সংবাদ শিরোনাম
নবীগঞ্জের রুস্তমপুর টোলপ্লাজা এলাকায় থেকে ৩ কেজি গাঁজাসহ ২ মাদক ব্যবসায়ী পুলিশের হাতে গ্রেফতার  » «   ছাতকে বাস-সিএনজি মুখোমুখি সংঘর্ষে কন্ঠশিল্পী পাগল হাসান নিহত  » «   সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জে মায়ের সম্পত্তি নিয়ে ছোটভাইয়ের হাতে বড়ভাই নিহত,আটক-২  » «   দিরাইয়ে বজ্রপাতে দুইজন কৃষকের মৃত্যু  » «   পরিবেশ অধিদপ্তরের অনিয়ম দুর্নীতির বিরুদ্ধে সতর্ক থাকার আহবান  » «   সিলেট জেলা ট্রাক-পিকআপ-কাভার্ড ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের ঈদ পুনর্মিলনী ও আলোচনা সভা  » «   ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন মানবাধিকার ও অনুসন্ধান কল্যাণ সোসাইটি’র সভাপতি শেখ লুৎফুর  » «   পুলিশ-ম্যাজিস্ট্রেসীর মধ্যে পারস্পরিক সম্পর্ক ও সমন্বয় অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ-সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ  » «   মানবাধিকার ও অনুসন্ধান কল্যাণ সোসাইটি’র ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত  » «   সুনামগঞ্জে কালবৈশাখীর ঝড়ে ৭শতাধিক কাচা ঘরবাড়ি,২ শতাধিক দোকান লন্ডভন্ড  » «   হবিগঞ্জে চাল্যকর ছোবহান হত্যা মামলার ৫ জন আসামীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৯  » «   নবীগঞ্জে ৬ বছরে শিশুকে চকলেটের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ! ধর্ষনকারী আনহারকে আটক   » «   ফ্যাসিস্ট ডামি সরকারকে পদত্যাগে বাধ্য করা হবে :কাইয়ুম চৌধুরী  » «   বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন সিলেট জেলার উদ্যোগে ইফতার বিতরণ ও দোয়া মাহফিল  » «   সিলেটে পারিবারিক কলহের জেরে ছেলের হাতে বাবা খুন  » «  

একজন জনতার নেতার বিদায়ে অশ্রুশিক্ত সহকর্মীরা

মীর শোয়েব আহমদ::বিদায় সব সময় কষ্টের, বেদনার। কোন বিদায়ই আনন্দের হয়না, কেউ বিদায় নেয় কলঙ্ক নিয়ে, আর কেউ বিদায় নেয় নীল ভালোবাসা নিয়ে। ঠিক তেমনি চোখের জলে সহকর্মীদের কাছ থেকে বিদায় নিলেন অ্যাডভোকেট আফছর আহমদ। শুধু তিনিই কাঁদেননি, অশ্রুসিক্ত হয়েছেন সহকর্মীরা। সিলেট সদর উপজেলার খাদিমপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের সদ্যবিদায়ী চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আফছর আহমদ। নবগঠিত সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ৩২ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা হওয়ায় সর্বশেষ নির্বাচনে অংশ নেননি তিনি। এ নির্বাচনে বিজয়ী প্রার্থী নবনির্বাচিত পরিষদের দায়িত্ব হস্তান্তর অনুষ্ঠান ছিল আজ বৃহস্পতিবার (১৮ মে)। সেদিনই খাদিমপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্সে তৈরি হয় এক আবেগঘন পরিবেশের। ইউনিয়নের জনপ্রতিনিধি হিসেবে শেষ দিনে পেয়েছেন ঐতিহাসিক বিদায়।
খাদিমপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের দীর্ঘ ৭ বছর চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেন আফছর আহমদ। এর আগে একাধিকবারের নির্বাচিত ইউপি সদস্য হিসেবে দায়িত্বে ছিলেন। দেশের অন্যতম বৃহত্তর এই ইউনিয়নের জনপ্রতিনিধি হিসেবে তিনি অসংখ্য মানুষের ভালোবাসা অর্জন করেছেন। উন্নয়ন করেছেন ইউনিয়নের আনাচে-কানাচে।
সিলেট সিটি কর্পোরেশনের বর্ধিত এলাকার বাসিন্দা হওয়ায় অবশেষে আসে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে বিদায়ের পালা। সদ্য অনুষ্ঠিত ইউপি নির্বাচনে অংশ নেওয়া হয়নি তার। বিজয়ী প্রার্থীর কাছে হস্তান্তর করেন তার দায়িত্ব।
বৃহস্পতিবার তার বিদায় সংবর্ধনায় অনেকেই তার সম্পর্কে বলতে গিয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে কেঁদে ফেলেন । জনমুখর দায়িত্ব হস্তান্তর অনুষ্ঠান শেষে তিনি বিদায় নিতে যান ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্সে। সেখানে দেখা হয় দীর্ঘদিনের সহকর্মীদের। পাশে ছিলেন ইউপি সদস্যরা। প্রিয় চেয়ারম্যানকে বিদায়ের সময় সহকর্মীরা কান্নায় ভেঙে পড়েন। কেউ কেউ বুকে জড়িয়ে ধরে অঝোরে কাঁদতে থাকেন। তাদের এই অশ্রুসিক্ত বিদায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ইতোমধ্যে হৃদয়স্পর্শ করেছে।

সম্প্রতি এলাকার সর্বস্তরের বাসিন্দারা অভিনন্দন জানিয়ে সম্মানজনক বিদায় দিয়েছেন তাদের প্রিয় চেয়ারম্যানকে। অনেক ভালোবাসার উপহারও দিয়েছেন এলাকার লোকজন। শেষদিনে অশ্রুসিক্ত দোয়া ও ভালোবাসায় তাকে বিদায় জানানো হয়।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.