সংবাদ শিরোনাম
নবীগঞ্জের রুস্তমপুর টোলপ্লাজা এলাকায় থেকে ৩ কেজি গাঁজাসহ ২ মাদক ব্যবসায়ী পুলিশের হাতে গ্রেফতার  » «   ছাতকে বাস-সিএনজি মুখোমুখি সংঘর্ষে কন্ঠশিল্পী পাগল হাসান নিহত  » «   সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জে মায়ের সম্পত্তি নিয়ে ছোটভাইয়ের হাতে বড়ভাই নিহত,আটক-২  » «   দিরাইয়ে বজ্রপাতে দুইজন কৃষকের মৃত্যু  » «   পরিবেশ অধিদপ্তরের অনিয়ম দুর্নীতির বিরুদ্ধে সতর্ক থাকার আহবান  » «   সিলেট জেলা ট্রাক-পিকআপ-কাভার্ড ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের ঈদ পুনর্মিলনী ও আলোচনা সভা  » «   ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন মানবাধিকার ও অনুসন্ধান কল্যাণ সোসাইটি’র সভাপতি শেখ লুৎফুর  » «   পুলিশ-ম্যাজিস্ট্রেসীর মধ্যে পারস্পরিক সম্পর্ক ও সমন্বয় অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ-সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ  » «   মানবাধিকার ও অনুসন্ধান কল্যাণ সোসাইটি’র ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত  » «   সুনামগঞ্জে কালবৈশাখীর ঝড়ে ৭শতাধিক কাচা ঘরবাড়ি,২ শতাধিক দোকান লন্ডভন্ড  » «   হবিগঞ্জে চাল্যকর ছোবহান হত্যা মামলার ৫ জন আসামীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৯  » «   নবীগঞ্জে ৬ বছরে শিশুকে চকলেটের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ! ধর্ষনকারী আনহারকে আটক   » «   ফ্যাসিস্ট ডামি সরকারকে পদত্যাগে বাধ্য করা হবে :কাইয়ুম চৌধুরী  » «   বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন সিলেট জেলার উদ্যোগে ইফতার বিতরণ ও দোয়া মাহফিল  » «   সিলেটে পারিবারিক কলহের জেরে ছেলের হাতে বাবা খুন  » «  

এক ম্যাককলামেই শেষ চেন্নাই

2সিলেটপোস্ট রিপোর্ট:  এ তো অচেনা চেন্নাই! মঙ্গলবার ওয়াংখেড়েতে মুম্বাই-চেন্নাই লড়াই দেখতে দেখতে বারবার এই কথাটাই মনে হচ্ছিল। চেন্নাই সুপার কিংস মানে তাদের দুশো তাড়া করে জিততে বলুন, তাও করে দেবে। আবার অল্প রানে বিপক্ষকে আটকাতে হলে, সেটাও করবে। ওদের ইমেজটা এ রকমই। অথচ মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের দেওয়া ১৮৮-র টার্গেটের পিছনে দৌড়তে কী হিমশিমটাই না খেল সিএসকে! সে জন্যই এই ম্যাচে বেশ অচেনা লাগল ধোনিদের। তবে এটা বোধহয় হওয়ারই ছিল।

 

ব্রেন্ডন ম্যাককলামের অভাবটা ভাল ভাবেই টের পেল এম এস ধোনিরা। আসলে ম্যাককলাম শুরুতে যে ঝড়টা তুলছিল, সেটা তোলার লোক আর নেই সিএসকে-তে। ফলে মিডল অর্ডারে চাপটা বেশি পড়ে গেল। এবং সেটা এমন একটা ম্যাচে যেখানে হার-জিতটা ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ। যদিও শুক্রবার জিতলে ধোনিরা ফাইনালে উঠে যাবে। কিন্তু এ দিন ওয়াংখেড়েতে ওদের আত্মবিশ্বাস যে ধাক্কা খেল, সেটা সামলে ওঠা সহজ হবে না।

 

দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে রাঁচির উইকেটের সাহায্য পেতে পারে সিএসকে। ওখানকার উইকেট সাধারণত কিছুটা স্পিন সহায়ক হয়। তাই ওখানে অশ্বিন, জাডেজা, নেগিরা কাজে লাগতে পারে। ব্র্যাভো অনেকটা ছুটে এসে বল করলেও আখেরে তা স্লো বলই। রায়নাও স্পিন করে। রাঁচিতে একটু স্লো-লো উইকেট। যে উইকেটে সুবিধাটা পেতে পারে চেন্নাই। ওয়াংখেড়ের সমস্যাগুলো রাঁচিতে হয়তো থাকবে না ধোনিদের সামনে।

 

এ দিন মুম্বাই বড় স্কোর তুলে দেওয়ার পর চেন্নাই হেরে গেল কয়েকটা কারণে। সবচেয়ে বড় এবং গুরুত্বপূর্ণ কারণটার কথা আগেই বলেছি। ব্রেন্ডন ম্যাকালামের ইংল্যান্ড সিরিজ যাওয়া। বাকিগুলো, রায়নার ফর্মে না থাকা। শুরুতেই ডোয়েন স্মিথের দুর্ভাগ্যজনক ভাবে আম্পায়ারের ভুল সিদ্ধান্তের শিকার হয়ে ফিরে যাওয়া এবং ধোনির এসেই আউট হওয়া। একটা ওভারে হরভজন রায়না-ধোনি দু’জনকেই আউট করে দিল। ওটাও একটা ফ্যাক্টর।

অন্য দিকে মুম্বাইকে দেখুন। প্রথম উইকেটেই দশ ওভারে ৯০ তুলে দিল পার্থিব ও সিমন্স। মিডল অর্ডারে রান তোলার কাজটা করে দিল পোলার্ড। এ বারের আইপিএলে মুম্বাইয়ের সোনার দৌড়টা শুরু হয়েছে পোলার্ড রানে ফেরার পর থেকেই।

মঙ্গলবারও ওর ওই ১৭ বলে ৪১-এর ইনিংসই মুম্বাইকে বড় স্কোরে পৌঁছে দিল। মুম্বাইয়ের টানা জয়ের পিছনে আরও দুটো ফ্যাক্টর কাজ করছে। এক, ওপেনারদের ফর্ম। এবং দুই, নতুন বলে মালিঙ্গা-ম্যাকক্লেনাঘন জুটি। নিউজিল্যান্ডের বাঁ হাতি পেসার আসার পর থেকে মালিঙ্গার উপর চাপটা অনেকটা কমে গিয়েছে। আর ও খোলা মনে বলটা করতে পারছে।

চেন্নাইয়ের ব্যাটিং সমস্যায় ভুগলেও ধোনিদের বোলিংটা কিন্তু মোটেই খারাপ নয়। একেই নেহরা বেশ ভাল ফর্মে। ব্র্যাভোও যথেষ্ট ভাল বল করছে। তার উপর অাশ্বিনকে দিয়ে শুরু করে এ দিন একটা ফাটকা খেলেছিল ধোনি। যেটা ও প্রায়ই করে থাকে। রান আটকানোর দিক থেকে ফাটকাটা লেগে গেলেও অবশ্য উইকেট তুলতে পারেনি অাশ্বিন। এই বোলিংয়ের বিরুদ্ধেও যে মুম্বাইয়ের ব্যাটসম্যানরা এই রানটা তুলতে পারল, ফাইনালে ওঠাটা তারই পুরস্কার বলতে পারেন।

 

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.