সংবাদ শিরোনাম
দোয়ারাবাজারে মাদক সেবনের দায়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৪ জনের সাজা  » «   বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে তরুণীর অনশন  » «   দোয়ারাবাজারে কেন্দ্র ফি’র নামে এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত অর্থ আদায়  » «   তাহিরপুরে বিদ্যালয়ের আয়-ব্যয়ের হিসাব দিতে প্রধান শিক্ষকের টালবাহানা   » «   দোয়ারাবাজারে সরকারি ভাতা দেওয়ার নামে প্রতারণা, প্রতারককে জরিমানা  » «   মৌলভীবাজারের জুড়িতে ২ বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামিসহ দুইজন গ্রেফতার  » «   দোয়ারাবাজারে বিদেশী মদের চালানসহ মাদক কারবারি আটক  » «   সুনামগঞ্জের তিন উপজেলার ১৫টি স্পটে চলছে সহশ্রাধিক অবৈধ ক্রাশার মেশিনের তান্ডব  » «   সুনামগঞ্জে পিতা ও কন্যার উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের  » «   সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে স্কুল ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার  » «   সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে অজ্ঞাত বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার  » «   নবীগঞ্জে যুদ্বাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা ফিরোজ মিয়া আমাদের মধ্যে আর নেই! রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাপন  » «   জুড়ীতে ফেনসিডিল ও ইয়াবাসহ আটক ১  » «   ছাতকে আবুল হোসেনকে পরিকল্পিত হত্যা নাকি অন্য কারণ?প্রকৃত অপরাধীদের আড়াল করার অপচেষ্টা   » «   দোয়ারাবাজারে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক বরখাস্ত   » «  

উইমেন্স হাসপাতালে স্বাস্থ্য অধিদফতরের তদন্ত কমিটি

swmchনিজস্ব প্রতিবেদক : সিলেট উইমেন্স মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসায় অবহেলায় শিশুর অঙ্গহানির (আঙ্গুল কর্তন) ঘটনা স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের তদন্ত কমিটি বাদী ও অভিযুক্তদের জবানবন্দি নিয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত উইমেন্স মেডিক্যাল কলেজের সেমিনার কক্ষে অভিযোগকারী টিভি ক্যামেরা জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সিনিয়র সহ সভাপতি বদরুর রহমান বাবর, অর্থোপেডিক্স ও সার্জারী বিভাগের প্রধান ডা. কাজী সেলিম, রেজিস্টার ডা. জাবের আহমদসহ ১০ জনের লিখিত জবানবন্দি গ্রহণ করেছেন।
তদন্তকালে উপস্থিত ছিলেন তদন্ত কর্মকর্তা সিলেটের সিভিল সার্জন আজহারুল ইসলাম, সদস্য সিলেটের কুষ্ট হাসপাতালের জুনিয়র কনসালটেন্ট ডা. মো. তবিবুল ইসলাম ও গোলাপগঞ্জ উপজেলার স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. হিমাংশু লাল রায়। শুরুতে সিভিল সার্জন অফিসের প্রশাসনিক কর্মকর্তা গৌছ আহমদ চৌধুরী অভিযোগ পড়ে শোনান অভিযুক্তদের। পরে অভিযুক্তরা তদন্ত কমিটির সামনে তাদের নিজ নিজ বক্তব্য লিখে জমা দেন। এছাড়া অভিযোগকারী বাংলাভিশনের সিলেট অফিসের ক্যামেরাপার্সন বদরুর রহমান বাবর তদন্ত কমিটির কাছে ভিডিও চিত্র, স্থিরচিত্র, চিকিৎসাপত্রসহ ১২৬ পৃষ্টার ডকুমেন্ট হস্তান্তর করেন।
স্বাস্থ্য অধিদফতর, মহাখালী, ঢাকা ডিজিএইচএস/শৃঙ্খলা-৪৫/১৫/১৯৩৩ স্মারকে সিলেটের সিভিল সার্জনকে সাংবাদিক বদরুর রহমান বাবরের শিশু পুত্র সাফির আঙ্গুল কর্তনের ঘটনা তদন্তে ৩ সদস্যের কমিটি গঠনের নির্দেশ দেয়। এর প্রেক্ষিতে সিলেটের সিভিল সার্জন ডা. মো. আজহারুল ইসলামকে প্রধান করে ৩ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে।
উল্লেখ্য গত ১৮ জানুয়ারি টিভি ক্যামেরা জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সিনিয়র সহ সভাপতি ও বাংলাভিশনের সিলেট অফিসে ক্যামেরাপার্সন বদরুর রহমান বাবরের ৮ বছরের শিশুপুত্র সাফি দরজার হোজবেল্টে আঘাত পায়। দ্রুত চিকিৎসার জন্য বাসার পার্শ্ববর্তী সিলেট উইমেন্স মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে তাকে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসায় অবহেলার কারণে আঙ্গুলে ‘গ্যাংগ্রিন’ হয়। পরবর্তীতে ঢাকা ও সিলেটের বিশেষজ্ঞ ডাক্তারদের পরামর্শে গত ১৭ ফেব্রুয়ারি অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে সাফির ডানহাতের তর্জনী কেটে ফেলা হয়। এ ঘটনায় তিনি বাদী হয়ে চিকিৎসায় অবহেলার অভিযোগে উইমেন্স মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ৫ ডাক্তারসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে সিলেটের মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা করেন।
এ ব্যাপারে তদন্ত কমিটির সদস্য ডা. হিমাংশু লাল রায় বলেন, স্বাস্থ্য অধিদফতরের নির্দেশে গঠিত তদন্ত কমিটি সংশ্লিষ্ট ১০ জনের লিখিত জবানবন্দি নিয়েছে। এ জবানবন্দি ও প্রমানপত্র বিশ্লেষণ শেষে একটি সিদ্ধান্তে পৌছা যাবে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.