেছে বলে দাবি করেন আব্দুল মতলিব।
গতকাল মঙ্গলবার সিলেটের জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের কাছে দেওয়া স্মারকলিপিতে তিনি এ দাবি করেন। স্মারকলিপিতে তিনি জানান- জাফলংয়ের নয়াবস্তি গ্রামের আলিম উদ্দিন স্মারকলিপি দিয়ে বিষয়টি অবগত করেছিলেন। এছাড়া সিলেটের দুটি প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে পাথর ও বালু লুটপাট বন্ধের দাবি জানানো হয়েছিলো। এরপরও ওই বালুখেকো চক্র বাংলাবাজার থেকে পাচঁসেওতি এলাকা পর্যন্ত প্রায় ২০ কিলোমিটার এলাকায় নির্বিচারে বালু উত্তোলন অব্যাহত রেখেছে। এছাড়া- স্থানীয় বিট পুলিশের সহযোগিতায় রাতের আধারে জাফলং ইসিএ জোন এলাকা থেকে কুখ্যাত পাথরখেকো সিন্ডিকেটের মুল হোতা ফয়জুল ইসলাম ওরপে বিশ্বনাথী ফয়জুলের নেতৃত্বে সুভাস, মুজিব ও সুমন বালু উত্তোলন অব্যাহত রেখেছে।
স্মারকলিপিতে তিনি জানান- ছাতকের আলাউদ্দিন ও বিশ্বনাথের ফয়জুল সিলেট জেলার কুখ্যাত ও বালু পাথরখেকো চক্র। ওরা পরিবেশ বিনষ্টকারী। প্রায় ১০ বছর আগে তারা কোম্পানীগঞ্জের ভোলাগঞ্জে যন্ত্রদানব বোমা মেশিন দিয়ে পাথর লুটপাট করতে চাইছিলো। ওই সময় ভোলাগঞ্জের সচেতন মানুষ তাদের কর্মকান্ডে ক্ষুব্ধ হয়ে তাড়িয়ে দিলে বোমা মেশিন নিয়ে তারা জাফলংয়ে এসে আশ্রয় নেয়। এরপর থেকে জাফলংয়ের ‘অঘোষিত শাসক’ হয়ে গেছে ফয়জুল ইসলাম ওরপে বিশ্বনাথী ফয়জুল। তার বিতর্কিত কর্মকাÐের কারনেই এখন জাফলংয়ে অশান্তি বিরাজ করছে। জাফলং-বাংলাবাজার হয়ে পাচঁসেওতী বাজার পর্যন্ত এবার যে বালু লুটপাট করা হয়েছে তার নেপথ্যে নায়ক বিশ্বনাথী ফয়জুল।
তিনি জানান- এলাকার এমপি, প্রবাসী কল্যান ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রনালয়ের মাননীয় মন্ত্রীর দ্বারস্থ হয়েছিলেন নয়াবস্তি গ্রামের আলীম উদ্দিন ও তার পিতা বীর মুক্তিযোদ্ধা ইনসান আলী। মন্ত্রী নিজেও জাফলংয়ের অবৈধ বালু ও পাথর লুটপাট বন্ধের নির্দেশনা দিয়েছিলেন। কিন্তু গোয়াইনঘাটের প্রশাসনের তরফ থেকে এ ব্যাপারে কোনো কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়নি- যা অত্যন্ত দু:খজনক। বরং স্থানীয় প্রশাসনের সহযোগিতা পাথর ও বালু খেকো আরো বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। এদিকে- গত সোমবার রাত থেকে জাফলংয়ের ইসিএ জোন এলাকায় ফের বালু লুটপাট চালাচ্ছে বলে স্মারকলিপিতে অভিযোগ করেন আব্দুল মতলিব।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.