সংবাদ শিরোনাম
এডিশন্যাল ডি আই জি কে জেলা শ্রমিক ঐক্য পরিষদের বিদায় সংবর্ধনা ও ক্রেষ্ট প্রদান  » «   আউশকান্দি কলেজিয়েট স্কুলে বখাটেদের উৎপাত বেড়ে গেছে!ছাত্রী ও অভিভাবকরা আতংকিত  » «   সুনামগঞ্জ জেলা ও দিরাই উপজেলা শিক্ষা অফিসারের বিরুদ্ধে দুদকে ঘুষ-দূর্নীতি ও অর্থ কেলেংকারীর অভিযোগ   » «   মাস খানেক পরই বিদ্যুৎ ঘাটতিসহ সবকিছুই ঠিক হয়ে যাবে-পরিকল্পনা মন্ত্রী মান্নান  » «   ওসমানীনগরে পরিমাপে পেট্রোল কম দেয়ায় সুপ্রীম ও আবীর ফিলিং স্টেশনকে জরিমানা  » «   জগন্নাথপুরে এক কৃষক হত্যা মামলায় ১ জনের আমৃত্যু ও ৫ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড  » «   সিলেটের ওসমানীনগরে মা-মেয়েকে জোরপূর্বক ধর্ষণের অভিযোগ  » «   জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির অযৌক্তিক সিদ্বান্ত-বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল  » «   দেশের সংকট নিরসনের জন্য আওয়ামীলীগকে বিতাড়িত করার বিকল্প নেই :খন্দকার মুক্তাদির  » «   চুনারুঘাটে ছেলের হাতে মা খুন,ছেলে আটক  » «   জৈন্তাপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২  » «   দোয়ারাবাজারে ভারতীয় মালামালসহ আটক ২   » «   ওসমানীনগর থানার ওসি অথর্ব ও দুর্নীতিবাজ-মোকাব্বির খান এমপি  » «   ভোলায় পুলিশী ন্যাক্কারজনক ঘটনায় সিলেটে যুবদলের বিক্ষোভ মিছিল  » «   সিলেটে ঘুষ ছাড়া সহজে কারো পাসপোর্ট হয়না: ব্যবস্থা নিতে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর চিঠি  » «  

সিলেটের ওসমানীনগরে কৃষি অধিদফতরের কোটি টাকার ভূমি দখল!

1সিলেটপোস্টরিপোর্ট :সিলেটের ওসমানীনগরে কৃষি অধিদফতরের কোটি টাকার মূল্যের একটি পরিত্যক্ত বীজাগারের ভূমি দখল হয়ে গেছে। কৃষি বিভাগের রক্ষণাবেক্ষণে অনীহা ও সঠিক তদারকির অভাবে সরকারি এ সম্পদ প্রভাবশালীদের দখলে চলে গেছে। দীর্ঘদিন থেকে প্রভাবশালী এ চক্রটি বীজাগারের ভূমি দখল করে দোকান নির্মাণ করে দেদার ব্যবসা বাণিজ্য চালিয়ে যাচ্ছে। এক দখলদার দুটি দোকান ঘর নির্মাণ করে একটি অন্যজনের নিকট মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে বিক্রি করে দিয়েছে। সরকারি সম্পদ দখলের পর আবার চলছে বিকিকিনির কাজ। দীর্ঘদিন পর উপজেলা কৃষি অফিসের নজরে বিষয়টি এলে অবৈধ দখলদারদের সরকারি ভূমি ছেড়ে দেয়ার জন্য একাধিক নোটিশ প্রদান করা হলেও দখলদাররা কর্ণপাত করছে না।উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা জানা যায়, ১৯৬২ সালে তৎকালীন কৃষি মন্ত্রণালয় ইউনিয়ন পর্যায়ে কৃষি উপকরণের সঠিক মান নিয়ন্ত্রণ ও সহজ প্রক্রিয়ায় কৃষকদের মাঝে উন্নত মানের বীজ, ইউরিয়াসহ বিভিন্ন উপকরণ কৃষকদের দ্বারপ্রান্তে সহজে সরবরাহ ও বিতরণ নিশ্চিত করার লক্ষ্যে এ বীজাগার নির্মাণ করে। উপজেলার তাজপুর ইউনিয়নের তাজপুর বাজারে সিলেট-ঢাকা মহাসড়কের পাশে স্থানীয় শাহ নেছাওর আলীর দানকৃত আট শতক জমিতে ইউনিয়ন ব্লক সুপারভাইজারদের অফিস কাম বীজাগার ভবনটি নির্মাণ করা হয়। নির্মাণের পর থেকে বেশ কিছু দিন পর্যন্ত বীজাগারটি কৃষি বিভাগ ব্যবহার করে। ১৯৮৫ সাল থেকে বীজাগারটি পরিত্যক্ত ও ব্যবহার অনুপযোগী হয়ে পড়ে। স্থানীয় কৃষি বিভাগের রক্ষণাবেক্ষণের অভাব, সীমানা প্রাচীর না থাকাসহ দীর্ঘ প্রায় ৩০ বছর ধরে অযত্ন অবহেলা ও পরিত্যক্ত থাকার কারণে স্থানীয় প্রভাবশালীদের কুনজরে পড়ে বীজাগারের ভূমি ।সরেজমিন তাজপুর বাজারে গিয়ে দেখা যায়, বীজাগারের সামনের ২ থেকে ৩ শতক ভূমির ওপর উপজেলার তাজপুর ইউপির কাদিপুর গ্রামের আখলু মিয়া একটি ও একই ইউপির খাশিপাড়া গ্রামের আছলম মিয়া দুটি দোকান ঘর নির্মাণ করে দখল করে আছেন। এর মধ্যে দখলদার আছলম মিয়া দুটি দোকানের মধ্যে একটি একই ইউপির মজলিসপুর গ্রামের তুরন মিয়ার নিকট বিক্রি করে দেন। দখলকৃত দোকানে আখলু মিয়া ও তুরন মিয়া নিজেই ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন এবং আছলম মিয়া তার দোকান পাঁচপাড়া গ্রামের আনছার মিয়ার নিকট ভাড়া দিয়ে দিয়েছেন।বীজাগারের ভূমিতে অবৈধ দখলদার তুরন মিয়ার ছেলে এমরান মিয়া ও আখলু মিয়ার নাতি আলমগীর আহমদ সরকারি ভূমি দখলের কথা স্বীকার করে বলেন, যা হয়েছে তা তাদের অভিভাবকরা করেছেন।উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোস্তফা কামাল বলেন, অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদের ব্যাপারে ব্যবস্থা নেয়া হবে। মন্ত্রণালয় থেকে বরাদ্দ পেলে রক্ষণাবেক্ষণের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ হবে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.