সংবাদ শিরোনাম
মৌলভীবাজারের জুড়িতে ২ বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামিসহ দুইজন গ্রেফতার  » «   দোয়ারাবাজারে বিদেশী মদের চালানসহ মাদক কারবারি আটক  » «   সুনামগঞ্জের তিন উপজেলার ১৫টি স্পটে চলছে সহশ্রাধিক অবৈধ ক্রাশার মেশিনের তান্ডব  » «   সুনামগঞ্জে পিতা ও কন্যার উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের  » «   সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে স্কুল ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার  » «   সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে অজ্ঞাত বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার  » «   নবীগঞ্জে যুদ্বাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা ফিরোজ মিয়া আমাদের মধ্যে আর নেই! রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাপন  » «   জুড়ীতে ফেনসিডিল ও ইয়াবাসহ আটক ১  » «   ছাতকে আবুল হোসেনকে পরিকল্পিত হত্যা নাকি অন্য কারণ?প্রকৃত অপরাধীদের আড়াল করার অপচেষ্টা   » «   দোয়ারাবাজারে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক বরখাস্ত   » «   তাহিরপুরে রাতের আঁধারে কৃষকের জমির ধান কেটে নিল প্রতিপক্ষের লাঠিয়াল বাহিনী   » «   ঢাকা- সিলেট মহাসড়কে অ্যাম্বুলেন্স ও সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষ আহত ৭, আশংখাজনক ভাবে ৫জনকে সিলেট প্রেরন  » «   দিরাইয়ে আওয়ামীলীগের সম্মেলনে হামলার ঘটনায় ৭৭ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা  » «   এ সরকারকে বলে দিতে চাই আর কোনো হুমকি ধামকিতে কাজ হবে না-মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর  » «   সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে আওয়ামীলীগের ত্রি- বার্ষিক সম্মেলনে সংঘর্ষ ও নিহতের মামলায় গ্রেপ্তার ৪  » «  

আবহাওয়া পরিবর্তনে সিলেটের শিশু-বৃদ্ধরা সর্দি জ্বর কাশিতে আক্রান্ত

image_1104_310995সলমান আহমদ চৌধুরী : ঋতু অনুযায়ী ফাল্গুন-চৈত্র বসন্ত কাল। এ বছর চৈত্র মাসের প্রায় মাঝামাঝি সময়েই আবহাওয়ায় অনুভূত হয় গ্রীষ্মের আবহ। কাল হিসেবে সেটি বসন্ত হলেও তাপমাত্রা বলে দিয়েছিল গ্রীষ্মের শুরুমাত্র। যদিও বৈশাখ-জ্যৈষ্ঠ গ্রীষ্মকাল। গ্রীষ্মের তাপমাত্রা অনুভূত হওয়ায় ঘরে ঘরে দেখা দিচ্ছে জ্বর, সর্দি, কাশি, গা-ব্যথা এমনকি নানারকম পেটের পীড়া। এ সকল অসুখে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হচ্ছেন শিশু ও বৃদ্ধরা। অনেকের জ্বরের সাথে বমিও হচ্ছে। চিকিৎসকরা বলছেন দিনে প্রচণ্ড গরম এবং গভীর রাত থেকে ভোর পর্যন্ত কিছুটা ঠাণ্ডা আবহাওয়ার কারণে নানাবিধ শারীরিক সমস্যায় পড়ছে মানুষ। তবে ভয় পাওয়ার কিছু নেই। একটু নিয়ম মেনে এবং স্বাস্থ্যসম্মতভাবে চললে তেমন কোনো আশংকা নেই। তবে শূন্য থেকে ১ বছর বয়সী শিশুদের জ্বর সর্দি কাশি হলে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ গ্রহণ করে ওষুধ খাওয়ানো প্রয়োজন। কখনোই নিজে বা অন্য কারও কাছে শুনে ওষুধ সেবন উচিত হবে না। বিশেষ করে জ্বরের ওষুধ এবং এন্টিবায়োটিক চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া সেবন করা কোনোভাবেই সমীচীন হবে না। অপরদিকে পরিবেশ বিজ্ঞানীরা বলছেন, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে বিগত বেশ কয়েক বছর যাবত আবহাওয়ার ক্ষেত্রে স্বাভাবিকতার পরিবর্তে বৈচিত্র দেখা যাচ্ছে। গ্রীষ্মের আগেই অতি গরম এবং শীতকাল যথাযথভাবে স্থায়ী না হওয়া ও বর্ষাকালে কাক্সিক্ষত পরিমাণ বৃষ্টি হচ্ছে না।

সিলেট মহানগরীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেল, বিভিন্ন বাড়িতে জ্বর,সর্দি,কাশিতে ভুগছেন অনেকেই। জ্বরে আক্রান্তদের সাথে কথা বলে জানা গেছে তারা ঠিকমত খেতে পারছেন না। মুখ তেতো এবং কোনো রুচি নেই। জ্বরের সাথে অনেকের বমি হচ্ছে। জ্বরের সাথে সাথে অনেকের শরীরে ব্যথা হচ্ছে। অনেকে চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়াই নিজ উদ্যোগে প্যারাসিটিমল, নাপাসহ বিভিন্ন ওষুধ এবং এমনকি এন্টিবায়োটিক ওষুধও খাচ্ছেন। ফলে নানারকম শারীরিক জটিলতা তৈরি হচ্ছে। এ সকল জটিলতা নিয়ে পরবর্তীতে দ্বারস্থ হচ্ছেন চিকিৎসকদের কাছে। আবহাওয়া পরিবর্তনের কারণে অনেকের শরীরের চামড়ায় নানা উপসর্গ দেখা দিচ্ছে। অনেকের চোখের নীচে প্রদাহ তৈরি হচ্ছে। সবমিলিয়ে আবহাওয়া পরিবর্তনজনিত কারণে নানা সম্যসায় পড়ছে মানুষ।

এ ব্যাপারে এক শিশু বিশেষজ্ঞের সাথে কথা বলে জানা গেল, আবহাওয়া পরিবর্তনজনিত কারণে জ্বর, সর্দি,কাশি এমনকি পেটের পীড়াও হচ্ছে। তবে এ ক্ষেত্রে অতিরিক্ত ঘাম যেন শরীরে বসে না যায় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। শিশু ও বৃদ্ধদের রোদে বেশি সময় ঘোরাঘুরি না করা ভালো। খাওয়া-দাওয়ার ক্ষেত্রে স্বাভাবিক খাবারের সাথে শাক সবজি ও তরিতরকারী  বেশি বেশি খাওয়া প্রয়োজন এবং প্রয়োজন মতো পানি পান করার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.