সংবাদ শিরোনাম
সিলেটের ওসমানীনগরে মা-মেয়েকে জোরপূর্বক ধর্ষণের অভিযোগ  » «   জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির অযৌক্তিক সিদ্বান্ত-বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল  » «   দেশের সংকট নিরসনের জন্য আওয়ামীলীগকে বিতাড়িত করার বিকল্প নেই :খন্দকার মুক্তাদির  » «   চুনারুঘাটে ছেলের হাতে মা খুন,ছেলে আটক  » «   জৈন্তাপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২  » «   দোয়ারাবাজারে ভারতীয় মালামালসহ আটক ২   » «   ওসমানীনগর থানার ওসি অথর্ব ও দুর্নীতিবাজ-মোকাব্বির খান এমপি  » «   ভোলায় পুলিশী ন্যাক্কারজনক ঘটনায় সিলেটে যুবদলের বিক্ষোভ মিছিল  » «   সিলেটে ঘুষ ছাড়া সহজে কারো পাসপোর্ট হয়না: ব্যবস্থা নিতে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর চিঠি  » «   সুনামগঞ্জে জেলা বিএনপির বিক্ষোভ মিছিলে পুলিশের বাধা  » «   জামালগঞ্জে জামায়াতের আমীর দেশীয় আগ্নেয়াস্ত্র জিহাদি বইসহ ২জন আটক-মামলা  » «   সুনামগঞ্জের বিশ্বম্ভরপুরে পুকুরে ডুবে দুই বোনের মৃত্যু  » «   জৈন্তাপুর সীমান্তের ডিবির হাওর এলাকায় ৪৮ বিজিবি’র মেডিক্যাল ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত  » «   ওসমানীনগরে সাংবাদিকের বাড়িতে কর্মরত যুবকের লাশ ডোবা থেকে উদ্ধার  » «   দোয়ারাবাজারে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু  » «  

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের হাতাহাতি : আহত ১, ক্যাম্পাসে উত্তেজনা

jabi সিলেটপোস্টরিপোর্ট:জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে আফম কামাল উদ্দিন হল ও মীর মশারফ হোসেন হল ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে তীব্র উত্তেজনা বিরাজ করছে। এদিকে মারধরের ঘটনায় একজন আহত হয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে।মীর মশারফ হোসেন হল ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা রড-পাইপ রামদাসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে (রিপাের্ট লেখা পর্যন্ত) কামাল উদ্দিন হলের সামনের (কবীর স্মরণী) অবস্থান নিয়েছে। পক্ষান্তরে আফম কামাল উদ্দিন হলের ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরাও  রড-পাইপ নিয়ে হলের সামনে অবস্থান নিয়েছে।এর আগে দুপুরে কামাল উদ্দিন হলের আবাসিক ছাত্র ও জাবি শাখা ছাত্রলীগের উপ অর্থ সম্পাদক জুয়েল রানা এবং মীর মশারফ হোসেন হলের আবাসিক ছাত্র ও  ছাত্রলীগের সাহিত্য সম্পাদক সানোয়ার হোসেনের মধ্যে নতুন কলার সামনে বাকবিত-া হয়। এসময় ছাত্রলীগের উপ তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক (বহিষ্কৃত) আবদুর রহিম জুয়েল, জাবি শাখা ছাত্রলীগের উপ অর্থ সম্পাদক জুয়েল রানাকে ধাক্কা দিলে কামাল উদ্দিন হলের ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা আবদুর রহিমকে মারধর করে। পরে মীর মশারফ হোসেন হলের ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা দেশীয় অস্ত্রসহ কামাল উদ্দিন হলের সামনে অবস্থান নেয়। এসময় জাবি ছাত্রলীগের সভাপতি মাহমুদুর রহমান জনি ও সাধারণ সম্পাদক রাজিব আহমেদ রাসেলের হস্তক্ষেপে মীর মশারফ হোসেন হল ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা কবীর স্মরণি থেকে সরে গিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের অডিটরিয়ামের সামনে অবস্থান নেয়।অন্যদিকে মীর মশারফ হোসেন হলের ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা এক সাংবাদিককে লাঞ্ছিত করেছে।এ বিষয়ে আবদুর রহিম জুয়েল বলেন, কোন কারণ ছাড়াই আমাকে মারধর করেছে।উপ অর্থ সম্পাদক জুয়েল রানা বলেন, আবদুর রহিম আমাদের সাথে বেয়াদবি করেছে তাই শাসন করেছি।জাবি ছাত্রলীগ সভাপতি মাহমুদুর রহমান জনি বলেন, একটু উত্তেজনা বিরাজ করলেও পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।প্রক্টর অধ্যাপক তপন কুমার বলেন, পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.