সংবাদ শিরোনাম
দোয়ারাবাজারে মাদক সেবনের দায়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৪ জনের সাজা  » «   বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে তরুণীর অনশন  » «   দোয়ারাবাজারে কেন্দ্র ফি’র নামে এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত অর্থ আদায়  » «   তাহিরপুরে বিদ্যালয়ের আয়-ব্যয়ের হিসাব দিতে প্রধান শিক্ষকের টালবাহানা   » «   দোয়ারাবাজারে সরকারি ভাতা দেওয়ার নামে প্রতারণা, প্রতারককে জরিমানা  » «   মৌলভীবাজারের জুড়িতে ২ বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামিসহ দুইজন গ্রেফতার  » «   দোয়ারাবাজারে বিদেশী মদের চালানসহ মাদক কারবারি আটক  » «   সুনামগঞ্জের তিন উপজেলার ১৫টি স্পটে চলছে সহশ্রাধিক অবৈধ ক্রাশার মেশিনের তান্ডব  » «   সুনামগঞ্জে পিতা ও কন্যার উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের  » «   সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে স্কুল ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার  » «   সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে অজ্ঞাত বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার  » «   নবীগঞ্জে যুদ্বাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা ফিরোজ মিয়া আমাদের মধ্যে আর নেই! রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাপন  » «   জুড়ীতে ফেনসিডিল ও ইয়াবাসহ আটক ১  » «   ছাতকে আবুল হোসেনকে পরিকল্পিত হত্যা নাকি অন্য কারণ?প্রকৃত অপরাধীদের আড়াল করার অপচেষ্টা   » «   দোয়ারাবাজারে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক বরখাস্ত   » «  

‘৭৫ সালের আগে বাংলাদেশে কোন বিভাজন ছিল না’

12সিলেটপোস্ট রিপোর্ট :আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও জনপ্রশাসন মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন, ১৫ই আগস্টের পর যুদ্ধাপরাধীদের দেশে পুর্নবাসন করেছেন জিয়াউর রহমান ও এরশাদ। মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি ও বিপক্ষের শক্তির বিভাজন বাংলাদেশে ছিল না। ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মধ্য দিয়ে এ বিভাজনটা ইচ্ছা করেই করা হয়েছে। অনেকেই আমরা এ ফাঁদে পা দিয়েছি। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রাজধানীর শাহবাগে মুক্তিযোদ্ধা দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিল আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।তিনি বলেন, আজ সমগ্র জাতির ঐক্যবদ্ধ থাকার কথা ছিল। কিন্তু সেখানে আমরা দেখছি বিভাজন।মুক্তিযোদ্ধাদের উদ্দেশ্যে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, আমরা আপনাদের সামনে অঙ্গীকার করেছিলাম, ক্ষমতায় এলেই যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করবো।জননেত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পর একের পর এক মামলা করা হয়েছে, সেই মামলার তদন্ত হয়েছে, বিচার হয়েছে এবং অনেকের রায়ও কার্যকর করা হয়েছে। এটা আমাদের পরম পাওনা। এতে লক্ষ মা-বোন যারা সম্ভ্রম হারিয়েছেন এবং শহীদ হয়েছে তাদের আত্মা কিছুটা হলেও শান্তি পাবে। মুক্তিযোদ্ধা কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) হেলাল মোর্শেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ. ক. ম. মোজাম্মেল হক, নৌ পরিবহন মন্ত্রী শাহজাহান খান, পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী লে. কর্ণেল (অব.) নজরুল ইসলাম, সংগঠনের মহাসচিব ইসমত কাদির গামা, মহাসচিব (প্রশাসন) এমদাদ হোসেন মতিন, মহাসচিব (কল্যাণ) আলাউদ্দিন, মহাসচিব (অর্থ) শাহ আলম প্রমুখ।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.