সংবাদ শিরোনাম
শান্তিগঞ্জের কান্দিগাঁও গ্রামে বাচ্চাদের ঝগড়া নিয়ে প্রতিপক্ষের লোকজনের হামলায় দুই ছাত্রীসহ ৩জন আহত  » «   বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে শিক্ষার গুনগত মান উন্নয়নে কাজ করছেন প্রধানমন্ত্রী : প্রতিমন্ত্রী শফিক চৌধুরী  » «   রমজান উপলক্ষে জুলকার নায়েন ফাউন্ডেশন দোয়ার বই ও খেজুর বিতরণ  » «   ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা জানিয়েছেন মানবাধিকার ও অনুসন্ধান কল্যাণ সোসাইটি  » «   মাদানী ইস্যুকে কেন্দ্র করে সুনামগঞ্জের পুলিশ তদন্তকেন্দ্রে হামলা ভাংচুর, আটক ৫; পুলিশের ২৭ রাউন্ড ফাঁকা গুলি  » «   সুনামগঞ্জে ইয়াকুবিয়া দাখিল মাদ্রাসার পুস্তক পাচারের সময় পিকআ্পভ্যান বোঝাই পুস্তক আটক  » «   ভাষার মর্যাদাপূর্ণ ব্যবহার সমাজে শান্তি-শৃংঙ্খলা বজায় রাখে -ইমরান আহমদ এমপি  » «   সুনামগঞ্জে ইয়াকুবিয়া দাখিল মাদ্রাসার পুস্তক পাচারের সময় পিকআ্পভ্যান বোঝাই পুস্তক আটক  » «   পাথর কোয়ারী সচলের বিষয়ে সরকারের বিশেষ বিবেচনাধীন রয়েছে-প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ  » «   জৈন্তাপুরে পৃথক ৩ টি সড়ক দুর্ঘটনায় অন্তত ৭ জন আহত হয়েছেন  » «   জৈন্তাপুরে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের বিরুদ্ধে অভিযান  » «   বালাগঞ্জে অবৈধভাবে বিল সেচ, ধ্বংস হচ্ছে দেশীয় মাছ, কৃষকেরা সংকিত  » «   সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের মধ্যে পোশাক বিতরণ করল মানবাধিকার ও অনুসন্ধান কল্যাণ সোসাইটি  » «   নিউইয়র্কে মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি প্রবাসী দম্পতি নিহত  » «   মিথ্যা অপপ্রচারে বিভ্রান্ত না হয়ে সহযোগিতার আহবান -ওসি তাজুল ইসলাম (পিপিএম)  » «  

সিলেটে ভ্যানে করে বিভিন্ন প্রজাতির ফুল ও ফলের চারা বিক্রি করে সংসার চালাচ্ছেন আরশ আলী

সিলেটপোস্ট ডেস্ক::সিলেটে বিভিন্ন স্থানে ভ্যানে করে বিক্রি হচ্ছে বিভিন্ন প্রজাতির ফুল ও ফলের চারা আর তাতে আর্থিকভাবে লাভবান হচ্ছেন বিক্রেতারা। প্রতিদিন তারা আয় করতে পারছেন কমপক্ষে ৭শ’ থেকে এক হাজার টাকা। আর তাতে খেয়ে পড়ে মোটামুটি ভালই আছেন সবাই।

এ ব্যাপারে কথা হয় ভ্যানে করে ফুল ও ফলের চারা বিক্রেতা মোঃ আরশ আলী আলীর সাথে। তিনি জানান, গত ছয় বছরের থেকে এ বছর ব্যবসা একটু ভালো। তার কাছে সবনিম্ন ৪০ টাকার মধ্যে গাঁদা ফুলের চারা রয়েছে। গাঁদাফুল ছাড়া অন্যান্য বিভিন্ন রকমের ফুল তার কাছে পাওয়া যাচ্ছে। তাছাড়া ফুলের পাশাপাশি আপেল, আমসহ বিভিন্ন ধরনের গাছের চারা বিক্রি করছেন তিনি। এগুলোর বেশিরভাগই হাইব্রিড। শহরে এসব গাছের  চাহিদা বেশি এবং অল্প একটু জায়গাতেও এই গাছগুলি বেড়ে উঠতে পারে।

যদিও এ সমস্ত ফুলের স্থায়িত্ব থাকে মাত্র দুই থেকে তিন মাস। তারপরও লোকজন তার কাছ থেকে চারা কিনছে। কেউ চারাগুলি লাগাচ্ছেন বাড়ির আঙিনায়, বারান্দায়, কেউবা ব্যস্ত রয়েছে ছাদ  বাগানে।

এদিকে শহরের বিভিন্ন স্থানে যে সমস্ত ফুলের চারা বিক্রি হচ্ছে তার বেশিরভাগই হাইব্রিড। আর এ সমস্ত ফুল গাছগুলো যারা কিনছেন তারা শখের বসে কিনছেন।

এ ব্যাপারে অনেকের মন্তব্য হচ্ছে ৩০-৪০-৫০ টাকায় কিছুই হয় না। কিন্তু একটা ফুলের চারা লাগালে বাড়ির সৌন্দর্য বৃদ্ধি পায়। শহরে প্রায়  ১০ থেকে ১৫ জন ভ্রাম্যমান ফুল গাছ ব্যবসায়ী  প্রতিদিন এ সমস্ত ফুল গাছ  বিক্রি করে সাবলম্বী হচ্ছেন বলেও  জানান।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.