সংবাদ শিরোনাম
ওসমানীনগরে বন্যা আশ্রয়কেন্দ্রে ২শতাধিক বাসিন্দা উপজেলা প্রশাসনের তালিকায় মাত্র ৪৩জন  » «   ওসমানীনগরে কুশিয়ারা নদীতে অবৈধ বালু উত্তোলন ঝুঁকিতে ড্রাইক ও গ্রাম  » «   সিলেটের বিভিন্ন স্থান থেকে চোরাই মোবাইল সিন্ডিকেটের ৬ জন সদস্য র‌্যাব-৯ এর হাতে গ্রেফতার  » «   করিম উল্লাহ মার্কেট থেকে বিপুল পরিমাণ মোবাইলসহ ৬ জন গ্রেফতার  » «   ঈদকে সামনে রেখে নবীগঞ্জে জমে উঠেছে জমজমাট পশুর হাট!  » «   শিশুদের সুপ্ত মেধা বিকাশে প্রতিযোগিতা আয়োজনের বিকল্প নেই: শেখ রাসেল হাসান  » «   মেজরটিলায় টিলা ধসে হতাহতের ঘটনায় সিলেট মহানগর বিএনপির শোক  » «   দেশের স্বাস্থ্য খাতের উন্নয়নে শহীদ জিয়া দূরদর্শী অবদান রেখেছিলেন-অধ্যাপক ডা. এ জেড এম জাহিদ  » «   ডামি সরকারের ডামি বাজেট জনগণ প্রত্যাখ্যান করেছে-বিএনপি  » «   গোয়ালাবাজার থেকে খাদিম পুর রোডের রাস্তার দুই পাশে গাছ হেলে পড়ায় দুর্ঘটনার আশঙ্কা  » «   আলোকিত দেশ গড়তে শিক্ষার্থীদেরকে আদর্শবান হতে হবে: প্রতিমন্ত্রী শফিক চৌধুরী  » «   মরহুম প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকীতে সিলেট মহানগর বিএনপির খাদ্য বিতরণ  » «   ইতিহাস বিকৃত করে মানুষের হৃদয় থেকে শহীদ জিয়ার নাম মুছে ফেলা যাবে না  » «   নবীগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতে নাশকতা ও হয়রানির শেষ কোথায়? সচেতন মহলের প্রশ্ন  » «   উচ্চহারের হোল্ডিং ট্যাক্স বাতিল ঘোষণার পরিপ্রেক্ষিতে সিলেটের নাগরিক বৃন্দের আনুষ্টানিক বক্তব্যঃ  » «  

কুলাউড়ায় উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা পদ ৪ মাস ধরে শূন্য!

11সিলেটপোস্টরিপোর্ট:কুলাউড়া উপজেলা ৫০ শয্যা হাসপাতালে স্বাস্থ্য কর্মকর্তার পদটি সাড়ে ৪ মাস থেকে শূন্য। ফলে প্রশাসনিক কাজে প্রায়ই নানা জটিলতার সৃষ্টি হয়। সর্বশেষ হাসপাতালের কর্মকর্তা কর্মচারীদের বেতন নিয়ে হয়েছে নাটকীয়তা।কুলাউড়া উপজেলা ৫০ শয্যা হাসপাতালের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার পদ নিয়ে ২০১৪ সালের অক্টোবর মাস থেকে চলছে নানা নাটকীয়তা। সে সময় ভারপ্রাপ্ত স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আলাউদ্দিন আল আজাদ অনিয়ম ও দুর্নীতির দায়ে স্ট্যান্ড রিলিজ হন। তার স্থলাভিষিক্ত হন ডা. মো. শাহজাহান কবীর। কিন্তু স্ট্যান্ড রিলিজকৃত স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মো. আলাউদ্দিন আল আজাদ দায়িত্ব হস্তান্তর করতে নানা টালবাহানা করেন। শেষতক স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিচালক (প্রশাসন) এর হস্তক্ষেপ পরিস্থিতির সমাধান হয়। পরবর্তী স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মো. শাহজাহান কবির দায়িত্ব পালন করে ১৬ জুলাই পদোন্নতি পেয়ে সিলেটে চলে যান। ভারপ্রাপ্ত স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব নেন ডা. মহি উদ্দিন। নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির দায়ে তাকেও গত অক্টোবর মাসে স্ট্যান্ড রিলিজ করা হয় নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। কিন্তু তিনি সেখানে যোগদান করেননি। সরকারি নির্দেশ উপেক্ষা করেও কুলাউড়া হাসপাতালে ভারপ্রাপ্ত স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মহিউদ্দিন থাকেন স্বপদে বহাল।এদিকে ঢাকার গাজীপুর থেকে ডা. মোস্তাফিজুর রহমানকে কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা হিসেবে বদলি করা হয়। কিন্তু যোগদানের আগেই পদোন্নতি পেয়ে যান তিনি। ফলে তার আর যোগদান করা হয়নি। সর্বশেষ ভারপ্রাপ্ত স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা.মহিউদ্দিনকে জুড়ী হাসপাতালে আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার হিসেবে বদলি করা হয়। শেষ কর্মদিবসে তিনি হাসপাতালে ৩য় ও ৪র্থ শ্রেণীর কর্মচারীদের বেতন শিটে স্বাক্ষর করতে অপারগতা প্রকাশ করেন। সৃষ্টি হয় হাসপাতালের কর্মচারীদের মধ্যে ক্ষোভ। ক্ষুব্ধ কর্মচারীরা হাসপাতালের বহির্বিভাগে কর্মবিরতি পালন শুরু করেন। একপর্যায়ে মৌলভীবাজারের সিভিল সার্জনের হস্তক্ষেপে বেতন শিটে স্বাক্ষর করলে পরিস্থিতি শান্ত হয়।এ ব্যাপারে মৌলভীবাজারের সিভিল সার্জন সত্যকাম চক্রবর্তী জানান, আমি জানার সঙ্গে সঙ্গেই সমস্যার সমাধান হয়েছে। আশা করি, এক সপ্তাহের মধ্যেই একজন স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা কুলাউড়ায় যোগদান করবেন। ফলে পরে আর কোনো সমস্যা সৃষ্টি হবে না।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.