সংবাদ শিরোনাম
দোয়ারাবাজারে মাদক সেবনের দায়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৪ জনের সাজা  » «   বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে তরুণীর অনশন  » «   দোয়ারাবাজারে কেন্দ্র ফি’র নামে এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত অর্থ আদায়  » «   তাহিরপুরে বিদ্যালয়ের আয়-ব্যয়ের হিসাব দিতে প্রধান শিক্ষকের টালবাহানা   » «   দোয়ারাবাজারে সরকারি ভাতা দেওয়ার নামে প্রতারণা, প্রতারককে জরিমানা  » «   মৌলভীবাজারের জুড়িতে ২ বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামিসহ দুইজন গ্রেফতার  » «   দোয়ারাবাজারে বিদেশী মদের চালানসহ মাদক কারবারি আটক  » «   সুনামগঞ্জের তিন উপজেলার ১৫টি স্পটে চলছে সহশ্রাধিক অবৈধ ক্রাশার মেশিনের তান্ডব  » «   সুনামগঞ্জে পিতা ও কন্যার উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের  » «   সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে স্কুল ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার  » «   সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে অজ্ঞাত বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার  » «   নবীগঞ্জে যুদ্বাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা ফিরোজ মিয়া আমাদের মধ্যে আর নেই! রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাপন  » «   জুড়ীতে ফেনসিডিল ও ইয়াবাসহ আটক ১  » «   ছাতকে আবুল হোসেনকে পরিকল্পিত হত্যা নাকি অন্য কারণ?প্রকৃত অপরাধীদের আড়াল করার অপচেষ্টা   » «   দোয়ারাবাজারে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক বরখাস্ত   » «  

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের হাতাহাতি : আহত ১, ক্যাম্পাসে উত্তেজনা

jabi সিলেটপোস্টরিপোর্ট:জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে আফম কামাল উদ্দিন হল ও মীর মশারফ হোসেন হল ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে তীব্র উত্তেজনা বিরাজ করছে। এদিকে মারধরের ঘটনায় একজন আহত হয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে।মীর মশারফ হোসেন হল ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা রড-পাইপ রামদাসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে (রিপাের্ট লেখা পর্যন্ত) কামাল উদ্দিন হলের সামনের (কবীর স্মরণী) অবস্থান নিয়েছে। পক্ষান্তরে আফম কামাল উদ্দিন হলের ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরাও  রড-পাইপ নিয়ে হলের সামনে অবস্থান নিয়েছে।এর আগে দুপুরে কামাল উদ্দিন হলের আবাসিক ছাত্র ও জাবি শাখা ছাত্রলীগের উপ অর্থ সম্পাদক জুয়েল রানা এবং মীর মশারফ হোসেন হলের আবাসিক ছাত্র ও  ছাত্রলীগের সাহিত্য সম্পাদক সানোয়ার হোসেনের মধ্যে নতুন কলার সামনে বাকবিত-া হয়। এসময় ছাত্রলীগের উপ তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক (বহিষ্কৃত) আবদুর রহিম জুয়েল, জাবি শাখা ছাত্রলীগের উপ অর্থ সম্পাদক জুয়েল রানাকে ধাক্কা দিলে কামাল উদ্দিন হলের ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা আবদুর রহিমকে মারধর করে। পরে মীর মশারফ হোসেন হলের ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা দেশীয় অস্ত্রসহ কামাল উদ্দিন হলের সামনে অবস্থান নেয়। এসময় জাবি ছাত্রলীগের সভাপতি মাহমুদুর রহমান জনি ও সাধারণ সম্পাদক রাজিব আহমেদ রাসেলের হস্তক্ষেপে মীর মশারফ হোসেন হল ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা কবীর স্মরণি থেকে সরে গিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের অডিটরিয়ামের সামনে অবস্থান নেয়।অন্যদিকে মীর মশারফ হোসেন হলের ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা এক সাংবাদিককে লাঞ্ছিত করেছে।এ বিষয়ে আবদুর রহিম জুয়েল বলেন, কোন কারণ ছাড়াই আমাকে মারধর করেছে।উপ অর্থ সম্পাদক জুয়েল রানা বলেন, আবদুর রহিম আমাদের সাথে বেয়াদবি করেছে তাই শাসন করেছি।জাবি ছাত্রলীগ সভাপতি মাহমুদুর রহমান জনি বলেন, একটু উত্তেজনা বিরাজ করলেও পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।প্রক্টর অধ্যাপক তপন কুমার বলেন, পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.