সংবাদ শিরোনাম
দোয়ারাবাজারে মাদক সেবনের দায়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৪ জনের সাজা  » «   বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে তরুণীর অনশন  » «   দোয়ারাবাজারে কেন্দ্র ফি’র নামে এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত অর্থ আদায়  » «   তাহিরপুরে বিদ্যালয়ের আয়-ব্যয়ের হিসাব দিতে প্রধান শিক্ষকের টালবাহানা   » «   দোয়ারাবাজারে সরকারি ভাতা দেওয়ার নামে প্রতারণা, প্রতারককে জরিমানা  » «   মৌলভীবাজারের জুড়িতে ২ বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামিসহ দুইজন গ্রেফতার  » «   দোয়ারাবাজারে বিদেশী মদের চালানসহ মাদক কারবারি আটক  » «   সুনামগঞ্জের তিন উপজেলার ১৫টি স্পটে চলছে সহশ্রাধিক অবৈধ ক্রাশার মেশিনের তান্ডব  » «   সুনামগঞ্জে পিতা ও কন্যার উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের  » «   সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে স্কুল ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার  » «   সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে অজ্ঞাত বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার  » «   নবীগঞ্জে যুদ্বাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা ফিরোজ মিয়া আমাদের মধ্যে আর নেই! রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাপন  » «   জুড়ীতে ফেনসিডিল ও ইয়াবাসহ আটক ১  » «   ছাতকে আবুল হোসেনকে পরিকল্পিত হত্যা নাকি অন্য কারণ?প্রকৃত অপরাধীদের আড়াল করার অপচেষ্টা   » «   দোয়ারাবাজারে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক বরখাস্ত   » «  

ওসমানী নগরের খসরু হত্যাঃ ১ মাস পরও আসামিদের গ্রেফতার করেনি মোগলাবাজার থানা পুলিশ

বালাগঞ্জ প্রতিনিধি::সিলেট এসএমপির মোগলাবাজার থানাধীন কলারতল বাজারে মোটর সাইকেল দিয়ে ওসমানি নগরের খসরু মিয়া হত্যা মামলায় ঘটনার ১ মাস পরও রহস্য জনক কারণে আসামিদের গ্রেফতার করেনি মোগলাবাজার থানা পুলিশ। সুত্রের খবর অনুযায়ী আসামিরা বাড়িতে থাকলেও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মোগলাবাজার থানা পুলিশ আসামিদের সাথে যোগসাজসে আসামিদের গ্রেফতার না করে মামলার বাদিকে আসামিদের সাথে আপোষ করার জন্য বিভিন্নভাবে চাপ দিচ্ছেন।ঘটনার পরপর নিহত খসরু মিয়ার স্ত্রী মোছাম্মত ফাতেমা তুজ জহুরা মনোয়ারা বাদী হয়ে মোগলাবাজার থানায় এজাহার দাখিল করলে থানা পুলিশ রহস্য জনক কারণে ঘটনার ১৫ দিন পর ২১ অক্টোবর মামলা নথিভুক্ত করে। থানাপুলিশ মামলা নিলেও আসামিরাও প্রভাবশালী হওয়ায় পুলিশের সহযোগিতায় বাদিকে আপোষ মীমাংসায় রাজি করানোর জন্য ভয়ভীতি প্রদর্শন করার অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে। এমতবস্থায় বাদি আসামিদের ভয়ে হীনমন্যতায় ভূগছেন বলে জানিয়েছেন।
ঘটনার বিবরণে জানাযায়, গত ৪ অক্টোবর ওসমানীনগর উপজেলার ধনপুর গ্রামের আব্দুল বারীর ছেলে মো. খমরু মিয়া আব্দুর রহমান তার ছোট বোন পারভীন বেগমকে নিয়ে দুপুর অনুমান ১২.০০ ঘটিকার সময় নিজ বাড়ী হইতে মোটর সাইকেল যোগে হেলমেট পরিহিত অবস্থায় সিলেট নর্থইষ্ট’ মেডিকেল এর উদ্দেশ্যে রওনা হন। নিহত খসরু মিয়া ও তার বোন মোটর সাইকেল যোগে মোগলাবাজার থানাধীন কলারতল বাজারস্থ দেলোয়ার হোসেন এর বাসার সামনে পাকা রাস্তার উপর আসা মাত্রই পিছনে দিক থেকে এসে বালাগঞ্জ থানার পূর্ব কলুমা গ্রামের ওসমান আলীর ছেলে আনছার আলী ও একই গ্রামের ইসমাইল আলীর ছেলে মোঃ আকতার আলী মোটর সাইকেল যোগে আসিয়া খসরু মিয়ার মোটর সাইকেলর পিছনে দিক হতে ইচ্ছাকৃত ভাবে দ্রুত ও বেপরোয়া গতিতে আসিয়া সজোর ধাক্কা মারে, উক্ত ধাক্কার ফলে রাস্তার পাশে থাকা বৈদ্যুতিক খুটির(পিলার) এর সহিত খসরু মিয়ার মাথায লাগিয়া গুরুতর রক্তাক্ত জখম প্রাপ্ত হয়। এ সময় খসরু মিয়ার বোন পারভিন আক্তারের বাম হাতে কুনই নিচে আঘাত প্রাপ্ত হইয়া হাড় ভেঙে যায। উক্ত আঘাতের ফলে খসরু মিয়া ও তার বোন পারভীন বেগম অজ্ঞান হয়ে রাস্তায় পড়ে থাকে। পিছন থেকে আসা সিএনজি ড্রাইভার ও গাড়ীর যাত্রীগণ ঘটনাস্থলের লোকজন খসরু মিয়া ও পারভীন বেগমকে চিকিতসার জন্য সিলেট নর্থইষ্ট মেডিকেল নিয়া গেলে তাদের অবস্থা গুরুতর দেখিয়া উন্নত চিকিতসার জন্য সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হইয়া চিকিতসাধীন থাকা অবস্থায় গত০৪/১০/২০২২ খ্রিঃ বিকাল অনুমান ৩:০০ ঘটিকার সময় খসরু মিয়া মৃত্যুবরণ করেন।পরবর্তীতে মোগলাবাজার থানা পুলিশ উক্ত সড়ক দূর্ঘটনার সংবাদ পাইয়া সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে উপস্থিত হইয়া মোঃ খছরু মিয়া আঃ রহমান(৪৭) এর মৃত দেহের সুরতহাল প্রতিবেদন প্রস্তুত করতঃ ময়না তদন্তের জন্য মৃত দেহ মর্গে প্রেরণ করেন।

এ বিষয়ে মোগলাবাজার থানার অফিসার ইনচার্জ মো. শামসুদ্দো্হা পিপিএম বলেন,সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মামলা প্রক্রিয়াধীন আছে।আসামির বিরোদ্ধে আমাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে ।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.