সংবাদ শিরোনাম
মৌলভীবাজারের জুড়িতে ২ বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামিসহ দুইজন গ্রেফতার  » «   দোয়ারাবাজারে বিদেশী মদের চালানসহ মাদক কারবারি আটক  » «   সুনামগঞ্জের তিন উপজেলার ১৫টি স্পটে চলছে সহশ্রাধিক অবৈধ ক্রাশার মেশিনের তান্ডব  » «   সুনামগঞ্জে পিতা ও কন্যার উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের  » «   সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে স্কুল ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার  » «   সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে অজ্ঞাত বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার  » «   নবীগঞ্জে যুদ্বাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা ফিরোজ মিয়া আমাদের মধ্যে আর নেই! রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাপন  » «   জুড়ীতে ফেনসিডিল ও ইয়াবাসহ আটক ১  » «   ছাতকে আবুল হোসেনকে পরিকল্পিত হত্যা নাকি অন্য কারণ?প্রকৃত অপরাধীদের আড়াল করার অপচেষ্টা   » «   দোয়ারাবাজারে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক বরখাস্ত   » «   তাহিরপুরে রাতের আঁধারে কৃষকের জমির ধান কেটে নিল প্রতিপক্ষের লাঠিয়াল বাহিনী   » «   ঢাকা- সিলেট মহাসড়কে অ্যাম্বুলেন্স ও সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষ আহত ৭, আশংখাজনক ভাবে ৫জনকে সিলেট প্রেরন  » «   দিরাইয়ে আওয়ামীলীগের সম্মেলনে হামলার ঘটনায় ৭৭ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা  » «   এ সরকারকে বলে দিতে চাই আর কোনো হুমকি ধামকিতে কাজ হবে না-মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর  » «   সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে আওয়ামীলীগের ত্রি- বার্ষিক সম্মেলনে সংঘর্ষ ও নিহতের মামলায় গ্রেপ্তার ৪  » «  

সুনামগঞ্জ ষ্টোরকিপার) সুলেমান আহমদ তার পদে বহাল

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি::ছাতকের ঠিকানায় নিয়োগ প্রাপ্ত সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে স্বাস্থ্য সহকারী(বর্তমান ষ্টোরকিপার) সুলেমান আহমদের বিরুদ্ধে অভিযোগের অন্ত নেই। অনিয়ম-দুর্নীতি, সিন্ডিকেট বানিজ্য ও স্বজনপ্রীতিসহ হাসপাতালে সকল অপকর্মের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। বিনিময়ে তিনি অবৈধভাবে উপার্জন করছেন লক্ষ-লক্ষ টাকা। বিগত দিনে সুলেমান আহমদের বিরুদ্ধে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহা পরিচালক, দুর্নীতি দমন কমিশন সহ সরকারের বিভিন্ন দপ্তরে একাধিক অভিযোগ হলেও অদৃশ্য ক্ষমতাধর স্বাস্থ্য সহকারী(বর্তমান ষ্টোরকিপার) সুলেমান আহমদ তার স্ব পদে বহাল রয়েছেন। বিভিন্ন অভিযোগ থেকে জানা যায়, ছাতক উপজেলার ছৈলা-আফজলাবাদ ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের ভুয়া নাগরিক সনদপত্র গ্রহন করে ছাতক উপজেলা স্বাস্থ্য কমল্পেক্সে স্বাস্থ্য সহকারী হিসেবে যোগদান করেন ২০০৪ সালে। অথচ তার মুল ঠিকানা হল সুনামগঞ্জ পৌরসভার মল্লিকপুর এলাকায়। পরবর্তিতে কুট কৌশল অবলম্বন করে সরকারী বিভিন্ন জিও এবং নিয়োগ বিধি লংঘনের মাধ্যমে ২০১৬ সালে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে ষ্টোরকিপার পদে পদায়িত হন। কিন্তু এখানেই থেমে নেই তিনি। ২০১৮ সালে প্রথম দিকেই তিনি তার মুল লক্ষে পৌছে যান। সুনামগঞ্জ জেলা সদর হাসপাতালের ষ্টোরের দায়িত্ব পেয়ে যান সুলেমান আহমদ। এরপর তাকে আর পিছনের দিকে তাকাতে হয়নি। তার অনিয়ম-দূর্নীতি ও টেন্ডার বানিজ্যের হাত তিনি চতুর্দিকে প্রসারিত করতে থাকেন। অনিয়ম-দুর্ণীতির স্বর্গরাজ্যে পদার্পন করে সুলেমান আহমদ হাসপাতালের রোগীর খাবার সরবরাহ, এমএসআর সামগ্রি ক্রয়, যন্ত্রপাতি, আসবাবপত্র ক্রয়-বিক্রয়ের স্বঘোষিত ঠিকাদারে পরিনত হন তিনি। এক পর্যায়ে হাসপাতালের সব নিয়ন্ত্রন চলে আসে তার হাতে। আউটসোর্সিং নিয়োগের ক্ষেত্রে লক্ষ-লক্ষ টাকার বিনিময়ে তার নিজস্ব ও এলাকার লোকজনদের নিয়োগ দেয়ার অভিযোগও রয়েছে তার বিরুদ্ধে। কয়েক বছরেই তিনি আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ বনে যান। স্বাস্থ্য সহকারী পদে চাকুরী করে সুলমান আহমদ কিভাবে বিপুল পরিমান অর্থ-সম্পদ, বাড়ি-গাড়ি মালিক হলেন- এ প্রশ্নই ঘুরপাক খাচ্ছে শহর জুড়ে। বিষয়টি তদন্ত পূর্বক স্বাস্থ্য সহকারী সুলেমান আহমদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহন এবং তাকে স্ব পদে দায়িত্ব পালনের নির্দেশসহ জেলা সদর হাসপাতালকে দুর্নীতি মুক্ত করার দাবী জানিয়ে ২০২১ সালে ১৭ আগষ্ট স্বাস্থ্য অধিদপ্তর মহা পরিচালক বরাবরে অভিযোগ দেন এলাকাবাসী।  এ ছাড়া ২০২১-২০২২ অর্থবছরে জেলা সদর হাসপাতালে আহবানকৃত এমএসআর এবং পণ্য সরবরাহ দুর্নীতি, লুটপাট ও সিন্ডিকেট করে নিয়ম বর্হিভুতভাবে কাজ হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে সুলেমান আহমদ ও হাসপাতালের অফিস সহকারী ছমিরুল ইসলামের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনী ব্যবস্থা গ্রহনের দাবীতে চলতি বছরের ২১ জুলাই সুনামগঞ্জের স্থানীয় ঠিকাদারগণ স্বাক্ষরিত একটি অভিযোগ জেলা প্রশাসক বরাবরে প্রদান করা হয়।
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.