সংবাদ শিরোনাম
সিলেটের ওসমানীনগরে মা-মেয়েকে জোরপূর্বক ধর্ষণের অভিযোগ  » «   জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির অযৌক্তিক সিদ্বান্ত-বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল  » «   দেশের সংকট নিরসনের জন্য আওয়ামীলীগকে বিতাড়িত করার বিকল্প নেই :খন্দকার মুক্তাদির  » «   চুনারুঘাটে ছেলের হাতে মা খুন,ছেলে আটক  » «   জৈন্তাপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২  » «   দোয়ারাবাজারে ভারতীয় মালামালসহ আটক ২   » «   ওসমানীনগর থানার ওসি অথর্ব ও দুর্নীতিবাজ-মোকাব্বির খান এমপি  » «   ভোলায় পুলিশী ন্যাক্কারজনক ঘটনায় সিলেটে যুবদলের বিক্ষোভ মিছিল  » «   সিলেটে ঘুষ ছাড়া সহজে কারো পাসপোর্ট হয়না: ব্যবস্থা নিতে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর চিঠি  » «   সুনামগঞ্জে জেলা বিএনপির বিক্ষোভ মিছিলে পুলিশের বাধা  » «   জামালগঞ্জে জামায়াতের আমীর দেশীয় আগ্নেয়াস্ত্র জিহাদি বইসহ ২জন আটক-মামলা  » «   সুনামগঞ্জের বিশ্বম্ভরপুরে পুকুরে ডুবে দুই বোনের মৃত্যু  » «   জৈন্তাপুর সীমান্তের ডিবির হাওর এলাকায় ৪৮ বিজিবি’র মেডিক্যাল ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত  » «   ওসমানীনগরে সাংবাদিকের বাড়িতে কর্মরত যুবকের লাশ ডোবা থেকে উদ্ধার  » «   দোয়ারাবাজারে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু  » «  

ধর্মমন্ত্রীর বিরুদ্ধে সাংগঠনিক শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ: শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা

11সিলেটপোস্ট রিপোর্ট :ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রিন্সিপাল মতিউর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মতিন সরকারের মধ্যে বিরোধ চরম আকার ধারণ করছে।দলীয় সিনিয়র সহ-সভাপতি এড. জহিরুল হক খোকা, সাধারণ সম্পাদক মতিন সরকারসহ প্রভাবশালী নেতাদের বাদ দিয়ে ধর্মমন্ত্রী প্রিন্সিপাল মতিউর গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেন। এতে সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মতিন সরকার ক্ষুব্ধ হন। বুধবার স্থানীয় সাংবাদিকদের কাছে পাঠানো এক বিবৃতিতে সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মতিন সরকার অভিযোগ করে জানান, ‘জেলা আওয়ামী লীগের নামে ব্যক্তি ইচ্ছা পূরণের অপচেষ্টায় দলের মধ্যে জটিলতার সৃষ্টি করা হয়েছে। এই জটিলতা নিরসনে ক্ষুব্ধ সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মতিন সরকার দলীয় সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।ধর্মমন্ত্রী ও জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রিন্সিপাল মতিউর রহমানের প্রতি ইঙ্গিত করে মতিন সরকার বলেন, জেলা আওয়ামী লীগের কো-অপ্ট নিয়ে জটিলতার অবসান না হলেও মুক্তিযোদ্ধা সংসদ নির্বাচনের সময় পদত্যাগকারী নেতাদের পুনরায় জেলা কমিটিতে ফিরিয়ে আনার অপচেষ্টা চলছে। নির্বাচনের মাধ্যমে গঠিত নান্দাইল উপজেলা কমিটিকেও ভেঙে দেয়া হয়েছে।বিবৃতিতে জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পদক অভিযোগ করেন, অবৈধ পন্থায় জেলা কমিটির শুন্য পদে গত বছরের নভেম্বরে কো-অপ্ট করা নিয়ে জটিলতা সৃষ্টি হয়েছে। এ জটিলতা দূর না করে জেলা আওয়ামী লীগের কার্যকরী পরিষদের সভা আহবান করা সম্ভব হচ্ছে না। অবৈধভাবে কো-অপ্ট করার বিষয়টি কেন্দ্রীয়ভাবে এখনো গৃহীত হয়নি উল্লেখ করে তিনি বলেন, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের বিভিন্ন পর্যায়ে নির্বাচন করতে গিয়ে জেলা আওয়ামী লীগের যে সকল নেতারা পদত্যাগ করেছিলেন তাদের পুনরায় জেলা কমিটিতে ফিরিয়ে আনার কোন বিধান নেই। কিন্তু ব্যক্তি ইচ্ছায় সেটি করারও চেষ্টা চালানো হচ্ছে। এ কারণেই জেলা কমিটির সভা আহব্বান করা সম্ভব হয়নি। সম্প্রতি জেলা আওয়ামী লীগের কার্যকরী কমিটির সভায় নান্দাইল উপজেলা আওয়ামী লীগের কমিটি ভেঙে দিয়ে নতুন আহব্বায়ক কমিটি গঠনেরও কড়া সমালোচনা করেন তিনি। আব্দুল মতিন আরো বলেন, নান্দাইল উপজেলা কমিটি সম্মেলনের মাধ্যমে নির্বাচিত কমিটি। এ কমিটি ভেঙে দেয়ার কোন এখতিয়ার জেলা কমিটির নেই। সংগঠন কোন ব্যক্তির নয়, সংগঠন অবশ্যই গঠনতন্ত্রের বিধি বিধান অনুযায়ীই চলবে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.