সংবাদ শিরোনাম
আন্দোলনকারীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ চলাকালে সিয়াম নামে এক তরুণ নিহত  » «   কোটা বৈষম্য বিরোধী আন্দোলনকারীদের পক্ষে বিক্ষোভের ঘোষণা হেফাজতে ইসলামের  » «   আগামীকাল সারাদেশে ‘কমপ্লিট শাটডাউন’কর্মসূচি ঘোষণা  » «   দোয়ারাবাজারে প্রকাশ্যে চলছে টিলা কাটার মহোৎসব! নিরব প্রশাসন  » «   মাদকের ভয়ালগ্রাস থেকে আমাদের সন্তানদের বাচাতে হবে- বিভাগীয় কমিশনার আহমদ ছিদ্দীকী  » «   আরিফ হত্যা মামলায় ৩৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নিপু কারাগারে  » «   ধর্মপাশার মুগরাইন হাওরে গোসল করতে নেমে ডুবে শাশুড়ি ও তার অন্তঃসত্ত্বা পুত্রবধূর মৃত্য  » «   তৃতীয় দফা বন্যার মুখোমুখি সুনামগঞ্জের হাওরপাড়ের লাখ লাখ মানুষজন  » «   বন্যায়ও থেমে নেই ভারত থেকে অবৈধভাবে আসা চিনির চোরাচালান  » «   সিলেটে নতুন পুলিশ সুপার এর যোগদান  » «   র‌্যাব সদস্যরা দেশের যেকোন সংকটময় মূহুূর্তে সব সময়ই জনগনের পাশে থেকে কাজ করে যাচ্ছে -র‌্যাব মহাপরিচালক  » «   সার্বক্ষণিক নিরাপত্তার জন্য একজন গানম্যান নিয়োগ পেলেন ব্যারিস্টার সুমন  » «   গুজব আতঙ্কে গোলাপগঞ্জে ছেলে ধরা সন্দেহে বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী যুবককে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ  » «   সুনামগঞ্জে শ্রী শ্রী জগন্নাথ দেবের রথযাত্রা উৎসব উপলক্ষে শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত  » «   কৃষকরা এ দেশের প্রাণ: প্রতিমন্ত্রী শফিক চৌধুরী  » «  

৪ বছর যাবৎ ৮’শ শিক্ষক এমপিও বঞ্চিত’

সিলেটপোস্টরিপোর্ট:৮’শ শিক্ষক প্রায় ৪ বছর যাবৎ এমপিও থেকে বঞ্চিত হচ্ছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ এমপিও বঞ্চিত সহকারী শিক্ষক (কম্পিউটার) কমিটির আহ্বায়ক আশিকুজ্জামান।সোমবার জতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এমপিও ভুক্তির দাবিতে  আয়েজিত এক মানববন্ধনে তিনি এই দাবি  করেন। আমাদের অন্যান্য শিক্ষকদের চেয়ে বেশি ক্লাস হচ্ছে কিন্তু আমরা সেভাবে আর্থিক সাপোর্ট পাচ্ছি না অভিযোগ করে আশিকুজ্জামান বলেন, কম্পিউটার শিক্ষা যেহেতু একটি আবশ্যিক বিষয়, সেহেতু কম্পিউটার শিক্ষাককেও অন্যান্য শিক্ষকদের ন্যায় এমপিওভুক্ত করা হোক।উল্লেখ্য, ২০১১ সালের আগ পর্যন্ত বেসরকারি কম্পিউটার শিক্ষক (সহকারী) পদকে এমপিওভুক্ত করা হয়। কিন্তু ২০১১ সালের ১৩ নভেম্বর শিক্ষা মন্ত্রণালয় অর্থ বরাদ্ধ না থাকায় অতিরিক্ত শ্রেণি শাখা, বিভাগ খোলার বিপরীতে নিযুক্ত শিক্ষকদের  বেতন-ভাতা সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান কর্তৃক বহন করতে হবে বলে বলা হয়। মানববন্ধনে আশিকুজ্জামান বলেন, একদিকে মন্ত্রণালয়ের বরাদ্ধ স্থগিত অন্যদিকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে এ বিষয়ে শিক্ষক নিয়োগের জন্য তাগাদা দেয়া হয়। তাছাড়া কম্পিউটার শিক্ষক প্যাটার্নভুক্ত ১১ জন শিক্ষকদের একজন। কিন্তু অন্যান্য বিষয়ে ছাত্র সংখ্যা বেশি হলে প্রয়োজন অনুযায়ী একাধিক শিক্ষক নিয়োগের বিধান থাকলেও কম্পিউটার বিষয়ে সে বিধান না থাকায় একজন শিক্ষককে সারাক্ষণ ক্লাস নেয়ার মধ্যে থাকতে হচ্ছে। তিনি আরো, বলেন, প্রতিষ্ঠান থেকে যা দেয়া হয় তা নামে মাত্র, তাই বাধ্য হয়ে আমাদেরকে প্রতিষ্ঠান থেকে ফিরে পরিবারের হাল ধরতে অন্য কোনো কাজ করতে বাধ্য হতে হয়।

অনেক সময় সে কাজও পাওয়া যায় না, এখন আমাদের যাতে আর মানবেতর জীবন যাপন করতে না হয়, তার জন্য শিক্ষমন্ত্রণালয় ও প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছি বলেও আবেদন জানান তিনি। ভুক্তভোগী শিক্ষক রফিকুল ইসলাম বলেন, অন্যান্য শিক্ষক যেখানে তিনের অধিক ক্লাস নেন না, সেখানে আমাকে প্রত্যেক শ্রেণিতে ৫-৬টি ক্লাস নিতে হচ্ছে।

তিনি বলেন, যদি শিক্ষাই জাতির মেরুদ- হয়? তাহলে আমরা মনে করি ডিজিটাল বাংলাদেশের মেরুদ- কম্পিউটার শিক্ষা, তথা তথ্যও যোগাযোগ প্রযুক্তি শিক্ষা।

মানববন্ধনে সংগঠনের যুগ্ম-আহ্বায়ক এস এম শামীমুর রহমানসহ দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা কম্পিউটার শিক্ষকরা উপস্থিত ছিলেন।
.

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.