সংবাদ শিরোনাম
দেশে আধুনিক ক্রীড়ার রূপকার ছিলেন শহীদ শেখ কামাল: প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী  » «   দক্ষিণ সুরমায় মেয়েকে ফিরে পেতে এক পিতার আকুতি  » «   বানারীপাড়ায় সাজাপ্রাপ্ত পলাতক দূর্দান্ত প্রতারক রঞ্জন গ্রেফতার  » «   দক্ষিন সুরমার সুলতানপুর-গহরপুর সড়কে দুর্ঘটনায় নিহত ৩  » «   সাংবাদিক অজয় পালের প্রতিকৃতিতে সিলেটের সর্বস্থরের নাগরিকদের শ্রদ্ধা নিবেদন  » «   ঐতিহ্যবাহী ‘মাছের মেলা’ শেরপুরে হাজারো মানুষের ঢল  » «   দক্ষিণ সুমরার বাইপাস এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় দুইজন নিহত  » «   আমাদের দেশের শিক্ষার্থীরা আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন হয়ে গড়ে উঠছে: মন্ত্রী ইমরান  » «   আওয়ামীলীগের বিদায় নিশ্চিত করে দেশে জনগণের সরকার প্রতিষ্টা করতে হবে :কাইয়ুম চৌধুরী  » «   অবকাঠামো উন্নয়ন এর মাধ্যমে দেশ গড়ার কাজ করতে হবে-প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী ইমরান আহমদ  » «   ছাতকে অধ্যক্ষ অপসারণের দাবীতে সড়ক অবরোধ করেছে ছাত্রলীগ  » «   দোয়ারাবাজারে বিজিবি’র অভিযানে চৌদ্দ লক্ষ টাকা উদ্ধার  » «   দোয়ারাবাজারে চিলাই নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন! ২টিড্রেজার মেশিনসহ বালু জব্দ  » «   কুলাউড়ায় ৩ কেজি গাঁজাসহ ১জনকে আটক করেছে পুলিশ  » «   প্রধানমন্ত্রীর নতুন স্বপ্ন স্মার্ট বাংলাদেশে কেউ পিছিয়ে থাকবেনা : জেলা প্রশাসক  » «  

মধুলিকা রাওয়াতের মৃত্যুতে আবার অনাথ হলো আড়াইশো শিশু

সিলেটপোস্ট ডেস্ক::স্বামী বিপিন রাওয়াতের সঙ্গে চপার দুর্ঘটনায় মধুলিকা রাওয়াতের মৃত্যুর ঘটনায় দ্বিতীয়বারের জন্য অনাথ হলো আড়াইশো শিশু। ডিফেন্স ওয়াইভস অ্যাসোসিয়েশন-এর সভানেত্রী ছিলেন মধুলিকা। তিনি ও বিপিন রাওয়াত আড়াইশো অনাথ শিশুর একটি আশ্রম চালাতেন। বুধবার সন্ধ্যায় রাওয়াত দম্পতির নিহত হওয়ার খবর আসার সঙ্গে সঙ্গে শ্মশানের নিস্তব্ধতা নেমে আসে রাজেন্দ্রনগরের এই আশ্রমে।  মধুলিকা শুধু যে এই আশ্রম চালাতেন তা নয়, তিনি দুঃস্থ মেয়েদের সেলাই মেশিন, নিরাশ্রয় যুবকদের রিকশা কিনে দিয়েছিলেন। সাতবন্ত সিং নামের এক রিকশাচালক বুধবার সন্ধ্যায় বলেছেন – দ্বিতীয়বার যেন মা-বাবাকে হারিয়ে অনাথ হলাম। বিপিন রাওয়াতের বাবাও সেনা অফিসার ছিলেন।  উত্তরাখণ্ডের গেরওয়াল এর বাসিন্দা বিপিন মেধাবী ছাত্র ছিলেন।

ইন্ডিয়ান মিলিটারি একাডেমি থেকে ডিগ্রি নেন। আমেরিকা থেকে নেন উচ্চপাঠ। বাবার বাহিনীতেই প্রথম কমিশনড অফিসার হন তিনি।  সেখান থেকে ধাপে ধাপে সেনা সর্বাধিনায়ক। আপোষহীন, অনমনীয় কিন্তু সহৃদয় – সহকর্মীদের কাছে এভাবেই পরিচিত ছিলেন তিনি। তার দগ্ধ, বিকৃত দেহটি যখন হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে তখন উদ্ধারকারীদের তিনি  অস্ফুটস্বরে বলেছিলেন – জলদি কর, মুঝে জিন্দেগী চাহিয়ে…
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.