সংবাদ শিরোনাম
দোয়ারাবাজারে একে একে ডুবছে ঘরবাড়ি ও রাস্তাঘাট,পুকুর  » «   সবাইকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মানবাধিকার ও অনুসন্ধান কল্যাণ সোসাইটি’র সভাপতি শেখ লুৎফুর  » «   ওসমানীনগরে বন্যা আশ্রয়কেন্দ্রে ২শতাধিক বাসিন্দা উপজেলা প্রশাসনের তালিকায় মাত্র ৪৩জন  » «   ওসমানীনগরে কুশিয়ারা নদীতে অবৈধ বালু উত্তোলন ঝুঁকিতে ড্রাইক ও গ্রাম  » «   সিলেটের বিভিন্ন স্থান থেকে চোরাই মোবাইল সিন্ডিকেটের ৬ জন সদস্য র‌্যাব-৯ এর হাতে গ্রেফতার  » «   করিম উল্লাহ মার্কেট থেকে বিপুল পরিমাণ মোবাইলসহ ৬ জন গ্রেফতার  » «   ঈদকে সামনে রেখে নবীগঞ্জে জমে উঠেছে জমজমাট পশুর হাট!  » «   শিশুদের সুপ্ত মেধা বিকাশে প্রতিযোগিতা আয়োজনের বিকল্প নেই: শেখ রাসেল হাসান  » «   মেজরটিলায় টিলা ধসে হতাহতের ঘটনায় সিলেট মহানগর বিএনপির শোক  » «   দেশের স্বাস্থ্য খাতের উন্নয়নে শহীদ জিয়া দূরদর্শী অবদান রেখেছিলেন-অধ্যাপক ডা. এ জেড এম জাহিদ  » «   ডামি সরকারের ডামি বাজেট জনগণ প্রত্যাখ্যান করেছে-বিএনপি  » «   গোয়ালাবাজার থেকে খাদিম পুর রোডের রাস্তার দুই পাশে গাছ হেলে পড়ায় দুর্ঘটনার আশঙ্কা  » «   আলোকিত দেশ গড়তে শিক্ষার্থীদেরকে আদর্শবান হতে হবে: প্রতিমন্ত্রী শফিক চৌধুরী  » «   মরহুম প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকীতে সিলেট মহানগর বিএনপির খাদ্য বিতরণ  » «   ইতিহাস বিকৃত করে মানুষের হৃদয় থেকে শহীদ জিয়ার নাম মুছে ফেলা যাবে না  » «  

হবিগঞ্জে লটারীর ড্র’এর নামে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে প্রতারক চক্র -জনতার ধাওয়ায় আয়োজকদের পলায়ন

hobigonjসিলেটপোস্টরিপোর্ট:হবিগঞ্জ শহরে লটারীর নামে প্রতারণা করেছে ইউনাইটেড ক্লাব নামের একটি ভূইফোর সংগঠন। ড্র অনুষ্ঠানে বিক্ষুব্ধ জনতার ধাওয়ায় পালিয়ে আত্মরক্ষা করেছে আয়োজকরা। গতকাল শনিবার রাত সাড়ে ১১টায় শহরের বগলা বাজারে এ ঘটনা ঘটে। জানা যায়, ইউনাইটেড ক্লাব নামে ওই সংগঠনটি দীর্ঘ প্রায় দুই মাস যাবত শহর ও শহরতলীর বিভিন্ন এলাকায় লটারীর নামে টিকেট বিক্রি করে আসছিল। প্রথমে সংগঠনটি পহেলা বৈশাখে ড্র অনুষ্ঠানের ঘোষনা দেয়। কিন্তু অনিবার্য কারন দেখিয়ে পরে তা পিছিয়ে পহেলা মে-তে ড্র অনুষ্ঠানের ঘোষনা দেয়। পরে আবারও তা পিছিয়ে গতকাল শনিবার রাতে ড্র অনুষ্ঠানের আয়োজন করে ওই সংগঠন। প্রথম পুরস্কারের টিকেটটি টানার পর লক্ষ্য করা যায় এতে কোন নাম ও ফোন নাম্বার লেখা নেই। দ্বিতীয় পুরস্কারের টিকেটটি টানার পর একই বিষয় লক্ষ করেন উপস্থিত লোকজন। তখন লোকজনের মধ্যে বিষয়টি নিয়ে সন্দেহ জাগে। পরে উপস্থিত লোকজন জানতে পারেন বিক্রিত টিকেটের মোড়ির ড্রাম লুকিয়ে রেখে অবিক্রিত টিকেটের মোড়ি দিয়ে ড্র করা হচ্ছে। তা ছাড়া প্রথম পুরস্কারসহ কোন পুরস্কারই মঞ্চে না থাকায় লোকজনের কাছে সন্দেহের বিষয়টি আরো ঘনিভূত হয়। তখন বিক্ষুব্ধ লোকজন মঞ্চে উঠে আয়োজকদের ধাওয়া করলে তারা পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করে। এদিকে, স্থানীয় সূত্র জানায় কথিত ওই সংগঠনের সভাপতির নাম মোঃ সুহেল মিয়া। সে শহরের বগলা বাজার এলাকার সফর আলীর পুত্র। স্থানীয়রা জানান ওই সংগঠনটি গত দুই মাসে প্রায় ১৫/২০ হাজার টিকেট বিক্রি করে কয়েক লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়াার করুন

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by:

.