সংবাদ শিরোনাম
দোয়ারাবাজারে মাদক সেবনের দায়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৪ জনের সাজা  » «   বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে তরুণীর অনশন  » «   দোয়ারাবাজারে কেন্দ্র ফি’র নামে এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত অর্থ আদায়  » «   তাহিরপুরে বিদ্যালয়ের আয়-ব্যয়ের হিসাব দিতে প্রধান শিক্ষকের টালবাহানা   » «   দোয়ারাবাজারে সরকারি ভাতা দেওয়ার নামে প্রতারণা, প্রতারককে জরিমানা  » «   মৌলভীবাজারের জুড়িতে ২ বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামিসহ দুইজন গ্রেফতার  » «   দোয়ারাবাজারে বিদেশী মদের চালানসহ মাদক কারবারি আটক  » «   সুনামগঞ্জের তিন উপজেলার ১৫টি স্পটে চলছে সহশ্রাধিক অবৈধ ক্রাশার মেশিনের তান্ডব  » «   সুনামগঞ্জে পিতা ও কন্যার উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের  » «   সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে স্কুল ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার  » «   সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে অজ্ঞাত বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার  » «   নবীগঞ্জে যুদ্বাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা ফিরোজ মিয়া আমাদের মধ্যে আর নেই! রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাপন  » «   জুড়ীতে ফেনসিডিল ও ইয়াবাসহ আটক ১  » «   ছাতকে আবুল হোসেনকে পরিকল্পিত হত্যা নাকি অন্য কারণ?প্রকৃত অপরাধীদের আড়াল করার অপচেষ্টা   » «   দোয়ারাবাজারে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক বরখাস্ত   » «  

বরিশালের বানারীপাড়ায় নারী নির্যাতনের স্বাক্ষী হওয়ায় মামলার আসামী বাবুল খান

বানারীপাড়া প্রতিনিধি::বরিশালের বানারীপাড়ায় নারী নির্যাতনের স্বাক্ষী হওয়ায়  মিথ্যা মামলার
আসামী হওয়ার অভিযোগ করেন বাইশারী ইউনিয়নের বাবুল খান। ভুক্তভোগী বাবুল খান জানান স্বামী কর্তৃক শারীরিক ও মানুষিক নির্যাতিত লিনার বাবা একদিন কাদতে কাদতে রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিলো।ওই দৃশ্য দেখে মানবিক দিক থেকে তার কাছে বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি বলেন আমার মেয়েকে সৈয়দকাঠী ইউনিয়নের সাতবাড়িয়া গ্রামের আবুল হোসেন বালীর ছেলে সামিমের সাথে বিবাহ দেই ওই সামীম আমার মেয়েকে প্রতিনিয়ত শারীরিক ও মানষিক নির্যাতন করে আসছে।

আজ তাকে অনেক মারধর করেছে বলে শুনেছি। একথা শুনে আমি বাবুল খান লবনসাড়া পুলিশ ফাড়ি থেকে ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে লিনাকে অচেতন অবস্থায় পাই এবং পুলিশ তাকে উদ্ধার করে তার বাবার কাছে ফিরিয়ে দেন। পরে তাকে বানারীপাড়া হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়।এর পরে বিষয়টি মিটমিমাংশার জন্য অনেক শালিস ব্যাবস্থা করা হলে গত ২২-১০-২১ইং তারিখে মিমাংশার জন্য লিনাদের বাড়ীতে বসার কথা থাকলেও ওই দিন লিনার স্বামী সহ কয়েকজন লিনার বাড়ীতে এসে শালিশ মিমাংসার কথা না মেনে উল্টো লিনার বাবার কাছে গরুর ফার্ম করার কথা বলে পঞ্চাশ হাজার টাকা যৌতুক দাবী করে এবং টাকা না দিলে লিনাকে তালাক দেয়ার হুমকি দেয়।পরে সামিম লিনার বিরুদ্ধে উকিল নোটিশ
পাঠায়।লিনা  নিরুপায় হয়ে শামিমের বিরুদ্ধে কয়েকটি মামলা দায়ের করেন।যে মামলায় আমাকে দুই নাম্বার স্বাক্ষী করা হয়। ওই মামলার আমি স্বাক্ষী দেয়ায় শামিম সহ কয়েকজন আমাকে হাত পা ভেঙ্গে পঙ্গু করার হুমকি সহ আমার বিরুদ্ধে
মিথ্যা মামলা ও আমার মালিকানা গাড়ী পুড়িয়ে দেয়ার হুমকি দেয়।

তারই ধারাবাহিকতায় গত ৪-৯-২২ইং তারিখ একটি বানোয়াট কাহিনী সাজিয়ে মোকাম বরিশাল বিজ্ঞ এক্সিকিউটিভ ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত ক- অঞ্চল আমাকে সহ আরো সাতজনকে আসামী করে ওই শামীম বাদী হয়ে একটি মিথা মামলা দায়ের করে।এ ছাড়াও বাইশারী বাজারে এক কাল্পনিক কাহিনী সাজিয়ে ১৯-০৯-২২ইং তারিখে বানারীপাড়া থানায়
আমাদের বিরুদ্ধে আরো একটি অভিযোগ দায়ের করেন ওই শামিম। মামলাবাজ শামীমের একের পর এক মিথ্যা মামলা থেকে পরিত্রানের দাবী জানান ভুক্তভোগী বাবুল খান।

এ দিকে ঘটনার সত্যতা জানতে শামিমের ব্যবহারিত ০১৭৮৫৭৮৮০০২ মোবাইল নাম্বারে  কল দিলে তাকে পাওয়া যায়নি।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.