সংবাদ শিরোনাম
দোয়ারাবাজারে কেন্দ্র ফি’র নামে এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত অর্থ আদায়  » «   তাহিরপুরে বিদ্যালয়ের আয়-ব্যয়ের হিসাব দিতে প্রধান শিক্ষকের টালবাহানা   » «   দোয়ারাবাজারে সরকারি ভাতা দেওয়ার নামে প্রতারণা, প্রতারককে জরিমানা  » «   মৌলভীবাজারের জুড়িতে ২ বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামিসহ দুইজন গ্রেফতার  » «   দোয়ারাবাজারে বিদেশী মদের চালানসহ মাদক কারবারি আটক  » «   সুনামগঞ্জের তিন উপজেলার ১৫টি স্পটে চলছে সহশ্রাধিক অবৈধ ক্রাশার মেশিনের তান্ডব  » «   সুনামগঞ্জে পিতা ও কন্যার উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের  » «   সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে স্কুল ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার  » «   সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে অজ্ঞাত বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার  » «   নবীগঞ্জে যুদ্বাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা ফিরোজ মিয়া আমাদের মধ্যে আর নেই! রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাপন  » «   জুড়ীতে ফেনসিডিল ও ইয়াবাসহ আটক ১  » «   ছাতকে আবুল হোসেনকে পরিকল্পিত হত্যা নাকি অন্য কারণ?প্রকৃত অপরাধীদের আড়াল করার অপচেষ্টা   » «   দোয়ারাবাজারে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক বরখাস্ত   » «   তাহিরপুরে রাতের আঁধারে কৃষকের জমির ধান কেটে নিল প্রতিপক্ষের লাঠিয়াল বাহিনী   » «   ঢাকা- সিলেট মহাসড়কে অ্যাম্বুলেন্স ও সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষ আহত ৭, আশংখাজনক ভাবে ৫জনকে সিলেট প্রেরন  » «  

আমার পায়ের কী হবে ?

1সিলেটপোস্ট রিপোর্ট :  প্রিজন সেলে আপাতত থাকলেও পুলিশ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, আমার সঙ্গে স্বজনদের দেখা-সাক্ষাতে আর কোন বাধা নেই। আমি এখন মুক্ত। পঙ্গু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন নয়ন বাছার যখন এ কথা বলছিলেন তখন তার কাছে জানতে চাওয়া হয়, মুক্তির স্বাদ কেমন? জবাবে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের দর্শন বিভাগের এই শিক্ষার্থী বলেন, হাতে হাত কড়া নেই। স্বজন-বন্ধুরা এখন অবাধে আমার কাছে আসতে পারবেন। সাংবাদিকরা কথা বলতে পারবেন। ছবি তুলতে পারবেন। এতে এক ধরনের স্বস্তি পাচ্ছি। কিন্তু মনেতো শান্তি নেই। আমার পায়ের কী হবে? গরীব ঘরের সন্তান-এই চিকিৎসা চালাবো কিভাবে? আমার পড়াশুনার যে ক্ষতি হয়েছে, সেটা পূরণ হবে কবে? যে মামলা চলছে সেটা থেকে মুক্তি পাবো কবে? আবার কবে আমি পায়ে হেঁটে ক্যাম্পাসে যাবো। গ্রামের বাড়ী যাবো? এসব চিন্তায় ঘুমাতে পারি না। গত ৪ঠা ফেব্রুয়ারি পুরান ঢাকা এলাকায় একটি বাসে আগুনের ঘটনার পর পুলিশ নয়নের বাঁ পায়ের হাঁটুর ওপর গুলি করে। অভিযোগ রয়েছে, হিন্দু সম্প্রদায়ের নয়ন বাছারকে ‘নয়ন বাশার’ মনে করে পুলিশ শিবির কর্মী সন্দেহে গুলি করে। সেদিন নয়ন বলেছিলেন, আমি হিন্দু, শিবির নই। কিন্তু তার কথায় কর্ণপাত করেনি পুলিশ। উল্টো তার বিরুদ্ধে মামলাও দায়ের করে পুলিশ। এতদিন পুলিশের কড়া নজরদারি আর হাত কড়া নিয়ে হাসপাতালের বিছানায় দুর্বিসহ সময় পার করেছেন নয়ন। রোববার তার জামিন আবেদন করা হয় আদালতে। শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক কামরুল ইসলাম  জামিনে নয়নের মুক্তির আদেশ দেন।

 

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.