সংবাদ শিরোনাম
ওসমানীনগর উপজেলা প্রশাসনের মসজিদ ঘিরে ধ্রুমজাল!  » «   ঢাকা- সিলেট মহা সড়কের দক্ষিণ কুর্শা এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১, পরিবারে চলছে শোকের মাতম  » «   জৈন্তাপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত এক, আহত ৫  » «   মদিনা মার্কেটস্থ কালিবাড়ি রোডে ট্রাকচাপায় ব্যবসায়ী ফয়জুর নিহত  » «   খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সরকার কাজ করছে-সিলেটে খাদ্যমন্ত্রী  » «   আশারকান্দি ইউপি চেয়ারম্যান আইয়ূব খান কর্তৃক উপকারভোগীদের ২শতাধিক ড্রামের টাকা আত্মসাত,বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দায়ের  » «   গোয়াইনঘাটে পাহাড়ী ঢল ও ভারী বর্ষণে নিম্মাঞ্চল প্লাবিত  » «   সুনামগঞ্জ সদর ও বিশ্বম্ভরপুর উপজেলায় পাহাড়ি ঢলের পানিতে ১৬ শত একর পাকা ধান ও বাড়ি-ঘর ভেসে গেছে  » «   সাংবা‌দিক বাবরের পিতার মৃত্যুতে অনুসন্ধান কল্যাণ সোসাইটি সিলেট এর শোক প্রকাশ  » «   জৈন্তাপুরে নৌকা ডুবিতে একি পরিবারের ৫ জন উদ্ধার ১ জন নিখোঁজ  » «   সুনামগঞ্জের মধ্যনগর উপজেলা সীমান্ত এখন গরু চোরাচালানের স্বর্গরাজ্য  » «   নবীগঞ্জে নিহত জাহান খুনের ৮ দিন অতিবাহিত হলেও এখন পর্যন্ত কাউকে ধরতে পড়েনি পুলিশ!  » «   পুলিশি নির্যাতনে নিহত রায়হান আহমদ হত্যা মামলার সাক্ষী দিলেন তার স্ত্রী তান্নী  » «   নবীগঞ্জে ধর্ষককারীকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ডের রায় দিয়েছেন হবিগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন আদালত  » «   জগন্নাথপুরে ধান সংগ্রহ শুরু  » «  

৩ দফা দাবিতে শিক্ষকদের সমাবেশ

সিলেটপোস্ট ডেস্ক::বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক বিধিমালা- ২০১৩ অনুযায়ী জ্যেষ্ঠতা, পদোন্নতি, সিলেকশন গ্রেড ও প্রযোজ্য টাইমস্কেল দেওয়াসহ তিন দফা দাবিতে সমাবেশ করছে জাতীয়করণকৃত প্রাথমিক শিক্ষক মহাজোট।

মঙ্গলবার (২৮ ডিসেম্বর) সকাল ১১টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সমাবেশের আয়োজন করেন তারা। এতে সারাদেশ থেকে শিক্ষকরা অংশগ্রহণ করেন।

এসয় আন্দোলনকারী শিক্ষকরা বলেন, জাতীয়করণ হওয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৩৭ হাজার শিক্ষক রয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২৬ হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ করেছেন। জাতীয়করণের পর জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে ৫০ শতাংশ শিক্ষককে টাইমস্কেল দেওয়া হয়। কিন্তু গত বছরের আগস্টে অর্থ মন্ত্রণালয় একটি প্রজ্ঞাপন জারির মাধ্যমে শিক্ষকদের টাইমস্কেল বন্ধ করে দেয়। ফলে বর্তমানে যারা অবসরে যাচ্ছেন তাদের এ অর্থ পরিশোধ করা হচ্ছে না। আমাদের টাইমস্কেলসহ ৩ দফা দাবি মেনে নিতে হবে অন্যথায় আমরা কঠোর আন্দোলনে যাব।

জাতীয়করণকৃত প্রাথমিক শিক্ষক মহাজোটের সিনিয়র সমন্বয়ক ও বাংলাদেশ ডিজিটাল প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির মহাসচিব শেখ আব্দুস ছালাম মিয়া বলেন, ২০১৩ সালে বেসরকারি ২৬ হাজার ১৯৩টি প্রাথমিক বিদ্যালয়কে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতীয়করণ করেছেন। এর মাধ্যমে গেজেট অনুসারে সব ধরনের সুবিধা আমরা গ্রহণ করে আসছি। জাতীয়করণের আট বছর পরে ২০২০ সালের ১২ আগস্ট অর্থ মন্ত্রণালয় একটি পরিপত্র জারি করে জানানো হয়, জাতীয়করণ করা প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর টাইম স্কেল সঠিক হয়নি, শিক্ষকদের টাইম স্কেল থেকে প্রাপ্ত সুবিধা ফেরত দিতে বলা হয়। এখন টাইম স্কেল ফেরত দেওয়ার বিষয় সামনে আসায় আমাদের শিক্ষক সমাজকে চরম অর্থনৈতিক ক্ষতির মুখে পড়তে হচ্ছে। আমাদের অনেক শিক্ষক ইতিমধ্যে অবসরে চলে গেছেন। কেউ কেউ চাকরিরত অবস্থায় মারা গেছেন। এখন টাইম স্কেল ফেরত দেওয়া কথা বলা মানে আমাদের ছোট করা।

জাতীয়করণকৃত প্রাথমিক শিক্ষক মহাজোটের আহ্বায়ক আমিনুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, এর আগে আমরা প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য মানববন্ধন, সংবাদ সম্মেলন করেছি। কিন্তু কোন সমাধান না হওয়ার কারণে জীবনের শেষ সমাবেশ ডাক দিয়েছি ২৮ ডিসেম্বর। এই মহাসমাবেশে আমরা দাবি তুলে ধরবো। এরপরও যদি কিছু না হয়, তখন অনশন বা আত্মাহুতি ছাড়া আমাদের আর করার কিছুই থাকবে না।

তিনি আরও বলেন, শিক্ষক বিধিমালা- ২০১৩ এর ৭৪ বিধি অনুযায়ী শিক্ষকদের টাইমস্কেলের অর্থ দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। এটি বহাল রাখতে শিক্ষকদের পক্ষ থেকে আদালতে মামলা দায়ের হয়েছে। বর্তমানে সেটি বিচারাধীন।

তাদের তিন দফা দাবিগুলো হচ্ছে-

>> ৪৮,৭২০ জন জাতীয়করণকৃত প্রাথমিক শিক্ষকদের উত্তোলিত টাইম স্কেল সংক্রান্ত জটিলতা নিরসনসহ ২০২০ সালের ১২ আগস্ট অর্থ মন্ত্রণালয়ের জারি করা পত্রটি বাতিল করতে হবে।

>> ২০১৩ বিধিমালা অনুযায়ী কার্যকর চাকরিকালের (৫০%) ভিত্তিতে জ্যৈষ্ঠতা প্রদান করতে হবে।

>> এসএমসি কর্তৃক নিয়োগপ্রাপ্ত বাদপড়া প্রধান শিক্ষকদের গেজেটে অন্তর্ভূক্ত করতে হবে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.